বিশ্বাস

 বিশ্বাস

লেখা- অনামিকা ইসলাম।

একবার ; হ্যাঁ একবার যখন তোমায় ভালোবেসেই
ফেলেছি-
তুমি আমাকে চাইলেই এখন একটি ট্রাকের নীচে
ধাক্কা মেরে ফেলে দিতে পারো মজা করতে করতে,
আমি তোমার মজাতেও বিশ্বাস রাখি যে!
হয়তো একটু খেলাচ্ছলে আমাকে ফেলে দিতে
পারো পাহাড় থেকে,
আমি গড়িয়ে পড়তে পড়তে তোমাকে দেখার চেষ্টা
করতে পারি,
তখন মনে হবে তুমি নও, আমিই বোধহয় পা ফসকে
পড়ে গেছি।
আমি তোমাতে এত বিশ্বাস রাখি যে!
আমি তোমাকে একবার ভালবেসেছি,
মাত্র একবার-
তারপর থেকে অবিরাম বিশ্বাস করে যাই।
আর তাই তুমি চাইলেই আমার হৃৎপিন্ডকে একটা
ব্লেন্ডারে ফেলে কুচিকুচি করে ফেলতে পারো উল্লাসে!
তোমার ইশারায় আমার চোখ পাথর হতে পারে
এখন,
তোমার ইশারায় আমি থমকে যেতে পারি ক্যান্সারের
খবর পাওয়া সাতাশ বছরের যুবকটির মত।
তোমার ইশারাকে যদিও আমি খুব বিশ্বাস করি-
এবং তোমার একটি মাত্র ইশারায় ভেঙে যেতে পারে সাতআসমান!
আমি মাত্র একবার তোমার প্রেমে পড়েছিলাম,
তারপর বহুবার কেঁদে ভাসার মত ভালোবেসেছি!
মাত্র একবার বুঝতে পেরেছিলাম তোমাকে আমি
ভালোবাসি,
তারপর বহুবার মাঝরাতে কেঁপে উঠেছি দুঃস্বপ্নে!
কিন্তু আমি তোমাকে বিশ্বাস করি-
আর তুমি চাইলেই চুমু খেতে খেতে বুকে ঢুকিয়ে দিতে পারো তীব্র ছুড়িকা!
একটা একটা করে কেটে দিতে পারো রক্তনালী,
ফিনকি দিয়ে বের হবে বিশ্বাস,
বিশ্বাসের রঙ লাল!
আমি তোমাকে একবার ভালোবেসেছি, তখন থেকেই আমার ভালো থাকা মন্দ থাকার কারণ হয়ে উঠেছো তুমি।
তুমি চাইলেই আমি দেবদূতের মত জ্যোতির্ময়,
তুমি চাইলেই আমি পঁচা গলা এক মরা মাংসপিন্ড!
তবে আমি তোমাকে বিশ্বাস করি-
বিশ্বাস করি বলেই তুমি আমার কাছ থেকে চুমু
খেয়েও অন্যকারো সাথে শুতে পারো!
তুমি কারো সাথে ফোনালাপে জমজমাট প্রেম
করতে পারো,
তুমি চাইলেই হঠাৎ করে কেড়ে নিতে পারো আমার
সুস্থতা।
তুমি চাইলেই আমাকে নিখোঁজ করে দিতে পারো,
আর আমি তোমাকে বিশ্বাস করি বলেই-
তুমি বিষকে অমৃত বলে খাওয়াতে পারো!
আমি তোমাকে একবার ভালোবেসেছিলাম,
সেই থেকে নিজের উপর বিশ্বাস হারিয়ে আমি
তোমাকে বিশ্বাস করছি।
 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here