অদ্ভুত ভালোবাসা season 2 পর্ব: ২

0
450

অদ্ভুত ভালোবাসা season 2 পর্ব: ২
-লেখিকা:-অন্না
.
.
,
নীরা:::: তুমি দরজা লাগালে কেনো?,আমি তো কিছু করিনি
,
কথাটা বলতেই আরেকটা পরলো নীরার গালে,,,,,
,
নীরা:::: তুমি মারছো কেনো আমায়? আমি কিন্তু,,,,,,
,
নিলয়:::: কি???? কি করবে তুমি? কি করা বাদ রেখেছো?? আচ্ছা তুমি কি মনে করো বলো তো আমায় ? তুমি কি ভেবেছিলা আমি কিছু জানতে পারবো না???
( চিল্লিয়ে ওঠে)

,
নিলয়ের চিল্লানি শোনার সাথে সাথেই নীরা দৌড়ে বিছানায় উঠে এক কোনে গিয়ে গুটিশুটি মেরে বসে পরে,,,,
,
নিলয়:::: তোমাকে আমি বারন করেছিলাম না বাসা থেকে বের হবা না… কি বলেছিলাম কি না???
,
নীরা ::: হ,,,,,হুম
,
নিলয় :::: তো কোন সাহসে বের হইছো? তাও আবার সেজে,,,, খুব সাহস বেরেছে?পা খুব লম্বা হয়েছে?
কি ভাবছো কি নিজেকে হ্যা,,,, চিনো না তুমি আমায়? আমি রেগে গেলে কি করি তোমার অজানা???
,
নীরা:::: আ,,,,,আমি কোথাও যাইনি,, সত্তি,,,, কেউ আপনাকে ব,,, বানিয়ে বানিয়ে মিথ্যা বলেছে,,,,
,
নিলয় নীরার কাছে ওর ফোনটা ছুরে দেয় ,,, নীরা ফোন টা নিয়ে পিক গুলা দেখে হা হয়ে যায় কারন নীরার বাসা থেকর বের হওয়া থেকে ফুচকা খাওয়া পর্যন্ত সব পিক আছে,,, আর একটা পিক দেখে তো নীরা বিষম খেয়ে যায়,, কারন এটা নীরার আর ওই ছেলের,, যখন নীরা ওই ছেলের কাছ থেকে নীরা গোলাপ ফুল নিচ্ছিলো,,,,
,
নিলয় পানিরএগিয়ে দেয় নীরার দিকে,,, নীরা হাত বারিয়ে পানি নিতে গিয়েও নেয় না,, …
,
নীরা:::: আসলে এই ছেলেটি,,,,
,
নিলয়:::: থাক,,,, আমাকে আর কিছু বোঝাতে হবে না,,, আমি এমন কিছুনা আপনার কাছে যে সব কথা আমায় বলতে হবে,,,, আপনাকে আমি আগে বলেছিলাম,, নিলয়ের জান কোনো সস্তা জিনিস নয় যে তার সিকিউরিটি থাকবে না,,,,আপনাকে আর বলারও কিচ্ছু নাই,,আর বোঝানোর ও কিচ্ছু নাই,,, , নিজের যা মনে হয় করেন,, নিলয় আর আপনাকে কিছু জোর করে কিছু করাতে আসবেনা,,,, ,
আমি তো আপনার কাছে বোঝা হয়ে গেছি,,, আমার ভালোবাসাটা বোঝা হয়ে গেছে,,, তাই তো অন্য কারো হাত থেকে,,,,,,,
,
নিলয় শার্ট টা খুলে ফ্লোরে ছুরে মেরে ফেলে দিয়ে ধাম করে দরজা দিয়ে ওয়াসরুমে ঢুকে পরে,,,,,,
,
