টেম্পরারি_বিয়ে _পর্ব_৮

0
170

টেম্পরারি_বিয়ে
_পর্ব_৮
Written by Avantika Anh
মিটিং শেষে….
আমি চলে আসতেছিলাম ।‌ কিন্তু আবির পথ আটকালো ।
আবির : আনহা
আমি : জ্বী স্যার বলুন
আবির : আনহা আমাকে ক্ষমা করে দাও প্লিজ
আমি : আপনাকে কি আমি চিনি ? আর আমি কেনো ক্ষমা করবো ?
আবির : আমাকে প্লিজ ক্ষমা করো । আমার সন্তান কই ?
আমি : কোন সন্তান ওই যে যাকে আপনি নাপাক বলছিলেন ।
আবির : প্লিজ ইয়ার সরি আর কোনোদিন হবে না ।
আমি : আপনার নিহা কই ? ওকে বলুন
আবির : নিহা কেউ না । আমি ওকে রিজেক্ট মারছি । বিয়ে করি নি প্লিজ ।
আমি : listen we are divorced now . I don’t wanna talk to you .
Abir : please damn listen to me
Ami : I don’t bye .
.
আমি চলে আসলাম ।
.
আবির কিছু সময় নিশ্চুপ বসে থাকলো । তারপর নিজেকেই বললো ।
আবির : না দোষ আমি করেছি । আমি ওকে ফিরিয়ে আনবোই । দেখি এখন ওর খোঁজ নিবো ।
.
এই কম্পানিতে খোঁজ নেই ।
.
Abir : hey there . I need a little help
someone : yahh sir tell me
Abir : can you give me the address of Anha ?
Someone : yahh but why did you need it .
Abir : I need to discuss with her about this project .
Someone : okay sir her address is N/W road 102 mumusi road 4 the building 10th floor .
Abir : thanks for your help .
Someone : Welcome sir .
.
আবির সেই বিল্ডিং এ গেলো । সেখানে বাসা ভাড়া নিলো সেও ।
.
আমি বসে ছিলাম আহান এর সাথে । আহান আমার আর আবিরের ছেলে ।
হঠাৎ কলিং বেলের আওয়াজ ।
.
আমি দরজা খুলতেই…..
আমি : আপনি
আবির : হুম জানু ।
আমি : মানে
আবির : আমার সন্তান কই ?
আমি : নাই এখানে কেউ ।
.
আবির শুনলো না জোড় করে আসলো । গিয়েই আহান কে কোলে নিলো ।
আবির : (দেখলো সেই বাচ্চাটাই । যাকে অনেক কিউট লেগেছিলো । ভাবলো তার মানে এটাই আমার ছেলে )
আমার সন্তান ।
আমি : ( কেড়ে নিলাম ) সেই অধিকার আপনার নেই ।
আবির : প্লিজ ওকে দেও ।
আমি : না
আবির : একটু প্লিজ
আমি : ( আবিরের মুখ দেখে না করতে পারলাম না ) যাস্ট কিছু সময়ের জন্য
আবির : ওকে ।
.
আহান আবিরের কোলে গিয়ে হাসা শুরু করলো । হয়তো বাবার কোল বলে ।
.
আবির : নাম কি রেখেছো ?
আমি : আহান
আবির : ফিরে চলো আনহা ।
আমি : কোনোদিন না দেন ওকে । আপনি যান প্লিজ ।
.
আবির : আমি তো যাবো না ।
আমি : মানে ?
আবির : আমার বউ , আমার বাচ্চা তাদের ছাড়া কেনো যাবো ?
আমি : না না না কেউ নাই আপনার যান ।
আবির : ডিনার রেডি তাই না খেয়েই নিই । আমার খুব ক্ষুধা লাগছে ।
.
আবির নিজেই গিয়ে খাবার নিয়ে খাওয়া শুরু করলো ।
.
.
এদিক আমি ভাবছি ( এ্যা মি. আবির কি পাগল হয়ে গেছে ? হোক গা আমার কি ? )
.
আবির : বাহ আনহা তোমার রান্না তো এখনো আগের মতোই ।
আমি : ভালো খেয়ে বিদায় হন ।
আবির : বিদায় হবো না গো
আমি : হুররর
আবির : আনহা কিটক্যাট
আমি : কই কই ?
আবির : এমা তুমি এখনো কিটক্যাট খাও ।
আমি : আপনার কি ? আমি খাবো আমার ব্যাপার
আবির : হাহা
আমি : পাগল হইলেন ? হাসছেন কেনো ?
আবির : হুম বাবু তোমার জন্য
আমি : কিইইইই ?
আবির : আচ্ছা আমি‌ ফ্রেশ হয়ে নেই । বেডরুম কোনদিক এদিক ।
আমি : বলবো না
আবির : ওকে আমি খুঁজে নিবো ।
.
.
আমি আহান কে ঘুম পাড়িয়ে দিয়ে সব গুছিয়ে রাখতে কিচেনে গেলাম । এসে দেখি আবির আহানের পাশে শুয়ে পড়ছে ।
.
আমি : হইছে বাপ ব্যাটা একসাথে । হুররররর । আমি যাবোই না এই রাক্ষসের সাথে ।
.
আবির : যেতেই হবে
আমি : আপনি জেগে আছেন ।
আবির : না ঘুমাচ্ছি ।
আমি : তা কথা কে বলে ?
আবির : ভুত
আমি : হুহ ।
.
.
আমি গিয়ে অন্য রুমে ঘুমালাম । রাতে আহানের কান্নায় ঘুম ভাঙ্গে গেলো । জ্বলদি গিয়ে দেখি আবির থামানোর চেষ্টা করতেছে ।
.
আমি : দেন আইছে । এতোদিন খোঁজ নাই । আমার পোলা এইডা ।
আবির : আমারো পোলা । আই মিন ছেলে
আমি : হিহি পারে না আর কইতে আসে ।
আবির : চুপ করাও ।
আমি : আপনি আমার খোঁজ পাইলেন কেমনে ?
আবির : জানো না
“আগার কিছি চিজ কো দিল সে চাহো তো পুরি কায়নাত উছে তুমছে মিলানেকি সাজিস কারেগি”
আমি : আইছে
আবির : লিগালি আমি এখনো তোমার হাজবেন্ড ।
আমি : মানে আমি যে ডিভর্স লেটার পাঠাইছিলাম ।
আবির : ওগুলো কোর্টে জমাই দেই নি
আমি : আমিই থাকবো না
আবির : আমিও পিছে পিছে যাবো ।
আমি : দুর হন
আবির : তুমিও চলো ।
আমি : যাবোই না
আবির : হুহ যাবা তো তুমি ।
.
.
পরেরদিন…….
.
আমি অফিসের জন্য রেডি হচ্ছি ।
.
আবির : ( ভাবছে এই রে কাপড় তো আমার ফ্লাটে । আমি বের হলেই তো আর ঢুকতে দিবে না । হুর কেনো দিবে না দিতেই হবে )
.
আমি আহান কে কোলে নিয়ে বাইরে বের হচ্ছি ।
আবির : কই যাও ওকে নিয়া?
আমি : ও লাইনা এর কাছে থাকে কিছু সময় ।
আবির : ওই বউ যেও না
আমি : হুহ আমি গেলাম ।
আবির : তোমার তো আজ যাওয়া হবে না
আমি : আমি তো যাবো ।
আবির : তোমাকে আজ ফিরতেই হবে জ্বলদি ।
আমি : না ।
.
চলে আসলাম আর কথা না বাড়িয়ে…..
.
.
অফিসে থাকাকালীন
.
লাইনা ফোন দিলো ।
Laina : Anha . come here soon
Ami : What happened ?
Laina : A man came to me some time before . he snatched him . please come
Ami : I am coming

