গল্প : হবু বউ পাঠ : ০৫

0
596

গল্প : হবু বউ পাঠ : ০৫

লেখক : অর্দ্র ( MR)
অফিস থেকে বাসায় এসে ফ্রেশ হতে না হতেই আম্মুর ডাক ,,,
….মেহেদী দেখ তোর ফ্রেন্ড এসেছে ‌ । তারাতাড়ি নিচে আয় । (আম্মু)
আম্মুর কথা শুনে মনে মনে বললাম আমার ফ্রেন্ড তাও আবার আমার বাড়িতে । যাইহোক নিচে গিয়ে দেখা যাক কে আমার ফ্রেন্ড ।
নিচে এসে সোফার দিকে চোখ পড়তেই আমার চক্ষু চড়কগাছ ‌।
আমি আবারও আগেরবার এর মতো হতবাক । আরে আপনারা ভাবছেন কে এসেছে । আর বইলেন না ঐ যে মেয়েটা ঐঐ ঐ মেয়েটাই আসছে । কী রকম মেয়েরে বাবা চিনা নাই জানা নাই হুটহাট সবাই জায়গায় চলে আসে ।
আমার এইভাবে হা করে তাকিয়ে থাকা দেখে আম্মু বলল কী রে অবাক হবার কী আছে আর ঐ রকম গাধার মত দাঁড়িয়ে আছিস কেন বস । ( আম্মু বলল)
আমি কিছু না বলে বসলাম আর ঐ মেয়েটার দিকে তাকিয়ে দেখি মেয়েটা একরকমের হাসি দিচ্ছে শয়তানি টাইপ হাসি , তা দেখেও আমি কিছুই বললাম না ।
আমি বসার পরে আম্মু বলল তোরা বসে গল্প কর আমি একটু আসছি ।
আমি: আচ্ছা ঠিক আছে ।
এমনিতেই আমার প্রচন্ড রকম রাগ হচ্ছে যে মেয়েটাকে আমি চিনি না । তারপরও আমি সব কিছুই বুঝিয়ে বলেছি তারপরও এই রকম কাজ করে কী ভাবে । আমার চুপ করে বসে থাকা দেখে মেয়েটা বলল কী ব ‍্যাপার রেগে গেছেন মনে হয় ।
আমি : না আমি রাগব কেন ‌ আপনি কী রাগ করার মত কিছু করেছেন যে আমি রাগ করবো ।
মেয়েটা : না আমি জানি আপনার রাগ অনেক । আর আপনি যে এখন প্রচুর রেগে আছেন আমি বুঝতেই পারছি ।
আমি: তো যখন বুঝতেই পারছেন তাহলে আবার বলেন কেন । আর আপনি আমার বাসার ঠিকানা কোথায় পেলেন ‌ ।
মেয়েটা : আমি যেখানেই পেয়েছি আপনাকে বলবো কেন । আপনি কে ?
আমি : আমি কেউ না তারপরও আপনাকে বলতে হবে । আর আপনি ঠিকানা পেয়েছেন ঠিক আছে তো আবার বাসায় এসেছেন কেন ।
মেয়েটা : আসতে মন চেয়েছে তাই এসেছি । আর আপনাকে অনেক দিন দেখি নাই তাই চলে আসছি ।
আমি : ওরে আল্লাহ্ রে , আমাকে একটু ওপরে উঠায় নেও তাও মনে হয় আমি ভালো থাকবো ।
মেয়েটা : আরে কী বলেন এইসব । আর মাত্র কয়েক দিন পর আপনার বিয়ে আর এখন এগুলো কথা বলছেন কেন ।
আমি : তো আমি কী করবো বলেন ।
মেয়েটা: আপনাকে কিছুই করতে হবে না । যাইহোক আপনার বিয়েতে আমাকে দাওয়াত দিচ্ছেন তো নাকি।
আমি : আপনাকে দাওয়াত দিব আমার বিয়েতে কোনো প্রশ্নই উঠে না ।
আমার কথা শেষ না হতেই আব্বুর আগমন ।
আব্বু : কী হ ‍্যা কে কাকে দাওয়াত দিচ্ছে না শুনি ।
মেয়েটা : আঙ্কেল আসসালামুয়ালাইকুম । আপনি কেমন আছেন ।
আব্বু : আমি ভালো আছি মা তুমি কেমন আছো । আর তোমার বাসায় সবাই কেমন আছে ।
মেয়েটা : সবাই ভালো আছেন । আম্মু বলল আপনাদের সাথে দেখা করে যেতে আর আম্মু আপনাকে আর আন্টি কে একবার যেতে বলেছে । তাই আর কী ।
কথা শেষ না হতেই আমি শুরু করলাম ,,,
আমি : ও তাহলে আমার সাথে প্রথম দিন থেকেই তাহলে সবার অভিনয় চলছে ‌ বাহ্ খুব ভালো । ( আসলে একটু খারাপ লাগছে এটা ভেবে যে আব্বু আম্মু সবাই ঐ মেয়েটাকে চেনে আর সামনে প্রকাশ করেন না )
আর আব্বু বলছিলে না যে কাকে দাওয়াত দিব না সে হচ্ছে এই মেয়েটা ।
আব্বু : চুপ গাধা । যা ওপরে যা এইখানে আর বসে থাকতে হবে না । আর শোন কালকে সকালে তোর ফ্রেন্ডের সবাইকে দাওয়াত দিবি ।
আমি : আচ্ছা ।
আমি উঠে চলে আসার সময় একটা কথা মাথার মধ্যে কেমন যেন ঘুরপাক খাচ্ছে । আমি আর কিছু না ভেবে পেছনে ঘুরে মেয়েটাকে উদ্দেশ্যে করে বললাম এই যে আপনি কী ইয়াসমিন আক্তার রুবি।
আমার কথা শুনে ওর মুখ টা কেমন চুপসে গেল আর আব্বু তো মনে হয় পুরাই অবাক হয়ে গেছে কিছুই বলছে না । শুধুই তাকিয়ে আছে ।
কেউ কিছু বলছে না এর দুজনেই হতবাক ।
এইবার আমার একটু রাগ হলো আমি এবার জোরে বললাম ,,
কী হলো বলেন , কথা বলেন ।
আমার দিকে তাকিয়ে আব্বু বুঝতে পেরেছে যে আমার রাগ হচ্ছে । তাই আব্বু আর কিছুই বলল না । কারন আমি রাগলে কেউ কিছুই বলে না , আর তখন কেউ কিছু বল্লে আমার রাগ বেশি হয় আর পরিণতি খারাপ হয়।
এখনো কেউ কিছুই বলছে না আমি এবার বললাম ,
কী কিছু বলছেন না কেন, কিছু বলবেন না অন্য কিছু করতে হবে আমাকে ।
এবার মনেহয় মেয়েটা একটু ভয় পেয়েছে ,ভয় পেয়ে মেয়েটা ভাঙ্গা ভাঙ্গা গলায় কথা বলছে ,,,
মেয়েটা : আআআ আমি ,,,,,,

চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here