অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:৪৪ 

0
447

অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:৪৪
— অন্না
,
,
,
সকালে সবাই ব্রেকফাস্ট করছে,, নীরা মাত্রই এসে চেয়ারে বসবে ঠিক তখনই নিলয় নীরাকে কোথা থেকে এসে কোলে তুলে নিয়ে বাসার বাহিরে চলে যায়,,,,
,
মামুনি ::: কি হলো ওকে নিয়ে কোথায় যাচ্ছিস?
,
নিলয় ::: বাহিরে এসো,,,,,
,
নীরা:::: আমি কি উল্টা পাল্টা কিছু করেছি আবার?
,
নিলয় কোনো কথা বললোনা চুপচাপ নীরাকে নিয়ে বাহিরে চলে আসলো, নিলয়ের মা,বাবি,তিশা সবাই নিলয়ের পিছু পিছু বেরিয়ে আসলো,,,,,
,
বাবাই:::: কি রে বাবা এতো বড় দাঁড়িপাল্লা,,, কি করবি?
,
নিলয়:::: দেখো কি করি,,,,, মানিক,,,,,,, ওই মানিক,,,,,,
,
মানিক::: জ্বি স্যার
,
নিলয়:::মিষ্টির বাক্স গুলো নিয়ে আয়,,,,
,
মামুনি :::: কিসের মিষ্টি,,, কি করবি বাবা,,
,
নিলয় নীরাকে নিয়ে গিয়ে দাঁড়িপাল্লার এক পাল্লাতে বসিয়ে দেয়,,,
,
নিলয়:::: ভালো করে এই দড়ি ধরো,,, ( নীরাকে বলে)
,
বাবাই:::: কি করতে চাচ্ছিস তুই বলবি একটু?
,
নিলয়:::: নীরার ওজনে মিষ্টি দান করবো মসজিদ এ,,,,
,
নিলয়ের কথা শুনে সবাই খুব খুসি হয়,,,,
,
নীরা তো হা হয়ে তাকিয়ে আছে নিলয়ের দিকে,,,, কারন এতোটা ভালো কেউ কাউকে বাসতে পারে তা নিলয়কে না দেখলে নীরা বুঝতেই পারতো না,,, নীরা খুসিতে কান্না করে দেয়,,,,,
,
মামুনি :::: কি রে পাগলি মেয়ে কাদছিস কেনো?? দেখ তাকিয়ে আমার ছেলেটা কতো ভালোবাসে তোকে,,,,
,
বাবাই;::: আমি খুব খুসি হয়েছি বাবা তোর এ কাজ এ,,,,
,
নীরা:::: শুনবেন একটু?
,
নিলয় নীরার কাছে এগিয়ে যায়,,,
,

 

নীরা :::: অঝথা এতো গুলো টাকা খরচ না করলে হতো না? , আমি ঠিক আছি তো,,,

,
নিলয়:::: আর একবার টাকার কথা বললে বসিয়ে দিবে একটা গালে,,,, আমি যা করছি আমার জান টার জন্য করছি,,আর এ সব আমার টাকাতে করছি তোমার শশুরের না,,, চুপচাপ বসো,,,
,
নীরা আর যেচে নিলয়ের হাতে ঝারি খেতে গেলো না,,,
মিষ্টি মাপা হয়ে গেলো,,, নীরা পাল্লা থেকে নামতে গেলে নিলয় সামনে এসে দাড়ায়,,,,
,
নিলয়:::: মানিক এই বাক্স গুলো মসজিদে দিয়ে আয়, আমি সব বলে এসেছি হুজুরের কাছে,,
,
মানিক::: জ্বি আচ্ছা,,,
,
সবাই চলে গেলো,,,কিন্তুু নীরা এখনও নামে নি পাল্লা থেকে,,, নিলয় ওর সামনে দাড়িয়ে আছে,, কিন্তুু কিছু বলছে না,,,
,
নীরা::: আমায় কোলে নিবেন?,,,, নাকি একা যাবো?
,
নিলয়:::: যান একাই যান,, আমার কোলে উঠতে তো আপনার ভালোলাগেনা তাই তো যাবার এতো তাড়া,,,,
,
নীরা::: কি জ্বালা আমি আবার কি করলাম? আপনি দেখছি আমায় সহ্য করতেই পারছেন না,, ঠিক আছে বাবা কে ফোন করে বলি আমাকে নিয়ে যাইতে,, আপনি থাকেন,,,
,
বলেই নীরা উঠে দাড়ায়,,,, আর নিলয় ধপ করে নীরাকে কোলে তুলে নেয়,,,,
,
নিলয়:::: বাপের বাড়ি যাবার কথা আবার বললে পা ভেঙে ঘরে বসিয়ে রাখবো ,, আমায় রেখে কোথাও যাবে না তুমি কোথাও না,,,,, বুঝলা?
,
নীরা :::: আম্মুর কবরের চলেন,,,,

গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন =>

 

 

 

 

,
নিলয় নীরাকে ওর মা এর কবরের কাছে নিয়ে গেলো,,, তারপর কবর যিয়ারত করে,,,
,
নীরা নিলয়ের হাত টা ধরে,,,
,
নীরা:::: আমি বেচে থাকতে আপনাকে ছেরে কখনও যাবো না,,, একমাত্র আমার লাশ টাই এবাড়ি থেকে বের হবে,,,,,,
,
নিলয়:::: তুমি আবার এ কথা বলছো?
,
নীরা:::: আমি তো কথার কথা,,,, আরে,,,,, চলে যাচ্ছেন কেনো,,,, শোনেন না,,,, , এই ছেলেটাকে নিয়ে আমি কি যে করি,,,
,
নীরা আস্তে আস্তে হেটে বাসার মধ্যে যায়,, গিয়ে নাস্তার টেবিলে বসে,,,
,
নীরা::: মামুনি তোমার ছেলে খাবেনা??
,
মামুনি ::: বললো তো খাবে না,,,
,
নীরা:::( বোঝা গেছে, আমার ওপর রাগ টা ওখন খাবারের ওপর দেখাবে,, আস্ত একটা গুন্ডা,,) ফরিদা আপা,,,,
,
ফরিদা ;;:: জ্বি আপামনি,,,
,
নীরা::: আপনার ভাই আর আমার নাস্তাটা একটু রুমে দিয়ে আসবেন?
,
ফরিদা::: হ্যা আপামনি আমি এক্ষনি দিয়ে আসছি,,,,
,
ফরিদা গিয়ে খাবার রুমে দিয়ে আসে,,, নীরা রুমে গিয়ে সোফায় বসে পরে,,, নিলয় মুখ ফুলিয়ে বেলকুনিতে চুপচাপ বসে আছে,,,, নীরা দেখছে নিলয়ের ব্যাপার,, কারন নিলয়ের এই সব রুপ নীরার কাছে খুবই অপরিচিত,,, নীরা বসে বসে হাসছে,,,,, নিলয় নীরাকে একপলক দেখে আবার মুখ ঘুরিয়ে নেয়,,,,,
,
নীরা:::: শুনছেন????
,
নিলয়::::,,,,,,,,,
,
নীরা:::: শোনেন না,,,,,
,
নিলয়::::……
,
নীরা::: আমার খুব ক্ষুধা লাগছে,, কেউ কি আমায় একটু খাইয়ে দিতে পারবে?
,
নিলয়::::,,,,,,
,
নীরা:::: না মানে হাত টা খুব ব্যাথা করছে ,,, ঠিক আছে,, খাইয়ে দিতে হবে না,,,
,
নীরা উঠে রুমের বাহিরে বের হয়ে যায়,, তখনই নিলয় গিয়ে নীরাকে আবার কোলে তুলে নিয়ে রুমে চলে আসে,,, নীরাকে সোফায় আস্তে করে বসিয়ে দিয়ে নীরার মুখের সামনে খাবার তুলে ধরে,,,,,,
,
নীরা::: আপনি আগে,,,,
,
নিলয়::: কি ভাবো হ্যা, তুমি যা চাইবে তাই হবে,, চুপচাও খাও,,,
,
নীরা;::: খাবার সময়ও বকা দিবেন?
,
নিলয় আর কিছু বলেনা নীরাকে খাইয়ে দিয়ে উঠে নিতে নিলে নীরা নিলয়ের হাত টেনে ধরে,,,,
,
নিলয়কে পাসে বসিয়ে নিয়ে নীরা নিলয়কে খাইয়ে দেয়,,,,,
,
নিলয় এখনও মুখ ফুলিয়ে বসে আছে,,,
,
ফরিদা:::: আপামনি আসবো?
,
নীরা::: হ্যা আপা আসেন,,,,
,
ফরিদা ‘::: আপনার মা এসেছেন আপনাকে নিয়ে যেতে,,, আপনাকে তৈরি হয়ে নিচে আসতে বললো,,,,
,
নীরা:::: আপনি যান আমি আসছি,,,,
,
নীরা নিলয়কে কিছু বলতে যাবে তার আগেই নিলয় রুম থেকে বেরিয়ে যায় ,,,,
,
নীরা ভেবে পায় না এখন কি করবে,,,, আস্তে আস্তে রুম থেকে বের হয়ে নিচে চলে যায়,,,,
,
নীরার মা:::: আজ তাহলে আসি আপা, আমার খুব ভালো লাগলো ওকে আমার সাথে যেতে দিলেন তাই,,, বুঝেন তো একমাত্র মেয়ে আমার,,,,
,
মামুনি :::: না ঠিক আছে,, কিনতু এই যে মেয়ে তারাতারি চলে আসবা,,, আর নিলয়। যে কয়দিন থাকবা ভালোভাবে থেকো, অফিসে যাবার দরকার নাই আমি তোর বাবাই কে বলে দিছি,,,,,
,
নিলয়;:: মামুনি আমি?
,
মামুনি :::: হ্যা উনি তোমাকে আর নীরাকে নিয়ে যেতে আসছে,,,,

