Love_at_1st_sight   Part : 6

0
241

Love_at_1st_sight 😍😘💞
Part : 6

writer-Jubaida Sobti
স্নেহা : (কাপা গলায়) দেখেন আপনি কিন্তু ঠিক করছেন না।
রাহুল : (স্নেহার কানে) ঠিক করে কিছু করা তো আমি এখনো শুরু করিনি😉
রাহুল তার পকেট থেকে রিমোট বের করলে,
স্নেহা : প্রেক্টিস তো শেষ, 😐
রাহুল : আমাদেরটা বাকি আছে, 😍😉(রাহুল মিউজিক অন করলো)
then start a romantic
~~~Song~~~~ (please don’t skip the song….listen carefully to imagine this scene, rahul and sneha’s feeling)😍😍
Tere Saamene Aajanese,…
iya dill mera dharka hain…😍
iya gaalti nhi he teri
kusur..nazaar ka he…😍 (2x)
Jiss baath ka tujko dhaar he..
woh karke dikha dunga…..😉
Aise na Mujhe Tum Dekho,
Seena Se Laga Lunga😍
Tum ko me, Churalunga Tumse
Dill me Chupa Lunga… 😍 (2x)
Sneha’s fingers touch in rahul chest..😍she looked into his eyes,,,.they share a beautiful eyelock,,Sneha‘s heart beat enhanced with their proximity…,
then rahul kissed, in sneha’s cheeks😘😍
হঠাৎ রাহুলের ফোন বেজে উঠলো…
রাহুল : Yeah! come in.. just 5mins…
স্নেহা রাহুলের কাছে থেকে সরে গিয়ে দাড়ালো… এবং কিছু না বলে রুম থেকে বেরিয়ে পরে।
রাহুল স্নেহাকে আটকাতে চেয়েও আটকালো না আর,
(Today Rahul Blushing)😉
মার্জান : স্নেহা কি করলি এতোক্ষন😳 বলনা বলনা?😙
শায়লা : হুমম….সব কি বলা যায় মার্জান কিছুতো সিক্রেট থাকবে তাই না স্নেহা, 😉
স্নেহা : দেখ তোরা কিন্তু বেশি করছিস,…কিছুই হয়নি..😶
মার্জান : ok..we know something something 😉
জারিফা : আমরা কিন্তু সব দেখেছি,😏
স্নেহা : 😱😱😱😱😱
জারিফা : দেখ দেখ ওর ফেইস এক্সপ্রেশন দেখ….তার মানে কিছু হয়েছে…😜
স্নেহাকে নিয়ে তার ফ্রেন্ডসরা… হাসাহাসি করছে।
(আরস্নেহা রাহুলের কথা মনে করে Blushing হচ্ছিলো)
বাসায় যাওয়ার পথে…
স্নেহা তার ফ্রেন্ডসদের সাথে বাসায় যাচ্ছিলো,
সামির স্নেহার পাশে এসে দাঁড়ায়,
স্নেহা সামিরকে এড়িয়ে হাটলেও সামির বার বার স্নেহার পাশে চলে আসে,…
সামিরের সাথে তার আরো কিছু ফ্রেন্ডসরা ও ছিলো,
সামিরের গাড়ি থাকা সত্তেও সে হেটে যাচ্ছে, আর বার বার স্নেহার হাতের সাথে হাত লাগাচ্ছিলো, তার মেইন ইরাদা হলো সে স্নেহার সাথে ইপটিজিং করবে।😫
স্নেহা সামিরের এসবে খুব বিরক্তিবোধ করছিলো…
হঠাৎ ঐসময় কিছুদূর সামনে একটি গাড়ী এসে থামে,
(আজিবতো হাটার পথে এসে গাড়ী থামায় নাকি,…) গাড়ীটা অনেক চেনা চেনা লাগছিল। ঠিক ঐসময় রাহুল গাড়ী থেকে নেমে আসে,
(স্নেহা মনে মনে)
