My_Mafia_Boss_Husband Part: 13

0
323

My_Mafia_Boss_Husband Part: 13
Mafia_Boss_Season2

Writer:Tabassum Riana
,,,,,,,,,,,,,,,,,,১১.৩০এ ঘরে ফিরে এসেছে রোয়েন।রুমে ফিরে রুহীকে না পেয়ে ভ্রু কুঁচকালো রোয়েন।আশেপাশে তাকিয়ে রুহীকে খুঁজতে লাগলো রোয়েন।রুহী তো কোথা ও নেই।ড্রেসিংটেবিলের দিকে তাকিয়ে আয়না একটা কাগজ লাগানো দেখতে পেলো রোয়েন।আর টি টেবিলে কফি রাখা।আর তার নিচে একটি ছোট্ট কাগজ রাখা আছে।রোয়েন ড্রেসিংটেবিলের আয়না থেকে কাগজটি নিলো।”টি টেবিলের ওপর রাখা কফিটা খেয়ে নিন”।রোয়েন টিটেবিলের দিকে এগোলো।কফি মগের নিচ থেকে কাগজটা হাতে নিলো।”আমি জানি আমার চুমুক দেয়া ছাড়া খাবেন না।মিঃ লুচু মাফিয়া আমি চুমুক দিয়ে রেখেছি।কফিটা শেষ করে খাটের ওপর রাখা স্যুটটা পরে গুড বয়ের মতো উপরে চলে আসেন।রোয়েন মুচকি হেসে লিপস্টিক লাগানো জায়াগাটিতে চুমুক দিলো।মায়াবতীর স্পর্শ আছে এখানে।কফিটা শেষ করে খাটের দিকে পা বাড়ালো রোয়েন।সেখানে আরেকটি কাগজ।”মাই ডার্ক প্রিন্স চার্মিং কাম ফাস্ট”।রোয়েন সুটটা হাতে নিলো।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,রুহী রেলিং এর ওপর একা বসে আছে।ছাদের সাজের দিকে একবার চোখ বুলিয়ে নিলো রুহী।দরজায় কারোর ছায়া দেখে রুহী নেমে দাঁড়ালো। কেকের মোমবাতি গুলোকে জ্বালালো রুহী।
রোয়েন ছাদের ভিতর ঢুকতেই চোখ জোড়া যেন জুড়ে গেলো রোয়েনের।ছাদটাকে এতো সুন্দর করে সাজাবে রুহী তা ভাবনাতীত ছিলো।পুরো ছাদটা মোমবাতি দিয়ে সাজানো আছে।রেলিং এর ওপর লাইটিংবেলুন লাগানো।মাঝে সাদা কাভার বিছানো ছোট্টএকটা গোল টেবিল।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,রোয়েন সামনে এগুতেই হাতে কারোর ছোঁয়া পেলো।পাশে তাকাতেই রুহীর দিকে চোখ পড়লো রোয়েনের।চাঁদের স্নিগ্ধ আলোয় কি যে মায়াবী লাগছে ওর মায়াবতী লাগছে বলার মতোনা।রুহীকে সামনে এনে দাঁড় করালো রোয়েন।কালো লম্বা গাউনে প্রিন্সেস লাগছে মেয়েটাকে।রুহী মুচকি হেসে রোয়েনের কাছে এসে দাঁড়ালো। রোয়েনের কানের কাছে মুখ নিয়ে ফিসফিস করে বলল Happy Birthday. হাউ ডু ইউ নো?অবাক হয়ে প্রশ্ন করলো রোয়েন।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,আমার কতো তথ্য আপনার কাছে আছে।আর আপনার সম্বন্ধে এতোটুকু ও জানবোনা?