স্বামির অধিকার-২ 3rd part

0
615

স্বামির অধিকার-২ 3rd part
লেখা/রুবেল(ছদ্দবেশী হিংসুটে ছেলে)



রান্না শেষ, অামার অার রিমুর খাবার রেডি করে রিমু কে ডাকলাম,

রিমু চলো এসো সব রেডি(অামি)
হুম অাসলাম, খাবার খাচ্ছি বলে ভাববেন না যে অাপনাক স্বামি মানছি(রিমু)
অাচ্ছা ঠিক অাছে মানতে হবে না খাবারটি তো খাও(অামি)
হুম নেন অাপনি ও শুরু করেন(রিমু)
!
দু জন এক সাথে খাবার খেলাম, কি যে ভালো লাগছে তা বলে বুজাতে পারবো না
!
রাত ১০ টা….

রিমু শুয়ে অাছে, অামি বসে টিভি দেখতেছি,
রিমু জেগে অাছে,
!
বলছি কি তুমি কি বাবার বাড়ি যাবে(অামি)
হ্যা যাবো তবে অার অাসবো না (রিমু)
কেন অাসবে না (অামি)
কারন অাপনি অামার কেউ না তাই অার অাসবো না, (রিমু)
তুমি অামার বউ সবাই জানে (অামি,)
১টা কাগজে স্বাক্ষর দিয়ে তো বউ হইছি তাই না অাবার ১ টা স্বাক্ষর দিয়ে ডিফোস দিয়ে দিবো (রিমু)
!
রিমু মুখে কথাটা শুনে বুকের ভিতর মোচর দিয়ে উঠলো,
!
অাচ্ছা রিমু অামি খুব খারাপ তাই না (অামি)
হ্যা অনেক খারাপ (রিমু)

অাচ্ছা ঠিক অাছে অামি অার কখনো কোন কিছু নিয়ে তোমার কাছে জোর করবো না, (অামি)
!

অাচ্ছা অনেক রাত হইছে এবার ঘুমাই.
মাঝ খানে ১ টা কোলবালিশ দিয়ে রিমুর পাশে শুয়ে পড়লাম।
বাহ এত ভদ্র হলেন কবে মাঝখানে বালিস দিচ্ছেন? (রিমু)

অামি মনে হয় সত্যি তোমার যোগ্য না রিমু
তোমাকে এ ভাবে বিয়ে করাটা অামার ঠিক হয় নী
অাচ্ছা ঘুমাও এবার(অামি)

!
রিমু কিছু না বলে চুপ চাপ ঘুমিয়ে গেলো।

সকাল ৭টা……

এই যে শুনছেন (রিমু)
হুম (অামি)
এই নিন চা (রিমু)
না থাক অামি বানিয়ে খাবনী (অামি)
হা হা হা, অাজকে লবন দেই নাই চিনি দিছি ( রিমু)
ঢং বাদ দিয়ে ধরেন তো (রিমু)
!
বিছানায় বসে রিমুর হাত থেকে কাপটা নিলাম,।সত্যি চা টা অাজ অনেক ভালো হইছে,

অাচ্ছা তুমি চা বানালে কেন(রিমু)
অাপনার বাড়িতে খাচ্ছি থাকছি তো , তাই কাজ করে খাচ্ছি (রিমু)
তুমি কি এটা কে নিজের বাড়ি মনে করতে পারো না (অামি)
না অামি এ বাড়িতে অাশ্রীতা ওকে (রিমু)

নাস্তা রেডি ইচ্ছা হলে খান না হলে নাই (রিমু)
হুম খাবো যদি তুমি ও খাও(অামি)
অামি খাইছি (রিমু)
সত্যি(অামি)
হুম(রিমু)
দেখি হাতটা (অামি)
বলে রিমুর হাতটা নাকের কাছে নিয়ে ঘ্রান নিলাম
হ্যা রিমু সত্যি খাইছে

!
হুম দাও অামি ও খাবো (অামি)

স্বামি কে না খাইয়ে কোন স্ত্রী মুখে খাবার দেয় না,
রিমু তো অামাকে স্বামি মানে না তাই হয় তো খাইছে,
এতে অামার মন খারাপ না, কারন রিমু যে খাইছে এতে অামি অনেক খুশি,
নাস্তা খেয়ে অাবার কাজের উদ্দেশে বেরিয়ে পড়লাম,