মি. হ্যান্ডসামটা এমনভাবে এন্ট্রি করে, যে কোনো মেয়েই ওর ফিদা হয়ে যাবে 😍😍
রাহুল কাছে এসে সামিরের কাধে হাত দিয়ে, তার বাকি ফ্রেন্ডসদের ছাড়া হেসে হেসে সামিরের কানে কানে কি যেন বলে সামিরকে তার গাড়িতে করে নিয়ে চলে গেলো… যাওয়ার সময় স্নেহার দিকে একপলক তাকিয়ে 😉 চলে গেলো।
(স্নেহা blushing) 
মার্জান : এই রাহুলটার ভাবসাব কিছু বুঝিনা, সামির তার শত্রু, এবং তার গ্রুপের ছেলেদের ও মারলো সামিরের গ্রুপ, অথচ রাহুল ও সামিরের সাথে উলটা বন্ধুর মতো আচরণ করছে,😟
হঠাৎ একটি জুনিয়র ছেলে এসে বলে,
আপু বাঘ যখন ছোট প্রাণী শিকার করে তখন ধীরেধীরে যায়, কি বুঝলেন 😉
এই বলে ছেলেটা চলে যায়,ছেলেটাকে এর আগে ও অনেক বার দেখেছে স্নেহা রাহুল যখন স্নেহাকে টেনে ঐ ক্লাস টাই নিয়ে যেত হে তখনি দেখেছে ছেলেটিকে,
মার্জান : কিছু বুঝলি তো ছেলেটি কি বললো, আমিতো কিছুই বুঝলাম না,😕
স্নেহা একটু দৌড়ে গিয়ে ছেলেটির কাছে,
স্নেহা : এই যে ভাইয়া, কি বললে তুমি কিছু বুঝলাম না,
ছেলেটি : রাহুল ভাইয়ার অর্ডার ছিলো আপনাকে যদি কোনো ছেলে ডিস্টার্ব করে সাথে সাথে ভাইয়াকে ফোন দিতে,এবং আপনি যতক্ষন কলেজে থাকবেন কোথায় কি করছেন যাচ্ছেন,সব ডিটেইলস ভাইয়াকে দিতে হবে,
আমরা আমাদের রাহুল ভাইয়ার জন্য এইটুকু তো করতে পারি😉
তাই সামির আপনাকে ডিস্টার্ব করছিলো দেখে সাথে সাথে ভাইয়াকে ফোন দিলাম আর ভাইয়া ৩ মিনিটেই হাজির😎
আজকে দেখবেন সামিরের কি হাল হয় অনেক উড়ছে এই বেটা 😄
স্নেহা, শায়লা,মার্জান,জারিফা, সবাই Exclaimed 😱
ছেলেটি : অবাক হবেননা আপু! ভাইয়া কিন্তু একপিস,এবং আপনি অনেক লাকি 😍
এই বলে ছেলেটি চলে গেলো।
মার্জান : yess yess yess…আল্লাহ তুমি তুমি এতো ভালো কেনো,
শায়লা : আরে মার্জান ও তোর জুনিয়র😯
মার্জান : ধেত কি বলি আর কি বুঝে,😬আমিতো আল্লাহকে বলেছি।কারন আল্লাহ আমার দোয়া কবুল করলো,আজ সামিরের বাচ্চা সামিরের জম দোলায় চলবে।😂
স্নেহা : কিন্তু এসব মারামারিতো ঠিক না😔
মার্জান : ওও… তোর তো অনেক টেনশন হচ্ছে রাহুলের জন্য সব বুঝি, Don’t worry baby সেটা রাহুল মনে রাখিস😉
চল এবার বাসায় চল,
বাসায় গিয়ে স্নেহার মন ঠিকছে না কেমন যেন মনে হচ্ছে,কখন কাল কলেজ যাবে আর রাহুলকে দেখবে, 😖
হঠাৎ আজকের প্রেক্টিস রুমের কথা মনে পরলে (স্নেহা blushing )
পরদিন কলেজে,
স্নেহা রাহুলকে খুজে খুজেই ঢুকছিলো,তারপর
ক্লাসে গিয়ে বসে,
স্নেহা : জারিফা আমার বেগটা রাখ আমি একটু আসছি,
জারিফা : ওকে তাড়াতাড়ি আসিস,
স্নেহা : সব জায়গায় খুজলো স্নেহা রাহুলকে কোথাও পেলো না,প্রেক্টিস রুমে গিয়ে ও দেখলো রাহুল নেই। স্নেহার মনে অনেক ভয় কাজ করছে কোনো কিছু হয়নিতো কাল!😢ঐ ছেলেটিকে ও তো পাচ্ছি না,😔