মুচকি হেসে বলল রুহী।চলুন বলে রোয়েনের হাত ধরে কেকের দিকে এগোলো রুহী।রোয়েনের দিকে তাকালো রুহী।ফুঁ দিন বলে উঠলো রুহী।রোয়েন ফুঁ দিয়ে মোম গুলো নিভিয়ে দিলো।রুহী রোয়েনের হাতে ছুড়িটা ধরিয়ে দিলো।কেঁটে নিন।রুহীর যেহাতে ছুড়ি ছিলো রোয়েন সে হাতের ওপর হাত রেখে কেক কাঁটলো।রুহী রোয়েনের দিকে পলকহীন ভাবে তাকিয়ে আছে।লোকটাকে ওর চিন্তার থেকে ও বেশি হ্যান্ডসাম লাগছে।পুরাই ডার্কপ্রিন্স।কেক নিয়ে রুহীর দিকে ধরলো রোয়েন।খাও। বলে উঠলো রোয়েন।রুহী কেকটুকু খেয়ে নিলো।ওর চোখজোড়া ছলছল করছে।রুহীর গালে ঠোঁট রাখলো রোয়েন।রুহীর চোখের পানি গুলোকে শুষে নিলো রোয়েন।রুহী চোখ বুজে নিলো।রোয়েন রুহীর গালে ছোট করে চুমো খেয়ে সরে এলো।
ছোঁয়া না পেয়ে চোখ খুলে নিলো রুহী।রোয়েন রুহীর গালে আঙ্গুল রাখতে গেলে ওর হাত ধরে ফেলে রুহী।
রোয়েন ভ্রু কুঁচকে তাকায় রুহীর দিকে।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,চলো।দরজার দিকে এগোতে এগোতে বলতে থাকে রোয়েন।রুহী রোয়েনের হাত ধরে ফেলল।আরো কিছু আছে।বলে উঠে রুহী।রোয়েন পিছনে তাকায় রুহীর দিকে।রুহী দৌড়ে সিডিপ্লেয়ারের দিকে এগিয়ে যায়। রোয়েনের জন্য একটা গান সিলেক্ট করে রেখেছে ও।সিডি প্লেয়ারে সুইচ টিপ দিয়ে সামনে আগাতেই থেমে যায় রুহী।যে গান টা সিলেক্ট করেছিলো সেটা না বেজে তুমহে আপনা বানানেকা গান টা শুরু হয়ে গেছে।রোয়েন রুহীকে অবাক চোখে দেখছে।মেয়েটা ওর জন্য এতো কিছু করলো কেন?রোয়েন ভেবে পায়না।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,গান পাল্টানোর জন্য পিছু ফিরতেই রুহীর হাতে টান লাগে।কিছু বুঝে উঠার আগেই রোয়েন রুহীকে বুকে টেনে নেয়।রুহীর বুকে ধুকপুকানি শুরু হয়ে গেছে।কই যাচ্ছো? ভ্রু কুঁচকে জিজ্ঞেস করলো রোয়েন।আ আমি তো গানটা চেঞ্জ করতে যাচ্ছিলাম।আরেকটা গান সিলেক্ট করেছিলাম।রুহী একনাগাড়ে বলে দিলো।জন্মদিন আমার। সো আমি যে গান চাইবো সেই গানই হবে।এই গানেই আমি ড্যান্স করবো উইথ মাই সোলমেট মাই ব্ল্যাক প্রিন্সেস বলেই বাঁকা হেসে নাচতে শুরু করলো রোয়েন।রুহীকে দুলাচ্ছে নিজের সাথে।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,Tumhe Apna Banane Ka Junoon
Sar Pe Hai, Kab Se Hai
Mujhe Aadat Bana Lo Ik Buri
Kehna Ye Tumse Hai

