স্বামীর ভালোবাসা part : 22

0
725

স্বামীর ভালোবাসা part : 22

লেখিকা সুরিয়া মিম

!
আপনার ওই নোংরা হাত দিয়ে আমার বেবি কে ছোঁবেন না আন্ডারস্ট্যান্ড অর ইউওর বেটার আন্ডারস্ট্যান্ড,
!
বুঝতে পেরেছি,
!
তাহলে আপনি এখন আসতে পারেন,
কারন আপনার চেহারা দেখার ইচ্ছে আমার বা আমার বেবিদের কারো নেই বুঝলেন মিস্টার খান,
!
হুমমম,
!
তাহলে দরজা খোলা আছে আপনি এখন আসতে পারেন,
!
চলে যাবো বলছ?
!
নাতো কি?
……………..এখানে শং সেজে দাঁড়িয়ে থাকবেন?
!
আচ্ছা তাহলে আমি যাচ্ছি,
!
শুনুন,
!
হ্যা বলো?
!
আমাকে আমার বাসায় দিয়ে আসবেন কবে?
!
যতদিন না আরিয়ান কে আইনের আয়তায় আনা হচ্ছে ততদিন তোমাকে এখানে থাকতে হবে,
!
যতসব বিরক্তিকর,
আপনি এখন আসতে পারেন,
………
তারপর উনি ওখান থেকে চলে যায়,
……..
আর আমি আমার পরাণের পরাণ দুটো কে আদর করে দুধ খাইয়ে ঘুম পারিয়ে দেই,
…….
তার কিছুক্ষণ পরে হঠাৎ করে আমার পানির পিপাসা পেয়ে যায়,
…….
তাই আমি পানির জাগ নিয়ে দরজা খুলতে যাই,
………….দরজা খোলার জন্যে কয়েকবার টানাটানি করতেই দেখি,
……
বেটা শয়তান বাহিরে থেকে দরজা টা লাগিয়ে গেছে,
……..
ইসসসসস,
এখন আমি পানি খাবো কি করে?
….
মন চাইছে শয়তান টাকে ধরে ইচ্ছে মতো জুতো পেটা করি,
……………..
তখনি খট করে দরজা খোলার শব্দ হয়,
………সাথে সাথে পেছন ফিরে দেখি……..
…………………
উনি এক গ্লাস পানি নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন…………
!
কি হলো আপনি এখানে?
!
তোমার জন্যে পানি নিয়ে এসেছি…………………………
শুধু পানি?
!
মানে?
!
পানি তে বিষ মিশিয়ে নিয়ে আসেননি আমাকে খাইয়ে আমি ও আমার বাচ্চা দুটো কে মারতে?
!
আমি কেন এমন করবো?
!
যে মানুষ ব্যভিচার করতে পারে,
সে মানুষ খুন ও করতে পারে মিস্টার খান,
!
তখনি খেয়াল করে দেখি,
ওনার চোখ দুটো ছলছল করছে………… …………
!
কিন্তু তাতে আমার কি?
!
উনি যেটা আমার সাথে করেছেন তার থেকে জঘন্য,
আর কিছু হতে পারে না,
!
কি হলে পানি টা খাও?
খাবে না?
!
নাহহহহ,
দুধের শিশু দুটো কে ফেলে আমি এখনি পড়োপাড়ে যেতে পারবোনা মিস্টার খান,
…………..তাই আপনি এটা নিয়ে জান….
!
তারপর উনি এখান থেকে চোখ মুছতে মুছতে চলে যায়……
……
!
তুমি কেন আমাকে এভাবে পরীক্ষা করছ আল্লাহ?
……
আমি তো কারো ক্ষতি করিনি,
….
তাহলে তুমি কেন আমার সবকিছু কেড়ে নিয়ে আমাকে এভাবে পরীক্ষা করছ আল্লাহ?
!
ও আমাকে কত ভালোবাসতো এখন ও আমাকে এক মুহূর্ত সহ্য করতে পারেনা,
!
আমি জানি ও আমার কাছে থাকতে চাইবে না,
!
তাই যে কয়দিন ওরা আমার কাছে থাকবে আমি ওদের অনেক যত্ন করবো,
!
যাতে ওরা আমাকে একটু হলে ও ক্ষমা করতে পারে,
!
তবে যাই হোক এভাবে বাসায় বসে থাকা যাবেনা,
!
তাহলে আরিয়ানের সন্ধেহ হয়ে যাবে,
আর ও মিশকার সন্ধান পেয়ে যাবে,
!
তাই তো ও ওর সন্দেহ দূর করতে আমার অফিসে ও বাসায় খোজ নিতে লোক পাঠিয়ে ছিল,
!
সাহেব আপনি আমাদের ডেকেছেন?
!
হ্যা আমি অফিসে যাবো তোমরা ওদের দেখে রেখ প্লিজ,
!
আমরা বৌ রানী ও বাচ্চাদের আগলে রাখবো আপনি চিন্তা কইরেন না সাহেব,
!
ওকে তাহলে আমি আসি,
!
জ্বি সাহেব,
!
মারুফ কোনো খবর পেলে?