হঠাৎ ঐ ক্লাসটার কথা মনে পড়লো,
স্নেহা : মনে মনে, আরে হ্যাঁ ঐ ক্লাসটাই তো দেখলাম না।
স্নেহা ক্লাসটাই ঢুকতে দেখে রাহুল ক্লাসের মধ্যে দেওয়ালে হেলান আর তেডি স্মাইল দিয়ে দাঁড়িয়ে আছে,
স্নেহা : 😧এই ভাবে দাঁড়িয়ে আছেন কেন মিস্টার তেডি স্মাইল.. আপনি জানেন আপনাকে আমি আরো কত জায়গায় খুজছিলাম। 😡
রাহুল : ফাইনালি তাহলে খুজে পেলে আমায়😎
স্নেহা : (একটু নার্ভাস হয়ে) কই নাতো, আমিতো খুজছিলাম না,আমি দেখছিলাম যে সবাই কলেজে এসেছে কি না,😒
রাহুল স্নেহার কাছে এসে,😍
রাহুল : ওহ রিয়েলি 😍(with তেডি স্মাইল)
রাহুল স্নেহার একদম কাছে আসে,😍
রাহুল : looking beautiful 😍😍
Sneha’s heartbeat increased hearing rahul’ voice 😶
রাহুল :(An naughty idea clicked in his mind,) রাহুল slowly 😍স্নেহার কোমরে হাত দিলো,
sneha’s heart started beating faster যখন রাহুল তার আরো কাছে আসে,
স্নেহা সরে যেতে চাইলে,
রাহুল : [ in sneha’s ear] sneha Stop Fighting with it! 😉
Sneha stiffed when she realised what Rahul was trying to do,
Rahul slowly slided 😍in sneha’s back😍
sneha’s heart started beating faster again😉
Sneha was schoked 😳she wanted Rahul to stop but she coudnt say anything 
Rahul was enjoying sneha’s plight 😍😍….and their togetherness….
স্নেহা : ক্লাসে লেইট হচ্ছে 😐
রাহুল : shut’up 😕
(স্নেহা Shocked 😳)
(then rahul try to kissed sneha’s cheek 😘
রাহুল স্নেহাকে কিস করতে চাইলে স্নেহা blushing)
স্নেহা রাহুলকে একটু ধাক্ষা দিয়ে সরিয়ে রুম থেকে বেরিয়ে যায়
রাহুল : স্নেহা ওয়েট (with তেডি স্মাইল)😍….
ক্লাসে,
জারিফা : স্নেহা কই ছিলি এতোক্ষন?
স্নেহা : এইতো ঐদিকে ছিলাম,, আচ্ছা বাদ দে।বাকিরা কই?
জারিফা : দুজনকেই ফোন দিয়েছি মার্জান শপিং যাচ্ছে শায়লা বাসায় গেস্ট আসছে তাই আসবে না।
স্নেহা : তাহলে আমরা কি করবো… এমনিতে কোনো ক্লাস হবে না।সবাই কালকের ফাংশান নিয়ে ব্যস্ত।বাসায় চল।
জারিফা : ওকে তাহলে চল।
জারিফা আর স্নেহা বাসায় চলে গেলো।
ঐদিকে রাহুল স্নেহাকে না দেখাতে খুজতে থাকলো,😍 পরে খবর পেলো স্নেহা আজ বাসায় তাড়াতাড়ি চলে গিয়েছে..
স্নেহা বাসায় এসে ভাবছে কালকে ফাংশনে কি পড়বে…
হঠাৎ Unknown number থেকে আবার ফোন..
স্নেহা : হ্যালো!
unknown : no response
স্নেহা : আজিব তো কথা না বললে ফোন দেন কেনো বুঝি না, নাকি মোবাইলের টাকা বেশি আপনার,…বেশি হলে আমাকে ট্রান্সফার করে দিয়েন…আমার আবার মোবাইলে টাকা কম..