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,Tumhe Apna Banane Ka Junoon
Sar Pe Hai, Kab Se Hai
Sar Pe Hai, Kab Se Hai

,,,,,,,,,,,,,,Jism Ke Samandar Mein
Ik Lehar Jo Thehari Hai
Usme Thodi Harqat Hone Do
Shayari Sunaati Inn Do Nasheeli Aankhon Ko
Mujhko Paas Aake Padhne Do
Ishq Ki Khwahishon Mein
Bheeg Lo Baarishon Mein
Aao Na…

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,রোয়েন রুহীর বেশ কাছে দাঁড়িয়ে আছে।রুহীর কোমড় খুব শক্ত করে জড়িয়ে নিয়েছে নিজের সাথে রোয়েন।একেঅপরের নিশ্বাস উপভোগ করছে ওরা।রোয়েনের হাত রুহীর কোমড় থেকে সরিয়ে রুহীর আঙ্গুলে হালকা করে ছোঁয়ালো।রুহীর ভিতর তোলপাড় শুরু হয়ে গেছে।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,রোয়েনের হাত রুহীর আঙ্গুল ছাড়িয়ে রুহীর কুনুই থেকে উঠে যেতে লাগলো।রুহীর নিশ্বাস দ্রুত উঠা নামা করছে।রোয়েনের নিশ্বাস গরম হচ্ছে।গানের মাঝেই কোলে তুলে নিলো রুহীকে।সিড়ির দিকে পা বাঁড়ালো রোয়েন।রুহী রোয়েনের গলা জড়িয়ে আছে।রুমে নিয়ে এলো রুহীকে রোয়েন।রুহী্কে খাটে শুইয়ে ওর ওপর আধশোয়া হলো রোয়েন।রুহীর হাতে আলতো করে হাত ছোঁয়ালো রোয়েন।রুহীর চোখ বুজে আসতে চায়।রুহীর ঠোঁট জোড়া কাঁপছে।রোয়েন রুহীর ঠোঁটে নিজের ডান হাতের বৃদ্ধা আঙ্গুলটাকে হালকা ছোঁয়ালো।রুহী রোয়েনের কোটটাকে খামচে ধরলো।রুহী রোয়েনের গলায় মুখ ডুবালো।রুহীর গলায় লিক করছে রোয়েন।রুহী রোয়েনেট কোটের হাতা খামচে ধরছে বারবার।রোয়েন রুহীর কাঁধে চুমো দিয়ে একটু সরে এলো।রুহী রোয়েনকে নিজের কাছে টানছে বারবার।রোয়েন রুহীর ঠোঁটে ঠোঁট ডুবিয়ে দিলো।রুহী রোয়েনের কোট টাকে টানাটানি করছে রোয়েন উঠে বসে কোটটাকে ছুড়ে মারলো।আবার ও রুহীর ঠোঁটে ঠোঁট চেপে ধরলো রোয়েন। রুহীর ঠোঁটের মিষ্টি স্বাদ পাগল করে দিচ্ছে রোয়েনকে।রুহীর ঠোঁটের স্বাদ নিতে ব্যাস্ত রোয়েন।রুহী রোয়েনের কালো শার্টের বোতাম গুলো একে একে খুলতে লাগলো।

,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,রোয়েনের ঠোঁটের স্পর্শগুলো রুহীকে রোয়েনের নেশায় মাতাল করে দিচ্ছে।নিজে ও সমান তালে চুমো খাচ্ছে রোয়েনকে।রোয়েনের শার্ট খুলো ফেলতে চাইলে উঠে বসে পড়লো রোয়েন।শরীরে শার্ট জড়াতে জড়াতে রুহীর দিকে তাকিয়ে আছে রোয়েন।রুহী চোখ বন্ধ করে রোয়েনের শার্টের কোনা চেপে ধরে আছে।শার্টের বোতাম গুলো লাগিয়ে রুহীর ঠোঁটে জোরে শব্দ করে চুমো খেলো রোয়েন।রুহী একটু তাকালো রোয়েনের দিকে।রোয়েনের কলার টেনে কাছে আনতে চাইছে রুহী।রোয়েন রুহীকে বুকে নিয়ে শুয়ে পড়লো।

চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here