.
.
আমি জ্বলদি আসতেছি ।
.
.
আমি আর লাইনা সেম বিল্ডিং এ থাকি । আমি যেতেই আবিরের কোলে আহান কে দেখলাম । বুঝতে বাকী রইলো না এটা আবিরের কাজ ।
.
Laina : that man .
he stolen ahan
Ami : What the heck abir .
আপনি এরকম করলেন কেন ?
আবির : আমি বলছিলাম আজ তোমাকে ফিরতেই হবে ।
আমি : আপনি একটা
আবির : রাক্ষস জানি তো ।
.
দেখো আহানের জন্য কতো কি কিনছি ?
আমি : আহানের এসবের প্রয়োজন নেই ।
Laima : do you know him ?
Ami : actually…
Abir : I am her husband .
Laina : but anha has divorced her husband
Abir : divorce has not happened yet
Ami : stop it Abir . Just give me back my child
Abir : He is my child also .
Ami : No he is just mine . Off your drama .

.
আমি আহান কে নিয়ে চলে আসলাম ।
.
.
.
কিছু সময় পর কলিংবেল বাজলো । আমি জানি এটা আবির তাই আর দরজা খুললাম না ।
.
অচেনা নাম্বার থেকে কল আসলো ।
.
আমি : Hello
আবির : আনহা দরজা খুলো
আমি : না
আবির : যদি না খুলো আমি হাত কাটবো ।
আমি : কাটেন
.
.
কিছু সময় পর একটা এমএমএস আসলো । আবির সত্যি হাত কেটেছে ।
.
আমি জ্বলদি গিয়ে দরজা খুললাম ।
.
আমি : এটা কেনো করলেন
আবির : বলেছিলাম দরজা খুলতে ।
.
.
আমি তাড়াতাড়ি ওষুধ এনে লাগিয়ে দিচ্ছিলাম ।
.
.
আবির : ভালো তো বাসো আমাকে তাহলে ফিরে আসছো না কেনো ?
আমি : না আমি কাউকে ভালোবাসি না
আবির : মিথ্যে বলে কি লাভ ?
আমি : কিছু মিথ্যে বলছি না ।
.
আমার কাজ আছে আপনি থাকলে থাকুন নইলে নাই । আমি আহান কে ঘুম পাড়িয়ে দিবো এখন ।
.
আবির : আমি পাড়াবো ।
আমি : না
আবির : আবার হাত কাটবো ।
আমি : হুররর আচ্ছা নেন ।

.
.
দেখলাম আবির সত্যি পারলো । হাজার হোক বাবা তো । কিন্তু না আমি মানবো না যে করেই হোক আমাকে অন্য কোথাও শিফট হতে হবে‌।
.
.
চলবে……..

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here