স্বামীর ভালোবাসা part : 20

0
1090

স্বামীর ভালোবাসা part : 20

লেখিকা সুরিয়া মিম

!
সময় থাকতে তো তোমাদের শাসন করিনি,
তাই আজ এদিন দেখতে হচ্ছে আমার,
!
কি হলো সাহেব চুপ করে বসে আছেন কেন?
বৌ রানী কি বলেছে আপনাকে?
!
বলেছে ও আমার কাছে আর কখনওই ফিরে আসবেনা,
আমি জানিনা আমি এখন এখানে থাকবো কি করে?
দমবন্ধ হয়ে আসছে আমার,
!
যাকে আমি আমার শুভাকাঙ্ক্ষী ভেবেছি,
সেই আমার ঘরের শত্রু বিভীষণ,
!
জানিনা আমি আরিয়ানের কি ক্ষতি করেছি?
যে ও আমার সাজানো সংসার টা এভাবে ভেঙে ফেললো?
!
সাহেব ছোটো মুখে বড় কথা,
আপনি যদি কিছু মনে না করেন আমরা একটা কথা কই?
!
হ্যা বলো ময়নাপাখি,
!
সাহেব ওই আরিয়ান সাথের নজর না মোটে ও ভালো না,
উনি যখনি বাসায় আসতো চোরের মতো বৌ রানী কে এমন ভাবে ঘুরে ঘুরে দেখত,
যেন উনি বৌ রানী কে কাছে পেলে খেয়ে ফেলবে,
!
ময়নাপাখির কথা শুনে ইমানের নয় মাস আগের কথা মনে পরে যায়,
!
যখন আরিয়ান টাকার বিনিময় মিশকার ডিল করতে চেয়েছিল ,
মিশকাকে ভালোবাসার কথা ওকে বলেছিল ,
!
কি হলো সাহেব?
!
তাহলে আরিয়ান এতকিছু মিশকাকে পাওয়ার জন্যে করেছিল?
!
আর এখন আমরা আলাদা আছি বলে ও এর সুযোগ নিয়ে মিশকার জন্যে বিয়ের সম্বন্ধ নিয়ে যাবে?
!
হতে পারে সাহেব,
!
না হবে না আমি এমন টা হতেই দিবো না,
আমার মিশকা ওকে পছন্দ করে না,
আমরা মিশকা কখনো রাজি হবে না,
আর আমি এটা ভালো করে জানি,
!
কি ভাবছ বড় ভাইয়া?
!
আমাদের হাসি খুশি বোন টা কতো শান্ত হয়ে গেল তাই না মিষ্টি?
!
আমি বলি কি আমরা ওর আবারো ওর বিয়ে দিতে পারিনা ভাইয়া?
!
দিতে পারি তবে তুই ওর চোখ দুটো দেখেছিস?
!
পুরুষ মানুষের ওপর থেকে বিশ্বাস উঠে গেছে ওর,
আমরা ওর ভাইয়েরা ও আমাদের থেকে ও দূরত্ব বজায় রেখে চলতে চায়,
কিভাবে বিয়ে দিবো ওর?
আর আমি চাই না ও আবারো বিয়ে নামক সম্পর্কে জড়িয়ে আবারো কষ্ট পাক,
!
আমি আমার বোন টাকে আর কষ্টে দেখতে পারবোনা মিষ্টি,
!
আমি ও চাই না আমাদের বোন টা আর কষ্ট পাক,
!
আমরা ও চাইনা বড় ভাইয়া ও মিষ্টি আপু,
!
আমরা আটজন ভাই মিলে কি পারবোনা আমাদের বোন টাকে সবসময় সুখেস্বচ্ছন্দে রাখতে?
আমাদের এক এক ভাইয়ে কম কি আছে?
যে সারাজীবন আমাদের ছোটো কে
সুখেস্বচ্ছন্দে রাখতে পারবোনা?
!
মেজো ভাইয়া ঠিক বলেছে মিষ্টি আপু,
তাই প্লিজ ছোটোর সামনে তোরা বিয়ে বিয়ে করবি না কেমন?
!
কিন্তু?
!
কি?
!
কালকে তো আরিয়ান ওর ফ্যামিলির সাথে বিয়ে সম্বন্ধ নিয়ে আসবে তখন?
!
ছোটো যে সিদ্ধান্ত নিবে সেটাই হবে মিয়াদ,
!
আমি জাস্ট ছোটো কে এখন হাসিখুশী দেখতে চাই বড় ভাইয়া,
!
শুধু তুই না মিয়াদ,
আমরা ও ওকে অলওয়েজ হাসিখুশি দেখতে চাই ভাই,
!
কি হলো তোমরা?
আমাকে ছেড়ে গোলবৈঠক করছ কেন ভাইয়া?
!
কিছুনা পাখি,
মামারা কি করে?
!
খাইয়ে দিয়েছি ঘুমিয়ে পরেছে,
!
কি হলো বাবা একা একা হাসিস কেন?
!
যাকে এতদিন আমি আমার করে পেতে চেয়েছি,
কালকে আমি তাকে সারাজীবনের জন্যে আমার করে পাবো আব্বু আমি অনেক খুশি,
!
মিশকা কে খুব ভালোবাসো তাই না?
!
হ্যা আব্বু,
আমি ওকে অনেক ভালোবাসি আব্বু,
আমি ওর জন্যে সবকিছু করতে পারি,
মানুষ মারতে পারি,
!
ভাইয়া কি যে হলো তোর?
এতো মেয়ে থাকতে রেডিমেড বাচ্চার মা পছন্দ হলো তোর?
!
মুখ সামলে ও সম্মান দিয়ে কথা বলো আরিয়ানা ও তোমার ভাবি,
আমার হবু বৌ,
