স্বামীর ভালোবাসা part : 28

0
701

স্বামীর ভালোবাসা part : 28

লেখিকা সুরিয়া মিম

!
ছিছিছি,
!
এতো বিশ্রী গন্ধ আমি আগে কখনো পাইনি,
!
তুমি রেগে গিয়ে আমাকে উল্টো পাল্টা বলছ,
!
আপনার মনে হয় আমি আপনার ওপরে রেগে আছি?
…….
শুনুন যাকে ঘৃণা করা হয় তাকে রাগ দেখানো হয় না গট ইট,
!
রাগ অভিমান সবি আমার ভালোবাসার মানুষ গুলির সাথে,
…..
আপনার সাথে আমার শুধু ঘৃণার সম্পর্ক,
……
আর কোন অধিকারে?
আপনি কোন সাহসে আমাকে জড়িয়ে আছেন?
……
অধিকারের কথা বলছ?
আমার অধিকার তোমার ওপরে সবচেয়ে বেশি,
!
তার জন্যেই তো অন্য মেয়েদের সাথে ফষ্টিনষ্টি করেন,
……
ও রাত করে বাসায় ফিরে আমাকে নিজের বৌ বলে দাবি করেন?
……
আপনার অধিকারের জোড় এতোই বেশি,
…..
যে আমার আপনাকে নিজের আশেপাশে এক মুহূর্ত ও সহ্য হয় না,
…….
আর আমি বুঝিনা আপনি কেন হঠাৎ করে অধিকার অধিকার করে আমার মাথা খাচ্ছেন?
……….
আমি বুঝি আপনার শরীরে চাহিদা হয়েছে,
তাই এভাবে ছটফট করছেন,
…..
কি হলো এভাবে কি দেখছেন?
……
দশমাস সংসার করেছি আমি আপনার সাথে,
…….তাই আপনার কখন কিসের চাহিদা হয়,
সেটা আমি ভালো করেই বুঝি,
……
চাহিদাজনিত কারণে আপনি এমন পাগলামো করছেন,
…………
এতো পাগলামো করার মানে কি?
…..
শুনুন আমি ক্লিয়ার করে বলছি,
….
আপনি যদি মনে করেন,
যে আমাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হলেই সবকিছু আগের মতো নরমাল হয়ে যাবে,
তাহলে ইউ আর অ্যাবসোলুটলি রং মিস্টার খান,
…….
আপনি আপনার অধিকারের জোড়ে আমার সাথে জোরাজুরি করতেই পারেন,
…..
তার মানে এই না যে
“বরফ গলে জল হয়ে যাবে ”
মিস্টার খান,
…..
আমি কখনওই আমার অপমান ভোলার পাত্রী নই,
….
আপনি যেটা আমার সাথে করেছেন সেটা কখনওই ভোলার নয় মিস্টার স্বামী,
……
আপনি বোধ হয় এখনো বুঝতে পারেননি,
….
যে আমি আপনা কে ঘৃণা করি,
আমার শরীর মনে আপনার জন্যে ঘৃণা ছাড়া আর কিছু অবশিষ্ট নেই,
….
সেটা আপনি যত তাড়াতাড়ি বুঝবেন ততোই আপনার মঙ্গল মিস্টার খান,
!
আপনার মতো চরিত্রহীন লোকের চরিত্র শত চেষ্টা করলে ও স্বামী নামের ট্যাগ লাগিয়ে লুকিয়ে রাখা যায় না বুঝলেন?