নীরা::::( এমন করার কি আছে,,,, এত্ত বকারই আছে,,,আর চড় মারারই কি আছে,,, আমি তো আর ডেকে কারো কাছ থেকে ফুলনেই নি,,, আমায় জোর করে দিলো তাই তো নিছি,,, ফুল ই তো নিছি ছেলেটাকে তো তুলে আনিনি তাই না,,, তোমারে কে বলতে যাবে,,,বলতে গেলেই তো ঠাস্ ঠাস্ করে বসায় গালের ওপর,,, কেনো যে এই গুন্ডাটাকে ভালোবাসতে গেলাম কে জানে,,,, কিন্তুু তুমি যে চড় গুলা আমায় দাও তা তো ভালোবেসেই দাও,,, তাই আমি রাগ করি না,, রাগ যদি করতাম না তাহলে কবেই একটা বারি দিয়ে তোমার মাথা টা ফাটিয়ে দিতাম,,,,,,, হু,,,,,,,,)


,
এর মধ্যেই নিলয় এসে ওর ফোনটা নীরার কাছ থেকে কেরে নিয়ে রুম থেকে বেরিয়ে যায়,,,,,
,
নীরা:::: এই যে শোনো না,,, প্লিজ,,,, প্লিজ,,,
,
নিলয় নীরার কোনো কথাই শুনলো না সোজা আরেকটা রুমে ঢুকে ঠাস্ করে দরজা আটকিয়ে দেয়,,,, নীরা তো হা হয়ে যায় নিলয়ের ব্যবহারে,,,,,
,
নীরা:::: জানু,,,,,,,,,,,, দরজা টা খোলো না প্লিজ
,,
এই নিলয়,,,,,,
,,
ওই ছেলে,,,,, এমন আর কখনও করবো না,, সরি,, প্লিজ মাফ করে দাও,,, শোনো না প্লিজ আমার ময়না টা,,,,,
,,
এই তুমি দরজা খুলবে নাকি আমি দরজা ভেঙে দিবো,,,,
,
নীরা বলেই দরজাতে হাত পা ছুরতে থাকে,,,,,
,
তিশা:::: ভাবি তুমি এমন করছো কেনো???
,
নীরা:::: বক্সিং করছি চোখে দেখো না???
,
তিশা’::: আমি আবার কি করলাম?? আমার সাথে এভাবে কথা বলছো কেনো????
,
নীরা:::: তোমার জন্যই তো এতোকিছু,,, তুমি যদি আজ আমাকে নিয়ে না যাইতে তাহলে তো আর আমার রাক্ষস টা এতো রাগ করতো না,,,
,
তিশা::: আরে আমি কি করলাম,,,তোমাকে তো আমি শুরু থেকেই বারন করেছি তুমি তো আমার কথা শোনো নি উল্টে আমার ধমক দিয়ে চুপ করিয়ে দিছো,,,,,
,
নীরা:::: আরে আমায় কি করে বারন করেছো যে আমি শুনি নাই,,, ঠিক করে বারন করলে তো আমি ঠিকই শুনতাম,,,
,
তিশা::: হুহ্ তোমাকে বোঝানো আমার কাজ নয়,, তোমাকে বোঝাতে ওই ভাইয়ার চড় গুলোই ঠিক আছে,,,,,,
,
তিশা হন হন করে চলে গেলো,,,
,
নীরা::: শাকচুন্নি,,রাক্ষসনী,, পেত্নী ননদিনী,,, আমায় বলে কিনা ওই রাক্ষস টার চড় ঠিক আছে,,,,, ,,, সব শত্রু আমার,,,, কেউ ভালোবাসেনা আমায়,,, থাকবো না আর এই বাড়িতে,, চলে গেলাম আমি,,,,,,,
,
নিলয় কথাটা শোনার সাথে সাথে দরজা খুলে নীরার দিকে রাগি লুকে তাকিয়ে গিয়ে ড্রয়িংরুমের সোফায় গিয়ে বসে পরলো,,,, নীরা নিলয়ের পিছু পিছু গিয়ে নিলয়ের পাশো বসতে লাগলো,,, কিন্তু নিলয়ের লুক দেখে অপর পাশে সোফায় বসে পরে,,,,,,,,।
,
মামুনি::’ বাবা শোন না,,,,,,
,
নিলয়::: এ নিয়ে একটা কথা আমায় কেউ বলতে আসবা না,,,,
,
নীরা::: বলছিলাম,,,,,,
,
নিলয়::: মামুনি আমার খাবারটা রুমে পাঠিয়ে দাও,,,, আর আমাকে কেউ বিরক্ত করবা না,,,,
,
বলেই নিলয় রুমে চলে গেলো,,,
,