…..
ওর সম্পর্কে কেউ উল্টোপাল্টা বললে সুই দিয়ে মুখ সেলাই করে দিবো তার,
…….
যা পারো কর গিয়ে মানা করছে কে?
সাইকো জানি কোথাকার,
তুই তো বৌ বৌ করে পাগল হয়ে যাচ্ছিস সে যদি বিয়ে তে মত না দেয় তখন?
!
কেনো মত দিবে না?
কিসের অভাব আছে আমার ,
আমি ওকে অনেক ভালোবাসি ও আমাকে না করবে না দেখেনিস তোরা,
!
পরেরদিন সকালে আরিয়ান ওর ফ্যামিলি সহ ফুলফল, মন্ডামিঠাই নিয়ে মিশকার বাসায় হাজির হয়,
!
দুই ফ্যামিলির মধ্যে মতবিনিময় হওয়ার পরে আমাকে ডাকা হয়,
……
আর
আমি স্পষ্ট ভাবে না করে দেই,
!
তখন আরিয়ান আমাকে বলে,
!
দেখ মিশকা আমি ইমান নই তোমাকে তোমার বাবুদের আমি অনেক ভালোবাসি বিয়ের পরো অনেক ভালোবাসবো,
……
কখনো তোমাকে চিট করবোনা বিশ্বাস করো আমি তোমাকে বাবুদের কে অনেক অনেক ভালোবাস বো,
!
এই সোজা কথা আপনার কানে যায় না তাই না?
!
বললাম তো আমি আপনাকে বিয়ে করবো না,
আপনি কেন কাও কে বিয়ে করবোনা,
!
পাপা তোমার কি আমাকে বোঝা বলে মনে হয়?
তাহলে বলে দাও প্লিজ,
আমি আমার বাচ্চাদের এখান থেকে নিয়ে অনেক দূরে চলে যাবো পাপা,
!
এসব তুই কি বলছিস মা?
!
আমরা কখনো তোকে বোঝা মনে করিনি মা,
তুই আমার মেয়ে আমরা ওনাদের কে বিয়ের জন্যে না বলেছি শুধু তোর মতামতের অপেক্ষায় ছিলাম রে মা,
!
মিশকা তুমি রাজি হয়ে যাও আমি,
!
কানে কালা গিয়ে ডক্টর দেখান,
বললাম তো আমি আপনাকে বিয়ে করতে ইন্টারেস্টেড নই,
!
কোন কিসের খামতি আছে আমার মধ্যে বলো?
কি কম আছে আমার মধ্যে বলো?
!
আসলে আপনারা একি গোয়ালের গুরু,
…….
পার্থক্য হলো,
একজন জাবর কেটে ঘাস খায়,
……
আর একজন খাওয়ার পরে জাবর কাটে মিস্টার চৌধুরি,
!
মানে,
!
ইটস সিম্পল,
আপনি কি ভাবেন আমি কিছু জানিনা?
আপনার ইশা বেবি আপনার সকল গোপন তথ্য ফাস করে দিয়েছে মিস্টার ডারলিং,
……
উফফফ,
সরি এটা তো ইশা আপনাকে ডাকে তাই না?
মিস্টার চৌধুরি?
!
কি হলো স্ট্যাচু হয়ে দাঁড়িয়ে আছেন কেন?
কিছু বলুন?
কি যেন বলেন?
……..
ও হ্যা,
আমি ইমান না আমি ব্লা ব্লা ব্লা……
!
একচুয়ালি আপনি ব্লা ব্লা ব্লার থেকে ও খারাপ আর আপনারা একি ঘাটে জল খান,
কিন্তু খাওয়ার স্টাইল টা আলাদা আর কি?
তাই তো?
!
আমি সবকিছু তোমার জন্যে করেছি,
শুধু মাএ তোমার জন্য,
!
ওওওও হ্যালো
আপনি যাই করে থাকুন সেটা আমার দেখার বিষয় না ওক্কে,
……
অ্যান্ড অনেস্টলি আপনি বা ইমান কেউ আমার জন্যে ম্যাটার করে না মিস্টার চৌধুরি,
!
কারন আপনারা উভয়ক্ষেত্রে একইধরনের একইরকম মিস্টার চৌধুরি,
!
একবার বিয়ে করে ঠকেছি আর ঠকতে চাই না মিস্টার চৌধুরি,

তার ওপরে আপনি হলেন নরপিশাচ আপনার ওপরে ভরসা নেই আর ভয়সা কখনো আসবেনা,
ভালোবাসা তো দূরের কথা,
!
আপনি ইমান দুজনি আমাকে খেলার পুতুল মনে করে খেলতে চান,
সেটা কখনওই হবে না মিস্টার চৌধুরি,
!
যতই আপনারা আমার কাছে মহান সাজার চেষ্টা করুণ না কেন?
আপনারা দুজন আমার কাছে সমান দোষে দোষী,
দুজনি আমার অপরাধী,
!
আমি ইশা কে মেরে দিবো ওটা ঠিক করেনি ও জানেনা আমি কতটা জঘন্য,
…..
আর তুমি আমাকে বিয়ে না করলে আমি তোমাকে তুলে নিয়ে যাবো,
ভালোবাসি খুব বেশি ভালোবাসি ওই ইমানের থেকে ও অনেক ভালোবাসি,
!
আরিয়ানের কথা শুনে আমার ভাইয়েরা ওকে আমাদের বাসা থেকে ঘাড় ধরে বেড় করে দেয়,
!
!
!
চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here