একি অাবার অাসলেন যে ( রিমু)
না কিছু না এমনি(অামি)
ওহ (রিমু)
বলছি কি তোমার কিছু লাগবে(অামি)
না (রিমু)
অাচ্ছা বাই (অামি)

!
মানুষটা এক পরিবতন হলো কেমনে বুজি না,
কি যানি হয়তো অামার মন পাবার জন্য এত ভন্ডামি(রিমু)

!
দুপুর ২টা….
বাসায় অাসলাম
!
রিমু (অামি)
চিৎ কার করছেন কেন(রিমু)
কই (অামি)
অাজ এত তাড়া তাড়ি যে (রিমু)
এমনিতে, বলছি কি রান্না করছো (অামি)

হ্যা করছি (রিমু)
তুমি খাইছো (অামি)
তো কি? অাপনার জন্য ওয়েট করবো? অামি খাইছি (রিমু)

!
সকালের মত রিমুর হাতটা টেনে নিয়ে অাবারো ঘ্রান নিলাম,
!

রাগ অভিমান অার কিছুটা খুনটুসির মধ্যে দিয়ে কেটে গেলো অামাদের কিছু দিন,

স্বামির অধিকার নিয়ে কখনো কোন বেপারে জোর করি নি.
কিন্তু এ ভাবে অার কত দিন, না এভাবে অার না
রিমু কে মুক্তি দিবো,
!
রাত ১১ টা পচা মানুষটা এখনো অাসছে না কেন বুজি না,
একা ভালো লাগছে না,
দুর ছাই অাসলে অাসবে না অাসলে নাই,
অামি ঘুমাই (রিমু)
রাত ১২ টা রিমুর ঘুম অাসছে না মানুষটার জন্য কেন যেন মনটা অানচান করছে,
এ পাশ ও পাশ করে রিমু অাজ না খেয়ে ঘুমিয়ে পড়লো।

সকাল ৭ টা রিমু ঘুম থেকে উঠে দেখে ও পাশে নেই,
দরজা খুলে দেখে উনি বারান্দায়

দরজা তো খোলা ছিলো(রিমু)

আমি/হ্যা খুলা ছিলো আমার ভালো লাগে নাই তাই
রুমে যাই নাই।
রিমু/আপনি কাল রাতে ও নেশা করে আসছিলেন তাই
না?
আমি/হ্যা আগে নেশা করতাম সখে এখন করি
কষ্টে।
রিমু/হা হা হা আপনার আবার কিসের কষ্ট?
আমি/কিছু কষ্ট আছে যে গুলো দেখা যায় না।কথা
না বলে যাও রান্না করো।আমি গোসল করে
আসতেছি।
রিমু/রান্না না করলে কি গায়ে হাত তুলবেন?।
আমি/আপনি খাবেন না?
রিমু/ না খাবো না।
আমি/তুমি ভালো করে যানো এক কথা দু বার আমি
বলি না ।গোসল করে এসে যেন খাবার পাই
রিমু/আপনি কোন অধিকারে আমার সাথে এভাবে
জোর খাটান বলেন তো?
আমি/স্বামীর অধিকার
রিমু/কত বার বলবো আমি আপনাক স্বামি মানি না আর
মানবো ও না কোন দিন।
রিমু কথা গুলো চিৎকার করে বলতেছিলো।
রাগ আর কনট্রল করতে পারলাম না।রিমুর চুল গুলো
ধরে আবারো তার গায়ে হাত তুললাম।
রিমু/হ্যা আপনি আমাক মারেন,মারতে মারতে মেরে
ফেলেন তাও আমি আপনাক স্বামী মানি না আর
মানবো না।
মারতে চাই নাই মেয়েটাকে তার পর ও মারতে
হলো
ধ্যাত বাসায় আর আসবো না।
মেয়েটা কে বিয়া করা আমার ঠিক হয়নি,
আমি যে স্বামী এ ও শুনতে পারে না।
ঘড় বাহির কোথাও শান্তি পাচ্ছি না আমি।
রিমু রে বা কি দোষ সব দোষ আমার।
আমার মত লমপট,বদমায়েশ,নেশা খোর কে রিমু
কেন পৃথিবীর কোন মেয়ে
স্বামী মানবে না।না এ ভাবে আর না ও যদি ওর বাবার
বাড়ি যেতে চায় তো ওকে বাধ্যা দিবো না।।

