জুয়াড়ি স্বামী পর্ব/ ৭

0
327

জুয়াড়ি স্বামী পর্ব/ ৭
লেখক/ ধ্রুব

😭😭😭😭😭😭😭😭

মা/ তাই বলে তোর চলে আসাটা একদম ঠিক হয়নি ধ্রুব

নীলার বাড়ি লোকেরা কি ভাববে

আমি মা”কে কি করে বোঝাই নীলা ওদের বাড়ি নয় অন্য বাড়ি আছে

মায়ের কথায় সাড়া না দিয়ে ঘরে দিয়ে শুয়ে রইলাম

চোখ বন্ধ করতে ভেসে উঠে নীলার চিৎকার আর সাগরের জোড়াজুড়ি

মনটা মানেনা কিন্তু কি করবো কি করার আছে টাকা ছাড়া আমি সাগরের সামনে দাঁড়াবো কি করে

অনেক রাত হয়ে গেছে মা ডাকছে খাওয়ার জন্য

আমি মাকে বলে দিলাম আমি খাবোনা খেতে ইচ্ছে করছেনা

যখন চোখ বন্ধ করি এমনি ভেসে উঠে নীলা আর সাগরের…….

এদিকে রাত ১২টা বাজতে সাগর নীলার কাছে যায়

নীলা বসে বসে ভাবছে এই বুঝি আমাকে ছিঁড়ে খাবে হিংস্র বাঘের মত

সাগর গিয়ে নীলার পাশে বসে বললো

সাগর/ শুয়ে যাও ঐ জুয়াড়ির কথা ভেবে রাত থেকে কি হবে

নীলা/ এই শুনুন আমার স্বামীকে নিয়ে একদম বাজে কথা বলবেন না

সে যেমন-ই হোক সে আমার স্বামী আমার শেষ আশ্রয়

আপনার যা ইচ্ছা তাই করুন আমার সাথে আমি একটুও বাঁধা দিবনা

সাগর খিল খিল করে হাঁসতে বলে

সাগর/ হুমমমমম করবো তো অনেককিছু করবো আমার পাওনাটা তো আমাকে শোঁধ করে নিতে হবে
সেটা যা কিছুতে হোক

নীলা/ তো শুরু করুন এখনও দেরি করছেন কেন এই আমি শুয়ে পড়লাম

সাগর/ এত তাড়া কিসের এখনও তো অনেক সময় আছে

সাগর/ নীলাকে স্পর্শ করে বলে

সাগর/ কিছু খেয়েছো

নীলা/ তা জেনে আপনার কি

সাগর/ অনেককিছু

আমার বাড়িতে এসে আমার বোনটা না খেয়ে রাত কাটাবে আর আমি খেয়ে শান্তিতে ঘুমাবো
তা কি করে হয়

সাগরের মুখে বোন শব্দটা শুনতে পেয়ে নীলার চোখ কপালে উঠে

আর ভাবে

লোকটা কি পাগল হয়ে গেলো
এসব কি বলছে মনে হয় মাথা ঠিক নেই খুশির ঠ্যালায় আবোল তাবোল বকে

সাগর/ এই চোখ দুটো বড় বড় করে কি ভাবছো

তবে আমি জানি তুমি কি ভাবছো

তুমি হয়তো ভাবছো নোংরামি করতে এনে এখন বোন ডাকছে কেন

দেখ বোন…. কিছুক্ষণ আগে তুমি আমাকে নিয়ে যেটা ভাবছো সেটা সত্যি নয়

আর এখন যেটা দেখছো সেটা সত্যি

তোমার সাথে নোংরামি করতে তোমাকে এখানে আনা হয়নি

নীলা/ তবে কেন আনলেন

সাগর/ সব জানতে পারবে
আগে খেয়ে নাও

পাখি এ পাখি কোথায় তুই খাবার নিয়ে আয়

পাখি ভিতরে আসলো খাবার নিয়ে

পাখি/ এই নিন সাহেব

সাগর খাবার নিয়ে নীলাকে খাইয়ে নীলাকে খাইয়ে দিতে যাবে

তখন-ই নীলা

নীলা/ না আমি খাবোনা আমার একদম ক্ষুধা নেই

সাগর নীলাকে একটা ধমক দিয়ে বলে

সাগর/ চুপ একদম চুপ পিচ্চি মেয়ের মত বসে থাকো

তুমি কি চাও তোমার জন্য আমরা সবাই না খেয়ে থাকি

নীলা একটু ভয়ে ভয়ে বলে

নীলা/ আপনারা কেন না খেয়ে থাকবেন

সাগর/ কারন আমরা ভাইবোন বলে

বোন না খেলে ভাই কি পারে খেতে

নীলা কিছু বলতে যাবে তখন-ই

সাগর/ উঁহু… আর কোন প্রশ্ন নয় এবার লক্ষী মেয়ের মত খেয়ে নাও

সাগর ভাত তুলে দিলো নীলার মুখে

ভাত আর চোখের জল দুটো পেটে যাচ্ছে নীলার…
আর মনে মনে ভাবছে
ভাবলাম কি আর হলো কি

সাগর/ এই তুই কি শুধু কাঁদবি নাকি আমাকেও খাইয়ে দিবি

এবার নীলাও ভাত তুলে দিলো সাগরের মুখে

খাওয়া দাওয়া শেষ করে

সাগর নীলার চোখের মুছে দিয়ে বলে

সাগর/ আর কান্নাকাটি নয়
এবার ঘুমিয়ে যাও

ভয় নেই নেই তোমার সাথে পাখিও থাকবে

আমি এবার তাহলে যাই অনেক রাত হলো

পাখি ওর দিকে খেয়াল রাখিস বলে নিজের ঘরে যাবে সাগর

তখন- ই
নীলা/ ভাইয়া তোমার ফোনটা একটু দিবে

সাগর/ কে জুয়াড়ির সাথে কথা বলবি

জুয়াড়ি বলাতে নীলা এখন সাগরকে কিছু বলছেনা

শুধু মাথাটা নাড়িয়ে সাড়া দিলো

নীলা/ হুমমমম খুব মনে পড়ছে মানুষটা কি খাইছে নাকি না খেয়ে শুয়ে রইলো

সাগর/ ফোন আছে কিন্তু এখন দেয়া যাবেনা

কারন…. ঐ বেটা আগে বুঝুক তারপর

বলে সাগর বের হয়ে গেলো

চলবে???

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here