তারপর স্নেহা রেগে ফোনটা কেটে দিলো…
কিছুক্ষন পর স্নেহার মোবাইলে মেসেজ আসার আওয়াজ আসে স্নেহা চেক করতেই দেখে
Recharge 500tk
Sneha shocked 😱😱
স্নেহা কল বেক করলে আর রিসিভ করে না,
স্নেহা : ( মনে মনে) কি গাধারে বাবা আমিতো এমনিতেই বলেছি আর উনি 😱
পরদিন সন্ধায় স্নেহা কলেজ যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছে,আজ সন্ধ্যায় কলেজ ফাংশন,
শায়লা ফোন দেই,
স্নেহা কই তুই কতোদেরি লাগবে আর,আমাদের মিস তাড়াতাড়ি আসতে বলেছিল ভুলে গিয়েছিস?
স্নেহা : এইতো ১০ মিনিট এক্ষুনি আসছি।
স্নেহা তাড়াতাড়ি কলেজ যায়,…
কলেজের গেইট দিয়ে ঢুকতেই পিছনথেকে গাড়ির হর্ন দেওয়ার সাউন্ড শুনতে পায় এবং স্নেহা পিছনে ফিরে তাকাই গাড়ির লাইট চোখে পড়াতেই স্নেহা চোখে হাত দিয়ে দেই.. এবং চোখ বন্ধ করে ফেলে …after few second she open her eyes slowly এবং সে দেখতে পায় গাড়িতে রাহুল..😍
রাহুল স্নেহার দিকে তাকিয়ে 😍😍
sneha wore a baby pink lehenga with lemon dupatta 😍…she looking like a princes 😍
স্নেহা রাহুলকে সাইড দিলো রাহুল তাও হা করে স্নেহার দিকে তাকিয়েই আছে 😍
পিছন থেকে আরেকটি গাড়ী এসে আওয়াজ দিলে রাহুল তার গাড়ী টান দেই.. 😉
মার্জান : ওয়াও স্নেহা u looking lyk repunzel 😍😍..
স্নেহা : u too baby 😘
ফাংশন শুরু হলো…
রাহুল স্নেহার দিকে তাকিয়েই যাচ্ছে,
আর (স্নেহা blushing )
জুনিয়র, সিনিয়র সবার ডান্স চলছে।…
আস্তে আস্তে রাহুল আর নেহার পারফরমেন্স দেওয়ার পালা চলে আসে,…কলেজের সবাই অনেক এক্সাইটেড,
যখন ক্রাশ স্টেজে উঠবে তখন অডিয়েন্সের এক্সাইটমেন্ট বেড়ে যায়😍। তেমনি রাহুল তার কলেজের হ্যান্ডসাম ছেলেদের মধ্যে জনপ্রিয় একজন ছেলে যার উপর অনেক মেয়ে ক্রাশ..
নেহা : এই যে মিস.চাম্বুস, রাহুলকে দেখেছ?…😏
স্নেহা : দেখেছিলাম কিন্তু এখন কোথায় জানি না।
নেহা : এই রাহুলটা না কি যে করি এই ছেলেটাকে নিয়ে…
মিস : নেহা,স্নেহা, শায়লা guys r u ready.. for dance?
নেহা : yeah mem but!
মিস : but..? nd where is rahul?..
নেহা : মেম কখন থেকে ফোন করছি রাহুল ফোন ধরছেই না আর ওর সব ফ্রেন্ডসদের থেকেও জিজ্ঞেস করলাম কেউ খোজ পেল না,😔
মিস : নেহা এটা বসে থাকার সময় না খুজে দেখো, nd remember rules is rules so..টাইম পেরিয়ে গেলে পারফরমেন্স আর করা যাবে না,so hurry up.
নেহা : ওকে মেম 😑
মিস চলে যাওয়ার পর,
নেহা: এই যে চাম্বুস হা করে দেখছ কি যাও খুজে দেখো কোথায় আছে রাহুল ?..
স্নেহা কই খুজবে বুঝতে পারছে না, রাহুলের নাম্বার ও নেই তার কাছে,
প্রোগ্রাম চলছে ঐদিকটা অনেক ভিড়, কলেজের ভেতরে তেমন কেউ নেই তবে,অনেকেই হাটাচলা করছে,
হঠাৎ ঐ ছেলেটিকে দেখলো স্নেহা,
স্নেহা : এই যে তুমি রাহুলকে দেখেছ?..
ছেলেটি : হ্যা ঐদিকটা যেতে দেখেছি,..
স্নেহা : ওকে থ্যাংক ইউ ..

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here