অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:৩৮

0
406

অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:৩৮
–অন্না
,
,
,
নীরা:::: হাহাহাহ্ দেখেন ভালোকরে দেখেন,,, সামনেই তো আছি,,,,, একটা কথা ভালো করে জেনে রাখেন নিলয়ের কাছ থেকে দুরে থাকেন,,,, ওর সামনে আমি আছি,,,,, ঢাল হয়ে,,,, সামনেযে আসবে মেরে ফেলবো একদম।,,
,
নীরা রুম থেকে বের হয়ে আসে,,,,
,
মামুনি:::: তুই ওই ওই খানে একা কি করতে গেছিলি,,,,,,
,
নীরা::: ওই একটু দেখা করতে গেছিলাম।,,
,
মামুনি :::কিসের দেখা ওত তোর হ্যা,,খবরদার একা যদি আবার ও ঘরে যাস্,,,,
,
নীরা ;;:: কেনো কি হবে? মেরে ফেলবে আমায়?
,
মামুনি :::: পাগল তুই,, একটা থাপ্পর মারবো আবার এ রকম কথা বললে,,,
,
নীরা’::: এটা কিন্তুু একদমই ঠিক না, তোমরা যখন তখন আমায় মারতে চাও,,, যখন থাকবো না তখন বুঝবা,,,,
,
এদিকে নীরা আসাতে দেরি হওয়াতে নিলয় নীরাকে খুজতে এসে মামুনির সাথে কথা বলতে দেখে আড়াল করে দাড়িয়ে ওদের কথা শুনে,,,
,
মামুনি :::: নিলয় মারে ঠিক করে,,, এত্ত পাকা পাকা কথা কিসের হ্যা,,, কোথায় যাবি আমাদের ছেরে,,, কে যেতে দিবে তোকে?
,
নীরা :::: বারে,,,, তোমরা সব সময় আমায় নিয়ে এত্ত টেনশন করো,,, যদি সত্তি সত্তি আমি মরে যাই তখন,,,,
,
নীরার কথা শুনে মামুনি রাগে নীরার দিকে তাকায়,,,
,
নীরা::::মামুনি এভাবে তাকিও না ভয় লাগে,,, আর আমি না থাকলে বা কি হবে বলো,, আমার যদি কিছু হয় তাহলে মুনিরাকে তোমার ছেলের সাথে বিয়ে দিয়ে দিবে,,, ও তোমার ছেলেকে খুব ভালোবাসে,, আর তোমাদের কেও অনেক ভালো রাখবে,,, আমি তো আর কিছু করতে পারি না বলো,,,না ভালো রান্না করতে পারি,না কোনো কাজ কর্ম পারি, আবার দেখতেও ভালো না,,, আমি তো মাঝে মাঝে ভাবি তোমার ছেলে আমাকে কেনো বিয়ে করলো,,, তোমার ছেলে তো মুনিরার মত কোনো মেয়ে ডিজার্ভ করে,,, তোমার আফসোস হয় না মামুনি???
,
তিশা:::: ভাবি,,,,,,
,
নীরা:::: তুমি চুপ করো তো,,, আমায় বলতে দাও,,, বলো তো মামুনি আমি কি মিথ্যা বলছি?
,
তিশা:::: ভাবি চুপ্ করো রে,,,
,
নীরা::: আরে তিশু এমন করছো কেনো হ্যা,,, বলো তো মামুনি আজ যদি আমি বাসা ছেরে চলে যেতাম তাহলে কি হতো? তোমার ছেলে একটু আফসেট হতো তারপর দিন দিন এমনিতেই ঠিক হয়ে যেতো,,, তারপর মুনিরাকে না হলেও ঠিক একটা সুন্দরী মেয়েকে বিয়ে করে নিয়ে চলে আসতো,,,,,,, তাই না বলো?
আমার তো বড়ই আফসোস হয় তোমার ভাই কেনো যে আমায় বিয়ে করলো কে জানে,,,,,
,
তিশা:::: ভাবি আফসোস তো তোমার এখন অবশ্যই হবে,, পিছে তাকিয়ে দেখো একবার,,,,
,
নীরা:::: কেনো কি হ,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,
,
নিলয় রাগে লাল হয়ে গেছে,, কিচ্ছু বলছে না,,,, নীরা আর সবাই ভালো ভাবেই বুঝতে পারি আজ নীরার কপালে বড় সরোই দুঃখ আছে,,,,
,
নীরা::::: আ,,,,,প,,,,,,নি??? ক,,,,খ,,,,,,ন আস,,,,,,,ছেন,?
,
নিলয় কিছু না বলে রুমে চলে গেলো,,,,
,
নীরা:::: যাহ্ বাবা কিছু শোনে নি মনে হয়,,,
,
তিশা::: নেহি ভাবিসাব a to z সুনাহে,,,,
,
নীরা::: তুমি বুঝলা কি করে???
,
তিশা:::: আমি অনেকক্ষন ধরে তোমায় বারন করছি,,, তুমি আমার কথা কানে নাও নি,,, বুঝো এবার কেমন লাগে,,,
,
নীরা::: মামুনি,,,,,
,