আসল চেহারা টা কোনো না কোনো ভাবে বেড়িয়ে পরে যেটা এখন সবার সামনে বেড়িয়েছে মিস্টার খান,
…..
খুব আশা নিয়ে তোমার কাছে বসে আছি আমাকে এভাবে ফিরিয়ে দিয়ো না সোনা,
!
খুব আশা নিয়ে আমি ও আপনার সাথে সংসার করে ছিলাম,
আর সেই সাজানো সংসার আপনি নিজের হাতে ভেঙে ফেলেছেন মিস্টার খান,
……
তাই আর এই ভাঙাচোরা সংসারে সংসার করার মন নেই আমার,
……
মন থাকবেই বা কিসে?
আমার মন টাকে আপনি খেলনা বানিয়ে খেলেছেন,

পরে প্রয়োজনের খাতিরে অন্য আরেকজনের সাথে সহবাস করেছেন,
তাকে বিয়ের তকমা লাগিয়ে ঘরে এনেছেন,
…..
তবু ও আপনার চাহিদা মিটলো না,
…..
সেই আপনি আবারো বেহায়াপনা করতে বেহায়ার মতো আমার জীবনে এসে ঢুকে পরেছেন,
…..
এখনো আপনার উচিত শিক্ষা হয় নি তাই না?
………
আপনার কি মনে হয়?
……
আপনি এতো কিছুর পরে ও আমার কাছে ফিরে আসতে চাইবেন,
আমাকে ছুঁইয়ে কলুষিত করতে চাইবেন,
আর আমি সেটা হাসি মুখে মেনে নিবো?
……..
আপনার মতো ব্যভিচারী কে প্রশ্রয় দিলে আমি ব্যভিচারিণী হয়ে যাবো,