নীরা:::: মামুনি তোমার ছেলেটা এমন কেনো বলো তো,,,,
,
মামুনি ::: তুই জানিসই ও এমন তাও ওসব কাজ করিস কেন বলতো,,, আমার ছেলেটার মুখটা দেখ কেমন ভার করে আছে,,,,,,
,
নীরা::: আমাকে যে তোমার ছেলে দুটা দিলো এটা কি তোমার চোখে পরছে না,,,, ,,, বাহ্ বাহ্ মেরেও জিতবে,,আবার রাগ করেও জিতবে,,, তোমার ছেলে একটা আস্ত রাক্ষস,,,,
,
কথাটা বলেই দেখে নিলয় দাড়িয়ে দাড়িয়ে নীরার কথা শুনছে,,,,,নীরার তাকানো দেখেই নিলয় আবার ভেতরে চলে গেলো,,,,,,
,
নীরা”::::: মা,,, মু,,,নি,,,,,,এবার কি হবে??/
,
মামুনি:::: তুই আর বড় হবিনা,, যা রাগ যখন নিজে করিয়েছিস,, এখন রাগ টা তোকেই ভাঙাতে হবে,,,,
,
নীরা::: ও যে শুধু,,, ঠাস্ ঠাস্,,,,
,
মামুনি :::: ঠাস্ ঠাস্ খাবার কাজ করিস তাই খাস…
,
নীরা:”’ আমি কালকেই বাপের বাড়ি চলে যাবো,,, থাকবো না আর এখানে,,,,, তোমরা কেউ আমাকে ভালোবাসো না,,,,,
,
মামুনি ‘::::: আরে শোন,,,, নীরা,,,,
,
নীরা ঘরে চলে আসে,,, এসে দেখে নিলয় চোখ বুজে সোফায় হেলান দিয়ে বসে আছে,,, নীরা নিলয়ের সামনে এসে দাড়ায়,,,,, ,
,
নীরা :: ভুল হয়ে গেছে,,,
,
নিলয়:::::,,,,
,
নীরা:::: সরি,,, এমন কাজ আর জীবনেও করবো না,,,,
,
নিলয় ‘:,,,,,
,
নীরা ধুপ করে নিলয়ের কোলে বসে নিলয়ের গলা জরিয়ে ধরে,,,,,,,,,,,
,
নীরা :::: সত্তি সরি,,,,,
,
নিলয়::,,,,,
,
নীরা:::; কথা বলবেনা?
,
নিলয়:::…..
,
নীরা:::: ঠিক আছে,, কথা যখন বলবাই না তাহলে আর,,,,,
,
নীরা নিলয়ের কোল থেকে উঠে পরলো,,, কিছু না বলে রুম থেকে বেরিয়ে গেলো,,,,, একটু পরে এসে বেলকুনিতে বসে,,,,
,
নীরার কোনো আওয়াজ না পেয়ে নিলয় চুপ করে বেলকুনিকে গেলো,,, গিয়ে দেখে নীরা চেয়ারে পা ঝুলিয়ে বসে আছে,,, নিলয় কিছু না বলে চলে আসতে গেলে দেখে নীরার পায়ে কিছু চিকচিক করছে,,,, নিলয় খেয়াল করে দেখে নীরার পা এর পাতা থেকে টপটপ করে রক্ত পরছে,,, নিলয় নীরাকে কোলে তুলে ঘরে নিয়ে আসে,,,, ,,,
,
এনে বসিয়েই নীরাকে থাপ্পর মারতে গিয়েও মারে না,, নীরা মুচকি মুচকি হাসছে,,,,
,
নিলয়:::: কি করেছো এটা?
,
নীরা::: কিচ্ছু না,,,,
,
নিলয় দৌড়ে গিয়ে ওষুধের বাক্স এনে নীরার পা ব্যান্ডস করে দেয়,,,,,,
,
নীরা::: ঠিক আছি তো,,, অস্থির হতে হবে না,,,
,
নিলয় কিছু না বলে উঠে যেতে লাগলে নীরা নিলয়ের হাত ধরে টান দেয়, নিলয় এসে নীরার ওপর পরে যায়,,,,
,
নীরা:::: রাগ কি এখনও কমে নি???
,
নিলয়::: তুমি কি আমায় ভালো থাকতে দিবে না বলে ঠিক করছো?
