হঠাৎ_পাওয়া_পর্ব_2

0
169

হঠাৎ_পাওয়া
পর্ব___2
Written by Avantika Anh
রাতে বাড়িতে বসে ভাবছি অর্নবের কথা । “ও কি সত্যি বদলে গেছে ? নাকি শুধুই তার লাভের জন্য আবার আমাকে প্রপোজ করছে । না আমি আবার ওই ভুল করতে চাই না ” ঘুমিয়ে পড়লাম । সকালে সবাই হইচই আজ কাজিনের শ্বশুরবাড়িতে আমাদের দাওয়াত ।
.
.
আমি যেতে চাচ্ছিলাম না কারণ ওখানে গেলে অর্নবের সাথে দেখা হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে আর আমি তা চাই না । তবুও সবার জোড়ে রেডি হলাম । কি ড্রেশ পড়বো তা জিজ্ঞেস করতে রিয়ার (আরেকটা কাজিন) রুমে গেলাম ।
.
কিন্তু সেখানে রিয়া ছিলো না । তাই ভাবলাম পাশে রাজ ভাইয়ার রুম তার কাছেই সাজেশন নেই সাদা গাউন টা পড়বো নাকি ছাঁই রঙ্গের গাউন ।
.
না দেখেই বলতে বলতে ঢুকলাম “রাজ ভাই বল তো কোনটা পড়বো?”
.
কিন্তু ভিতরে ঢুকে দেখলাম রাজ ভাইয়া নাই বরং অভি ভাইয়া আছে ।
আমি- সরি আমি ভাবলাম রাজ ভাইয়া ভিতরে আছে ।
অভি- না ব্যাপার না
.
আমি চলে আসছিলাম পিছনে অভি ভাইয়া ডাক দিলো ।
অভি- আনহা
আমি- জ্বী
অভি- ছাঁই কালার টাই বেটার আছে
আমি- থেংকু আমারও এটাই মনে হয়েছিলো ।
অভি- আচ্ছা
.
.
রেডি হলাম । সব কাজিন রা যাচ্ছি সাথে অভি ভাইয়াকেও রাজ ভাইয়া নিয়ে যাচ্ছে ।
.
আমরা মোট ৭ জন কাজিন যাচ্ছি । সবার জায়গা আটলো না কারে তাই আমি , রাজ ভাইয়া আর অভি ভাইয়া , সাথে আরেক আপু আমরা অন্য গাড়িতে উঠলাম ।
আমি- আমি সামনের সিটে বসবো কারণ এটার গ্লাস আমি খুলে রাখবো কিছুটা ।
রাজ- আচ্ছা বস কিন্তু ড্রাইভ কে করবে ? ড্রাইভার আংকেল তো ছুটিতে ।
আমি- তুই কর
রাজ- এ্যা সবসময় আমাকে করতে হবে কেনো ?
আমি- আমি কি পারি যে আমি চালাবো নাকি আয়শা আপু পারে বাকী তো তুই । তুই তো ড্রাইভ পারিসও তাই তুই চালা ।
রাজ- কেনো অভিও তো যাচ্ছে ও চালাক
অভি- আচ্ছা আমি চালাবো
আমি- ওই অভি ভাইয়া কেন তুই চালা ।
অভি- না ব্যাপার না আমিই চালাই
আমি- ইচ্ছা ।
.
গাড়িতে…..
সবাই গল্প করছি
.
রাজ- এই তিন্নি আপু এতো দূরে বিয়ে করলো কেন ? রাস্তাই শেষ হয় না
আয়শা- চল গানের কলি খেলি
রাজ- চল চল
আমি- গাড়িতে গানের কলি ???
আয়শা- হুম মজা হবে রাজ শুরু কর স দিয়ে গান কর
.
রাজ- ওই টিম হোক তাহলে
আমি- টিম ওকে আমি আর আয়শা আপু । তুই আর অভি ভাইয়া
রাজ- আমরা ছেলেরা একা ?
আমি- হু
রাজ- না আমি আর আয়শা আপু । তুই আর অভি হ টিম
আমি- ওকে আমরা হারিয়েই ছাড়বো তোমাগো তাই না অভি ভাইয়া।
অভি- হুম
.
আমি- রাজ ভাইয়া র দিয়া ক তুই
রাজ- র দাড়া ।
“রিমঝিম ধারাতে চায় মন হারাতে”
আমি- ওই ওই ভুল গাচ্ছিস ওটার সামনে স আছে অন্য গা
আয়শা- আমি বলছি
“রংধনু রং স্বপ্ন আঁকে…..”
এবার তোরা গা প দিয়া ।
আমি- “পেয়ার মাংগা হে তুমহিছে হি মুঝে পেয়ার কারো….”
.
এভাবে গেম চলতে থাকলো….
লাস্ট গানের বেলায় ।
আমরা ওদের ক্ষ দিয়া গাইতে বললাম কিন্তু ওরা পারলো না ওইবার অভি ভাইয়া একটা গান বললো তাতে আমরা জিতে গেলাম ।
.
আমি- থেংকু অভি ভাইয়া আমরা জিতছি