,
মামুনির কথা শুনে নিলয়ের মুখে এক চিলতে হাসি ফুটে উঠে,,,, সাথে নীরার ও,,,,,
,
নীরার বাসায় গিয়ে নিলয় চুপচাপ আছে, যেনো ওকে দেখে মনেই হয় না নিলয়কে নীরা গুন্ডা নাম দিৃযেছে,,,,,
,
নীরা;::: আপনার কোনো সমস্যা হচ্ছে না তো? আমার রুম টা ছোট,, আপনি চাইলে গেস্ট রুমে,,,,,
,
নিলয়:::: আমার সাথে ঘুমাতে তোমার সমস্যা হচ্ছে তাই না? ঠিক আছে রুম দেখিয়ে দাও আমি চলে যাচ্ছি,,,,,,
,
নীরা;::: আমার সব কথা উল্টা করে ধরেন কেনো শুনি?
,
নিলয়;::: আমি ঘুমাবো,,, রুম টা দেখিয়ে দিলে ভালো হতো,,,,,
,
নীরা:::: শোনেন না,,,,
,
নিলয়:::: আমি আন্টির কাছ থেকে শুনে নিচ্ছি,,,,
,
নিলয় যেতে নিলে চট করে নীরা নিলয়কে টেনে বিছানায় ফেলেদিয়ে নিলয়ের ওপর উঠে নিলয়ের বুকে মাথা দিয়ে নিলয়কে জরিয়ে ধরে,,,,,
,
নীরা:::: যান দেখি এবার কেমন করে যান আমায় ফেলে,,,,
,
নিলয় আর কিছু বলেনা কারন ওকে ছারার কোনো ক্ষমতা নিলয়ের নাই,, কিন্তুু নীরার ওই কিছু কথা নিলয় সহ্য করতে পারে না,, এতেই নীরার ওপর নিলয়ের রাগ টা বেরে যায়,,,,
,
নীরা অনেকক্ষন নিলয়কে ওভাবে জরিয়ে শুয়ে আছে,,,, কিন্তুু নিলয়ের কোনো রেসপন্স না পেয়ে নীরা নিলয়ের ওপর থেকে উঠে আসে,,,,,
,
নীরা::: sorry,,,, ,
,
নিলয়:::: কেনো?.
,
নীরা :::: না আপনাকে ওভাবে,,,,,,,,,
,
,নিলয়:::,,,,,,
,
এর মধ্যে নীরার বান্ধবি ফোন করে,,, নীরা ফোন নিয়ে বেলকুনিতে চলে যায়,,, অনেকক্ষন নিলয় নীরার আসার কোনো খবর না পেয়ে উঠে গিয়ে নিঃ শব্দে নীরার পিছে গিয়ে দাড়ায়,, নীরা নিলয়ের উপস্থিতি টের পায় না,,, নীরা ফোনে কথা বলতে ব্যাস্ত,,, নিলয় লক্ষ করে নীরা ফুপিয়ে ফুপিয়ে কাদছে আর ফোনে কথা বলছে,,,,,
,
নীরা:::: আমার একটা হেল্প করবি?
,
>
,
নীরা:::: আমার চেহারাটা নষ্ট হয়ে গেছে,,, আমায় দেখতে এখন হয়তো আর ভালো লাগেনা,,,, মোটাও হয়ে গেছি,,, কি করা যায় বলতো?
,
,>

প্রিয় পাঠক আপনারা যদি আমাদের (গল্প পোকা ডট কম ) ওয়েব সাইটের অ্যাপ্লিকেশনটি এখনো ডাউনলোড না করে থাকেন তাহলে নিচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে এখনি গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করুন  👇👇👇👇👇👇

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.golpopoka.android

,
নীরা ::: না এমনি মনে হচ্ছে,,,, আমি দেখতে তো এমনি ভালো না তার পরে এখন আবার অসুস্থ হয়ে দেখতে খুব বাজে লাগে,,, তাই তো ও এখন আমার কাছে আসে না,, আমায় আগের মতো ভালোবাসেনা,,, রুপ না থাকলে সে আর কি কররবে বল,,, আমার ওপর রুচিটা তো থাকতে হবে,,,,,
,
নীরার কথা গুলো শুনে নিলয়ের বুকে মোচোর দিয়ে ওঠে,,,, নিলয় তখনই রুমে চলে আসে,,,,,
,
নীরা রুমে এসে দেখে নিলয় শুয়েই আছে,,,, নীরা কিছু না বলে মেঝেতে বিছানা করতে শুরু করে,,,, নীরা লাইট ওফ করে নিচে শুইতে গেলেই নিলয় নীরার হাত টেনে ধরে,,,,,,
,

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here