পোকা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন =>

 

 

 

 

মামুনি :::: আমার অনেক কাজ আছে,, এর মধ্যে আমায় টানবিনা,,, ঠিক হয়েছে,, জানিস আমার ছেলেটা এসব কথা পছন্দ করে না,, তার পরেও এসব কথা বলিস কেনো?
,
মামুনি আর তিশা তারাতারি করে চলে গেলো,,,,
,
নীরা:;;; এই তিশুর বাচ্চা,,, রাক্ষসনী,, গুন্ডার বইন এর জন্যই এটা হলো,,,, আমি এখন কি করবো? রুমে যাবো নাকি যাবো না,, যদি আমার আবার ঠাস্ ঠাস্ করে থাপ্পর মারে,,,
,
এসব ভাবতে ভাবতেই নিলয় হনহন করে বেরিয়ে গেলো বাসা থেকে নীরার দিকে একবার তাকালোও না,,,,
,
।নীরা::: যাহ্ বাবা,,, এটা কি হলো,,, গুন্ডাটা সাইলেন্ট মুডে চলে গেলো কেনো,,, সুনেছি বড় ঝড় উঠার আগে চারদিক নিস্তব্ধ হয়ে যায়,,,, না এখানে থাকা যাবে না,,,,,, কি করি,,, কি করি,,, হ্যা আমার বাসায় চলে যাই,,,,
,
নীরা মামুনির কাছে যায়,,,
,
নীরা:::: মামুনি?
,
মামুনি ‘::: বলে ফেলো,,,,
,
নীরা:::: আমি একটু বাসায় যাবো,,,
,
মামুনি ”:: তুই ভালো করেই জানিস ওর রাগ উঠলে ও কি করে,,,, বাসায় এসে তোকে না পেলে কি করবে তুই বুঝতে পারছিস? তুই চাস তোর মা,বাবার সামনে কেনো সিনক্রিয়েট হোক? না চাইলে চুপচাপ রুমে যা,,,,
,
নীরা;:;; মামুনি ও খুব রেগে আছে তো,,, আমায় আজ মেরে ফেলবে তো আসলে,,, সত্তি
,
মামুনি ‘::: কিচ্ছু হবে না,, যা আমি আছি,,,,,
,
নীরা রুমে এসে চুপচাপ বসে আছে,, নিলয়ের আসার নামে খোজ নাই,,,
,
তিশা::: ভাবি আসবো?
,
নীরা ;::; হুম
.
তিশা::: সরি ভাবি,,,
,
নীরা :::: কেনো?
,
তিশা:::: আমাকে তোমার ভালোভাবে সতর্ক করা উচিৎ ছিলো,,,
,
নীরা::: না তিশু বেবি,,,, ভুল টা আমারই,, আমি জেনে সুনে বারবার ওকে কষ্ট দেই,, আমার ওসব কথা বলা ঠিক হয়নি,,,,
,
তিশা:::: তুমি ভাইয়াকে বলছো না কেনো বলো তো যে তুমি ভাইয়াকে এত্ত ভালোবাসো,,,
,
নীরা:::: সেটা তো আমিও বুঝতে পারি না কেনো,,, বলবো খুব তারাতারি বলবো,,,,
,
তিশা:::: আমার ভাইকে এভাবে আর কষ্ট দিও না,,, অনেক ভালোবাসে ও তোমায়,, আজ তোমার কথায় ভাই অনেক কষ্ট পেয়েছে জানো?
,