!
না স্যরর,
আমি নিজেই ইমান স্যারেরর বাসায় ও অফিসে গিয়ে খোজ নিয়েছি স্যরর,
!
আমি জানি মিশকা কখনওই ইমানের কাছে যাবে না,
…….
তাহলে ও গেল টা কোই?
!
মারুফ শোনো আমার শশুড় বাড়ির সবার ওপরে নজর রাখো,
আর হ্যা তোমার ম্যামের বন্ধুদের ওপর ও নজর রেখো কেমন?
!
জ্বি স্যরর,
!
কিরে বোন কি এতো ভাবছিস?
!
ভাবছি আমার ভাবি কতো চালাক,
সৈই তোকে নাকানিচোবানি দিয়ে পালিয়ে গেল,
!
আমি ও তো ভাবছি ও কি করে কি করল?
!
ভাব ভাব যতে পারো ভাব,
ছেমড়া সাইকো জানি কোথাকার?
আমি একটা মেয়ে হয়ে,
আরেক টা মেয়ে কে কি করে কষ্ট পেতে দেখতাম?
!
তাই আমি ইমান ভাইয়া কে হেলফ করে,
ওর জিনিস ওকে ফিরিয়ে দিয়েছি,
এখন,
তুই খোজ আর খোজ ওক্কে ব্রো?
!
টাকাপয়সার লোভে আমার ভালোবাসার মানুষ টাকে মেরে বাবার বয়সী লোকের সাথে বিয়ে দিয়েছিস আমার,
আমি কিছুই ভুলিনি ভাইয়া,
!
লোক টা আমাকে অনেক ভালোবাসে,
কিন্তু,
সে আমাকে ছুঁইয়ে দিলে আমার নিজেকে ঘৃণা করে,
!
অনেক হয়েছে আর না,
…….
তোর পাপের গড়া পূর্ণ্য হয়েছে ভাইয়া,
!
তুই কখনওই জানতে পারবি না মিশকা এখান থেকে গায়েব হলো কি করে?
!
কি ভাবছ আরিয়ানা?
!
ভাবছি আমার ভাবি তোমাকে “নাকে দড়ি দিয়ে ঘোরাচ্ছে ”
হা হা হা,
!
আমার সাথে মশকরা করো?
!
নাহহহহ জাস্ট বললাম আর কি?
!
মাম্মা তুমি কিছু খেয়ে নাও প্লিজ?
!
কি করে খাবো?
আমার মেয়ে টা বাচ্চা দুটোর দুদিন ধরে কোনো খোজ পাওয়া যাচ্ছেনা,
ওরা কোথায় আছে কি করছে?
আল্লাহ তায়ালা জানেন,
!
আমার বিশ্বাস আমার মেয়ে টা ঠিক আছে ওর কিছু হয়নি,
!
আমার তো মায়ের মন তাই না?
আমি নিজের মন কে কি করে বোঝাবো হুমম,
…………
দেখো আমাদের কিছু চাইনা শুধু আমার মেয়ে আর নাতিনাতনি দুটো কে ফেরত চাই,
!
তুমি কান্নাকাটি করোনা মাম্মা মিশকা ঠিক আছে ও নিশ্চই আমাদের কাছে ফিরে আসবে,
!
জানিনা আম্মু আব্বুর কি অবস্থা হচ্ছে?
খুব টেনশন হচ্ছে আমার,
!
আমি কি আসতে পারি?
!
হ্যা আসুন,
!
এই নাও ডিনার করে নাও?
আমি তোমার জন্যে লাউ শাকের ভর্তা, লাউশাকের ঝোল, লাউশাকের ভাজি রান্না করিয়েছি,
!
তো?
!
তুমি এ গুলো খাবে তাহলে তোমার ও বাবুদের শরীর ভালো থাকবে হুমম,
!
আমি খাবো না কি করবেন আপনি?
!
আমি জানি বেবি হওয়ার পর থেকে তুমি লাউ না মানে লাউশাক খাও,
!
তো তাতে আপনার কি?
!
কিছুনা তোমার শরীর ভালো থাকবে ভেবে,
!
শুনুন আমার চিন্তা করা ছেড়ে,
…..
নিজে গিয়ে শাকসবজির দোকান খুলে বসুন আপনার কাজে দিবে কেমন?
!
বিজনেসম্যান থেকে শাকসবজি ওয়ালা নট ব্যাড,
তবে আমি শাকসবজির দোকান দিবো,
!
যদি তুমি আমার রেগুলার কাস্টমার হও,
!
অসভ্য বেটা তোর কাস্টমার হওয়া তো দূরের কথা,
তোর মুখ টাও দেখার সখ নেই আমার,
যা ভাগ এখান থেকে,
!
তুমি আমার সাথে ভালো করে,
!
পারিনা কথা বলতে,
সো প্লিজ এখনি এখান থেকে বেড়িয়ে জান মিস্টার খান,
!
তোমার সাথে কথা ছিল?
!
ইউ নো হোয়াট?
ইউ আর জাস্ট অসহ্য,
জান এখান থেকে বেড়িয়ে যান,
!
আমার কথা শেষ হতে না হতেই উনি হনহন করতে করতে বেড়িয়ে যায়,
চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here