অভি- তুমি ভালো গান পারো
আমি- আরে না
অভি- রেলি
আমি- হাহা
ওই রাজ ভাইয়া আইসক্রিম খাওয়া এবার সবাই কে
রাজ- কেনো ?
আমি- হেরে গেছিস তাই
রাজ- ইইইই আমার পকেট খালি করা
আমি- হ
.
তারপর গাড়ি পার্ক করা হলো আর আমরা আইসক্রিম খেলাম ।
.
অভি- আনহা তুমি বিড়াল
আমি- কেমনে
অভি- মুখের উপরেও আইসক্রিম লাগিয়ে রাখছো
আমি- ইইই কই
অভি- ওখানে
.
আমি মুছে ফেললাম ।
আমি- থেংকু ।
.
ওখানে পৌঁছালাম কিছু সময় পর । যার চেহারা দেখার ইচ্ছে ছিলো না সে-ই চোখে পড়লো । অর্নব ওখানেই ছিলো । আমার পাশ দিয়ে যাওয়ার ভান করে বললো “তোমারি অপেক্ষা করছিলাম”
.
.
খাওয়ার টেবিলে….
.
আমার পায়ে কে জানি গুতা দিচ্ছে আমি নিচের দিকে তাকাতে দেখি অর্নব । আমার অস্বস্তি লাগতেছিলো ।
.
আমি- অর্নব ভাইয়া আপনার পা টা সরিয়ে নিন
অর্নব- সরি ভুলে আপনার পায়ের সাথে লাগছে ।
আমি- একটু সাবধান থাকিয়েন আমার ড্রেসে দাগ লাগতে পারে (যেনো কেউ খারাপ কিছু না ভাবে)
.
খাওয়া শেষে রাজ ভাইয়া আর আয়শা আপু আমাকে জিজ্ঞেস করলো “সিরিয়াসলি কিছু হইছে নাকি?”
আমি- না কিছু না
রাজ- সিওর বেশি জ্বালাইলে বল সোজা করে দিবো
আমি- না কিছু না
.
.
পরে আমি কি করতে বাইরে গেলাম ।
অর্নব- এভাবে করলে কেনো ?
আমি- আপনি আমাকে টাচ করছেন কেনো?
অর্নব- কেনো প্রব্লেম কই আমি তো তোমাকে বারবার বলছি রাজি হও না কেনো ?
আমি- দেখুন আমি আগেও টাচ করা পছন্দ করতাম না তাই আপনার হাত অব্দি ধরি নাই এখন আরো করি না ।
অর্নব- এই জন্য রাগ হয় । এই যুগের হয়ে তোমার মাঝে এতো গ্রাম্য স্বভাব এমনি ছেড়ে গেছিলাম ।
আমি- আমি কি আপনাকে ফিরিয়ে নিছি ? আমি এমনি আর এ নিয়ে আপনাকে ভাবতে হবে না
অর্নব- দুররর ইয়ার বুঝার চেষ্টা করো কাধে হাত দিয়ে
.
আমি জোড় করে সরিয়ে নিলাম ।
আমি- hey you listen don’t you dare to touch me i don’t like these kind of behaviour
অর্নব- প্লিজ
আমি- এসব টাচ আপনার জান্নাতের ভালো লাগতে পারে আমার না ওকে দূরে থাকুন আমার থেকে
.
আর কোনো কথা না শুনেই চলে আসলাম….
.
পিছনে দেখি অভি ভাইয়া দাড়িয়ে ।
.
অভি- আনহা
আমি- জ্বী
অভি- তোমার এক্স বিএফ কি এই অর্নব ?
আমি- হুম আপনি কিভাবে জানলেন ?
অভি- রাজ বলছিলো তুমি একজন কে ভালোবেসেছিলে সে নাকি তোমাকে ছেড়ে গেছে । তার উপর অর্নব এর ব্যবহার এতেই বুঝলাম ।
আমি- আমার না ওকে দেখলে ঘৃণা হয় । ওর প্রতি কোনো ফিলিং নাই আর তারপরেও ও কেমন ব্যবহার করছে ভিলেন ভিলেন টাইপ আমার একদম ভালো লাগছে না ।
অভি- হুম তোমাদের কথায় বুঝলাম । আমি কি ওকে থ্রেট দিবো ?
আমি- না থাক ওর মতো মানুষের সাথে কথা না বলাই ভালো
অভি- আচ্ছা এক কাজ করো তুমি যতক্ষন এখানে আছো একা থেকো না তাহলেই হবে
আমি- আচ্ছা
অভি- তা ম্যাডাম আপনি কি করছিলেন এখানে ?
আমি- ওইটাকে দেখছিলাম (হাত দিয়ে দেখিয়ে)
অভি- বিড়াল ?
আমি- হুম
অভি- বিড়াল ভালোবাসো ?
আমি- হুম বিল্লি ভালো লাগে
অভি- বাহ
.
.
চলবে…….

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here