তাই সে আশা ভুলে ও মনে রাখবেন না কেমন?
!
তুমি আমাকে একটু বোঝার চেষ্টা করো,
!
আপনি আমাকে বোঝার চেষ্টা করুন,
আমি আপনাকে চাই না,
আপনার ছায়া টাও মারাতে চাই না,
. . .
এতো জোড় তুমি পাও কোথা থেকে?
!
আমার ঈদের চাঁদের মতো বাচ্চা দুটির মুখ দেখে,
……
আফসোস সেটা আপনি দেখতে পারবেননা,
!
কেন?
!
কারন আমি আপনাকে ছেড়ে চলে যাবো,
…..
!
দুদিন বিপদে পরে আপনার সাথে হেসে খেলে রয়েছি,
তার মানে এই না যে,
…..
আমি আমার অতীত কে ভুলে গেছি,
!
ভুলতে পারবেনা তাই না?
!
পারবো যেদিন আপনি আমাদের জীবন থেকে দূরে চলে যাবেন,
!
আমার কথা শুনে উনি ওনার চোখেরজল মুছতে মুছতে রুমে চলে যায়,
!
তার কিছুক্ষণ পরে মেয়ে কে নিয়ে পাইচারি করতে করতে ওনার রুমে গিয়ে দেখি,
.।.।
উনি তাহাজ্জুদের সালাতে চোখেরজল ফেলছেন,
!
কিন্তু আমার কোনো অনুভূতি কাজ করছেন তার জন্যে,
….
বরং আমার মন বলছে,
…….
এই সুযোগ তুই বাচ্চাদের নিয়ে পালিয়ে যা তুই,
নাহলে ওনার মায়ায় বাধা পরে যাবি তুই,
তখন আর চাইলে ও ছেড়ে যেতে পারবেনা,
!
তাই আমি আমার মনের কথা শুনে, ওই রাতে বাচ্চাদের নিয়ে বাসা থেকে বেড়িয়ে যাই,
!
দেখতে দেখতে কেটে যায় পাঁচটি বছর,
!
এখন আমার মিশান, মিহাদ নার্সারি তে পরে,
প্রায় প্রতিদিন বাসায় ফিরে ওদের স্কুলের মালিকের কথা বলে,
!
লোকটির বৌ নাকি ওনার নামাজ পরার সুযোগ নিয়ে পালিয়েছে,
…..
আর উনি নাকি এখনো ওনার বৌ কে পাগলের মতো খুজে বেরাচ্ছে,
……
নিজের বৌ কে কতটা ভালোবাসলে কেউ এমন টা করতে পারে খোদা তায়ালাই জানে,
!
তবে ওনাকে আমি কখনো দেখিনি,
…..
কিন্তু যখন বাবুদের কাছে ওনার গল্প শুনি,
তখন আমার কথা মনে পরে যায় কারন
……
আমি ও ওনার নামাজের সুযোগ নিয়ে পালিয়ে গেছিলাম,
……
আর ওই দিন রাতেই আব্বুর সাথে বরিশালে চলে এসেছিলাম,
!
তারপর অনার্স কমপ্লিট করে নিজের গহনার ব্যবসা টা প্রসারিত করে তুলি,
……
মাস্টার্স কমপ্লিটের সময়,
আব্বুর শখে বেকারি খুলি যেখানে আমার রেসিপি অনুসারে পিওর উপকরণ ব্যবহার করে কেক বিস্কুট ও অন্যান্য খাবার তৈরি করা হয়,
……….
আমার বেকারির কেকের জন্যে ফেমাস,
……..
এখনো লেখাপড়া চলছে,
!
আর এখন আমি আমার সন্তানদের নিয়ে হসে খেলে কাটিয়ে দেই,
!
কিন্তু ইদানীং ওদের কিন্ডারগার্টেন স্কুলের মালিকের গল্প শুনে নিজের কথা মনে পরে খুবি হাসি পেয়ে যায় আমার,
!
মাম্মাম তুমি আমাদের ছেড়ে হাসো কেন?
!
এমনি পাপাই,
!
মাম্মাম তুমি আমাদের কালকে স্কুলে নিয়ে যাবে?
!
হ্যা মা অবশ্যই,
!
আমি নিয়ে যাবো না?
!
না রুহান আঙ্কেল তোমার সাথে যাবো না,
!
কেন?
!
তোমার ছেলে আমার দিকে কেমনকেমন করে তাকিয়ে থাকে দেখতে খারাপ লাগে,
!
মা আসলে ও তোমাকে পছন্দ করে,
!
তুমি ও আমার মাম্মাম কে পছন্দ করো?
!
সে কালে করতাম এ কালে ও করি শুধু তোমার মাম্মাম আমাকে তার আট জন ভাইয়ের পর নয় নম্বর ভাই বানিয়ে রাখল,
…..
নাহলে লাল বেনারসি তে আমি ওকে আমার বৌ হিসেবে দেখতে চেয়েছিলাম,
!
তোর ওপরে অন্যায় করা হয়ে গেছে তাই না?
!
তুই আমার সাথে অন্যায় করনি,
তুই আসলে ওর থেকে কষ্ট পাওয়ার পর কোনো পুরুষ কে বিশ্বাস করতে পারোনি,
…..
আর আমি আমার বাবা-মায়ের মুখ চেয়ে অন্য কাও কে নিজের করে নিলাম,