,
নীরা নিলয়ের কাধে হাত দিয়ে নিলয়কে নিজের কাছে টেনে নেয়,,,,
।,
নীরা:: তুমি জানতেই আমি তোমাকে ভালো থাকতে দিবো না,, তাহলে আমায় ভালোবাসতে গেলে কেনো শুনি,,,,
,
নিলয়::: ,,,,
,
নীরা:::: আসলে ছেলেটি পিছুই ছারছিলো না,,, আর ফুল গুলো খুব সুন্দর ছিলো তাই নিয়ে ফেলেছি,,, তুমি প্লিজ রাগ করো না,, আমি সত্তি এমন কাজ আর কখনও করবো না,,,
,
নিলয়:::: মনে থাকে যেনো এটাই লাস্ট বার,,,,,
,
নীরা:::: প্রতিবার তো এটাই বলো,,,,,, হিহিহিহিহি
,
নিলয়::: তো তুমি কি চাও আর দুটো থাপ্পর খেতে???
,
নীরা::::; না না না না,,,,,,, আমি তো চাই,,,,,,,
,
নিলয়:::: কি????
,
নীরা::::: কিছুনা,,,,
,

নিলয়:::: কিছু তো,,,, কি বলো,,,,,
,
নীরা নিলয়ের চুল মুঠো করে ধরে নিলয়ের ঠোটে নিজের ঠোট ডুবিয়ে দিবেই তখনই ফরিদা এসে হাজির,,,,,
,
ফরিদা:::: এই,,,,, আমি কিন্তুু কিছু দেখিনি,,,,
,
নিলয়’::: ঘরে আসার সময় নক করবি না??
,
ফরিদা::: ভাইজান দুহাতে তো খাবার দরজা টোকা কেমনে দিতাম কন,,,,,
,
নিলয়:::: ঠিক আছে ঠিক আছে,,,,, যা এখন,,,,
,
ফরিদা একটা মুচকি হাসি দিয়ে ঘর থেকে বের হয়ে চলে গেলো,,,,
,
নীরা:::: এইটা কি হলো,,,,,
,
নিলয়:::: তুমি যা দেখালে তাই হলো,,,
,
নীরা:::: মানে কি,, আমি কি ইচ্ছা করে,,
,
নিলয়:::: এই তুমি হাটছো কি করে,,,তোমার না পা,,,
,
নীরা:::: তখন তো পা এ আলতা দিয়েছিলাম,,এই দেখো,, তোমার বুঝতে ভুল হয়েছে,,,
,
নিলয়:::: তখন বললেনা কেনো???
,
নীরা ঝট করে আবার নিলয়ের কোলে উঠে বসে,,,,,
,
নীরা::: বললে কি আর আমাকে তোমার কাছে আসতে দিতা বলো???
,
নিলয়:::: এটা কিন্তু মোটেই ঠিক করোনি,,,
,
নীরা:::: ওওও তার মানে তুমি চাও যে আমি পা কাটি,,, আচ্ছা ঠিক আছে,,ওয়েট,,,,
,
নীরা কোল থেকে নামতে গেলেই নিলয় জেপে ধরে,,,,
,
নিলয়:::: ওয়েট মানে কই যাবে,,,,,
,
নীরা :::: পা কাটতে,,,
,
নিলয়:::: ঠাস করে একটা থাপ্পর মেরে দেবো,,, আজাইরা কথা বলো কেনো সব সময়,,, খবরদার যদি এমন কাজ আবার করার চিন্তা মাথায় আনো,,,,
,
নীরা:::: বলবোই,,,, কি করবা হ্যা,,,
,
নিলয় কিছু না বলে নীরার পেটে হাত দিয়ে স্লাইড করতে শুরু করে,,, নীরা নিলয়ে হাতের ছোয়ায় শিহরিত হয়ে যায়,,,
,
নিলয়:::: কি করবো দেখবে,,,???
,
নীরা:::: নাহ্ ছারো তো,,,, বলেই নীরা চট করে উঠে গেলো,,,
,
নিলয়:::: এখন আর ছারতে পারবো না,,কাছে এসো
,
নীরা;;:: পারবো না,,,
,
নিলয়::: তোমাকে পারতে হবে না,, আমি নিজেই আমার জিনিস আমার কাছে আনছি,,,
,
নীরা:::: এই,,,একদম না,,, নিলয় দেখো,,, তুমি কিন্তু রাগ করে আছো আমার ওপর,, রাগ এতো তারাতারি ভাঙতে নাই,,,
,
নিলয়:::: নীর পাখি,,,,, রাগ টা তো আমার আমাকেই বুঝতে দাও,,,,
,
নিলয় নীরাকে কাছে টেনে নিয়ে নীরার ওড়না খুলে বিছানার একপাশে ফেলে দিলো,,,,,,,,
,
be continue♥♥♥

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here