রাত ৯ টা,সারাদিন কিছু খাওয়া ও হলো,
মেয়েটাও না খেয়ে আছে ও যে জেদি ও রান্না
করে নাই,
হোটেল থেকে দু প্যাকেট খাবার নিয়ে বাসায়
গেলাম।
দরজা নক করতে রিমু এসে দরজা খুলে দিলো।।
খাবারের প্যাকেট দুটা বিছানায় রেখে আমি বার্থরুমে
গেলাম।।
ফ্রেশ হয়ে রুমে আসলাম।।

আমি/কি হলো শুধু ১ টা প্যাকেট খুলছো ?তুমি খাবা
না?
রিমু/না আমি খাবো না,আমার খুদা নেই,
আমি/দেখো আমি সারা দিন কিছু খাই নাই।তুমি না
খেলে কিন্তু আমি খাবো না।।
রিমু/শোনেন আপনার এ সব দরদ ভালোবাসা আমার
একদম ভালো লাগে না।আপনি খাইছেন কি খান নাই তা
কি আমি দেখতে গেছি।
আমি/শোনো আমি খারাপ,লমপট,নেশা খোর ঠিক
আছে,কিন্তু আমারো একটা মন আছে
তুমি আমাক স্বামী মানো না ঠিক আছে,আমি তো
কলমা পরে তোমাক বিয়ে করে আনছি।হ্যা আমি
বাজারে খাইতে পারতাম।
আমি যানি তুমি রান্না করো নাই।তুমি না খেয়ে থাকবা
আর আমি বাজারে খাবো এটা কি করে ভাবলে?
রিমু/ এই শুনু আপনার এসব আধিখেতা,দরদ,ভালোবাসার
বানি অফ করুন তো।।
রাগ আর কনট্রল করতে পারছি না।ইচ্ছা করছে গালে
গিয়ে দুটা বসে দেই।কিন্তু না,যে বুজতে চায় না
তাকো কোন ভাবে বুজানো যাবো ।
যতো ক্ষন না সে নিজে থেকে বুঝার চেষ্টা
করে।।

আমি/বিয়ের তো অনেক দিন এ হলো কখনো
দেখছো বাহির থেকে ফিরে রাতে বা দিনে বাসায়
এসে আমি না খেয়ে থাকছি?
হ্যা যে দিন হয়তো নেশা করে আসছি সে রাতে
বাসায় খাই নাই।তার মানে এ না যে হোটেল থেকে
খেয়ে আসছি।
রিমু/আপনি খাবেন কি না সেটা আপনার বেপার আমি
ঘুমাতে গেলাম।।
আমি/আচ্ছা ঠিক আছে যাও ।আর হ্যা তোমার খুব
প্রবলেম হলে তোমার বাবার বাড়ি যেতে
পারো।।
একি মানুষটা সত্যি না খেয়ে দেখি আমার পাশে এসে
ঘুমালো।আর আজকের কথা গুলো কেমন যানি
অন্যরকম লাগলো।।
হ্যা তাই তো উনি বাহির থেকে এসে আমাকে
আগে বলে খাইছো তুমি।মিথ্যা বলবা না এমন কি হাত
নাকের কাছে নিয়ে ঘ্রান দেখতো খাইছি কি না।
তা হলে সত্যি কি আমি ওনাকে বুঝতেছি না,আচ্ছা উনি
তো আমার কাছে একটু ভালো বাসা চায়।আমার
ভালোবাসয় কি উনি সত্যি ভালো হয়ে যাবে?।
না না আমি পারবো না ও রকম পশু চরিত্রের মানুষ কে
স্বামী মানতে।।
নেশা করে আসছে তাই হয়তো এ সব নীতি কথা
বলছে।নেশা করলে নাকি অনেক সমায় মানুষ নীতি
কথা বলে।
রিমু এ মনে মনে বলতেছিলো।রিমু ও ঘুমিয়ে
গেলো।
……চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here