…..
তবে আমি তোকে নিজের চোখের সামনে রাখতে পেরে ভালো আছি জানিস,
!
হয় তো তোকে নিজের করে পাওয়া হয়নি,
……….তবু ও আমি জানি তুই আমার,
…….
তোর মনে আমার জন্যে একটু হলে ও ভরসা বিরাজ করে,
আর সেটা নিয়ে বেঁচে আছি আমি,
!
রিয়া শুনলে হার্ট অ্যাটাক করবে,
!
আমি সবি জানি তাই তো ও বাড়ি ফিরলে বলি,
!
কি গো আমার সতীন কেমন আছে?
সে একটু ও ভালোবেসে তোমায়?
!
আর উওরে ও বলে,
কি গো চুপ করে আছো কেন?
তুমি বলবে না আমি বলবো?
!
নাহহ আমি বলছি,
ও আমাকে ভালোবাসলে আমি তো ওকেই নিয়ে পরে থাকতাম তোমাকে বিয়ে করতাম নাকি হুমম?
পেয়ার মোহাব্বত সব ওকেই করতাম,
!
শয়তান কত গুলি,
হা হা হা,
!
হা হা হা,
!
মাম্মাম তোমরা কি নিয়ে হাসাহাসি করছ?
!
কিছুনা বাবা,
!
পরেরদিন আমি ওদের স্কুলে নিয়ে যাই,
………..
ওরা ওদের ক্লাসে যেতেই সেই গন্ধ টা আমার নাকে ভেসে আসে,
…….
তাহলে কি উনি এখানে আছেন?
মন টা বড্ড অস্থির হয়ে যাচ্ছে,
কি যে করি কিছু ভেবে পাচ্ছিনা আমি?
!
তখনি খেয়াল করে দেখি,
……..
পাশের সেই ফুলেফলে ভরে থাকা বাগানবাড়ি থেকে একটা বি.এম.ডাব্লিউ বেড়িয়ে টাউনের দিকে যাচ্ছে,
……..
তখন পিয়ন এসে বলে,
……..
আপা ওটা কিন্ডারগার্ডেনের মালিকের বাসা,
!
তাই?
!
জ্বি আপা,
!
তার বাসায় কে কে থাকে?
!
স্যাররর একটাই থাকেন গোটা দশেক কাজের লোক নিয়ে,
বৌ বাচ্চা নেই আসলে নেই বললে ভুল হবে স্যরর কে ছেড়ে চলে গেছেন,
……..
স্যরর সারাদিন বৌ বাচ্চার ছবি দেখে দেয়,
জানিনা স্যরর কি করেছিল যে ওপরওয়ালা ওনাকে এভাবে শাস্তি দিচ্ছেন,
তবে মানুষ টা অনেক ভালো,
…..
গত চার বছর থেকে আমি স্যরের সাথে থাকছি কখনো ম্যাডামের ছবি দেখিনি,
…..
তবে স্যররর শুধু ম্যাডামের গল্প করেন,
কথা বোঝা যায় ওনার কোনো পাপাের শাস্তি দিতে ম্যাডাম ওনাকে ছেড়ে চলে গেছেন,
……
তবু ও সাহেব ওনা কে চোখে হাড়ায় কখনো স্যররর অন্যে মেয়ে কে নিয়ে আলোচনা করেননা বাসায় নিয়ে আসেননা,
……..
স্যরেররর সাথে সব জায়গায় আসা যাওয়া করি আমি কাজের প্রয়োজন ছাড়া একটা ও বেশি কথা বলে না,
……….
তবে ম্যামের চলে যাওয়টা উনি মেনে নিতে পারেননি,
……..
তাই ম্যামের চলে যাওয়ার পর উনি মানসিকভাবে আঘাত প্রাপ্ত হয়,
……
ওনার সাইকোলজিক্যাল প্রবলেম আছে,
মাঝেমধ্যে রাতে হঠাৎ করে চিৎকার দিয়ে দিয়ে কান্নাকাটি করেন,
……
রাগ উঠলি নিজেই নিজেকে আঘাত করে বসেন,
…….
গত সপ্তাহে ব্লেড দিয়ে নিজেই নিজের হাত কেটে বৌয়ের নাম লিখেছেন,
!
বৌ বাচ্চা কে ফিরে পাওয়ার জন্যে জন্যে এপর্যন্ত পাঁচ বার হজ করেছেন,
ইসলামী বিধান মেনে জীবন যাপন করছেন,
……
তবু ও আল্লাহ ওনার ইচ্ছে পুরোন করে না,
!
স্যারর কে দেখলে আমারি চোখে জল চলে আসে আপনাকে আর কি বলবো আফা,
!
পিয়নের সাথে গল্প করতে পরতে ছুটির ঘন্টা বেজে যায়,
তাই আমি আমার টুনটুনি পাখিদের নিয়ে বাসায় চলে যাই,
!
রাতে যখন ওদের আদর করে ঘুম পরাচ্ছিলাম,
…….
তখন মেয়ে আমার গালে চুমু খেয়ে বলে,
…..
মাম্মাম সোমবার স্কুলের মালিক আঙ্কেলের বার্থডে,
……
তাই তুমি আমাদের একটা কেকে বানিয়ে দিবে?
যেটা আঙ্কল তার বার্থডে তে কাটবে?
!
আচ্ছা মা ঠিক আছে,

চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here