বড়বোন হওয়ার প্যারা

0
217

একদিন বাহিরে যাওয়ার সময় মা’কে বললাম মা আমি যাচ্ছি। মা বললো টাকা নিয়ে যা। আমি বললাম টাকা আছে তো,আর লাগবে না। আমি তো জানি আমার ব্যাগে টাকা আছেই। যখন বের হলাম তখন আমার ছোটবোন দৌঁড়ে এসে বলে আরে আপু অন্তত রিকশা ভাড়া নিয়ে যা তোর ব্যাগে ১ টাকাও নাই রে। ব্যাগ খুলে দেখি আসলেও নাই। তখন বুঝলাম সে কয়েকদিন ধরে আমাকে এটা সেটা গিফ্ট কেন করে।

সে সবসময় আমার সবকিছু গুছিয়ে দেয়। আমার আলমারী গুছানো থাকলেও বলবে কি অবস্থা করে রেখেছিস। এসব বলে আলমারী গুছানো শুরু করবে। গুছানো শেষে দুইটা জামা নিয়ে তার আলমারিতে রেখে দিবে। কম হলেও ১ টা জামা তো নিবেই। এমন করে যদি প্রতি সপ্তাহে একদিন আমার আলমারী গুছায় তাহলে আমার কি অবস্থা হয় ভাবা যায়?

মার্কেটে গিয়ে আমাকে দিয়ে কসমেটিকস কিনাবে। তার পছন্দ হলেও আমাকে খোঁচা দিয়ে বলবে আপু এটা সুন্দর অনেক সুন্দর। তখন আমিও সেটা কিনে ফেলি। আর মা বলে আমি বেশি জিনিস কিনি,ছোটবোন ভালো সে কিনেই না। সে তো কিনে না কারণ যা আমার সবই তার। আমার তো বড় কেউ নাই আমি কারটা নিবো?😔

যেদিন আমার কোনো জিনিস তার খুব পছন্দ হয়ে যাবে সেদিন আমাকে বেশি বেশি তেল মারা শুরু করবে। আর এমনভাবে তেল মারে আমি বুঝতেও পারিনা সে যে আমাকে পটাচ্ছে। আমিও পটে যাই আর সে তার জিনিস নিয়ে চলে যায়। আমি আবার গিয়ে নতুন করে কিনি আর বকা খাই।

সেদিন মা ছাদে গেসিলো। আর সে রান্না ঘর থেকে আপু আপু কিরে চেঁচাচ্ছে। আমি তাড়াহুড়ো করে গেলাম, যাওয়ার পর দেখি এক পাতিল ডাল ফেলে দিসে। আর বলতাসে আপু আমার হাত পুড়ে গেসে তুই ডাল পরিষ্কার করে দে প্লিজ। আমি বললাম যা তুই আগে হাতে পানি দে,আমি এটা পরিষ্কার করি। ওমা সে তো সোজা কোচিং এ চলে গেলো আমি দেখিওনি। আর মা এসে কিছু জিজ্ঞেস না করেই আমাকে বকা দিলো। রাগে,দুঃখে পরে আর বললাম না ডাল যে ছোটবোন ফেলসে। বললাম হ্যাঁ আমিই এসব আকাম করি।

সে সবসময় আমার পছন্দ করা ড্রেস পরবে। তার নিজের কোনো পছন্দ নাই। তাই তার কেনাকাটা আমিই করি। কিনে আনার পর বলবে তোরটা বেশি সুন্দর আমারটা পঁচা। এটা নিয়ে কতক্ষন কান্নাকাটি করবে,আমাকে ইচ্ছামতো বকা দিবে। পরে যখন বান্ধবীরা বলবে তোর ড্রেসটা অনেক সুন্দর তখন এসে আবার মাফ চাইবে।

মা যখন তাকে বকা দিলে আমি খুব খুশি হই। কিন্তু মা শেষ লাইনে বলবে বড় বোনের মতো ফাজিল হইছস। এই কথা শোনার পর আমার দিলটা খানখান করে ভেঙে যায়।
বড় ভাই-বোন হওয়া মানে একবার নিজের দোষে বকা খাওয়া আরেকবার ছোটদের দোষে বকা খাওয়া।

এরকম আরও শতশত ঘটনা আছে। লিখে শেষ হবেনা। শুধু এটাই বুঝাতে চাচ্ছি বড়বোন হওয়ার অনেক কষ্ট অনেক।
যেসব ছোটবোনরা আমার এই পোস্ট পড়বেন তাদের বলছি বড়বোনকে একটু কম জ্বালাবেন। পছন্দের জিনিসগুলো এভাবে ছিনতাই কইরেন না।

=> writter by: Riddhi Jannat

গল্প টি ভালো লাগলে শেয়ার করে সবাই কে পড়ার সুযোগ করে দিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here