নীরা:;;: কি করবো বলো?
,
তিশা;;;;; তুমি যা ভালো বুঝো করো,,,, আর তোমার শাকচুন্নি আর ওর মা পালিয়েছে,,,,
,
নীরা;::: মানে?
,
তিশা::: দুজনকে দেখলাম বাসা থেকে বেরিয়ে গেলো,,,
,
নীরা:::: এতো সহজে চলে গেলো কিছু না করে,, ব্যাপারটা হজম হলো না,,,,
,
তিশা:::: আরে বাদ দাও তো,,, আপদ বিদায় হইছে,,, তুমি ভাইয়াকে নিয়ে ভাবো,,,,,,
,
ওর মধ্যে নিলয় রুমের মধ্যে ঢুকে,,, তিশা চুপচাপ বেরিয়ে যায়,,,,,, নিলয় রুমে ঢুকেও নীরার দিকে একবার ও তাকায় না,, ওঢাসরুমে গিয়ে চেন্জ করে রুম থেকে বেরিয়ে যায়,,,, নীরা কিছুই বুঝছে না,, কারন নিলয় কখনও নীরার সাথে রাগ করে কথা না বলে থাকে নি,,,
,
নীরা পুরা বাড়ি নিলয়কে খুজে পায় না,, পরো ছাদে গিয়ে দেখে নিলয় একটা মাদুর পেতে হাত মাথার নিচে দিয়ে টান হয়ে শুয়ে আকাশের দিকে তাকিয়ে আছে,,, নীরা কোনো আওয়াজ করে না,, চুপচাপ দারিয়ে নিলয়কে দেখতে থাকে,,, কিন্তুু নিলয় নীরার অস্তিত্ব বাতাসের মধ্যে পেয়ে যায়,,, নীরার শরীরের গন্ধে,,,, নিলয় মাথা তুলে নীরার দিকে এক পলক তাকিয়ে আবার আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকে,,,,
,
নীরা খুব ভালোভাবেই বুঝতে পারে নিলয় খুব কষ্ট পেয়েছে আজ ওর কথায়,,, কিন্তু নীরা এটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না যে নিলয় ওর সাথে কথা বলছে না,,,,
,
নীরা চুপচাপ গিয়ে নিলয়ের পাশে বসে,,, নিলয় তখনই ধুপ করে উঠে নিচে চলে যায়,,,, নীরা ঠায় বসে নিলয়ের যাবার দিকে তাকিয়ে থাকে,,,, নীরা ভাবতেও পারেনি নিলয় এভাবে উঠে চলে যাবে,,,, নীরা কিচ্ছু বললোনা,,, কারন এটা ওর প্রাপ্য,,, লেবু বেশি চিপলে তিতা হবেই,,, নীরা নিলয়কে বড্ড ভালোবাসে,, কিন্তুু নীরার মধ্যে একটা ইগো কাজ করছে,,, ও কিছুতেই নিলয়কে ভালোবাসার কথা মুখ খুলে বলতে পারছে না,,,,, কিন্তুু নিলয় যে এভাবে ওকে ইগনোর করছে নীরা বেশ কষ্টই পাচ্ছে,,,, নীরা চুপচাপ বসে রইলো ছাদে,,,,,
,
অনেকক্ষন পরে নীরা নিচে নেমে এলো,,,

পোকা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন =>

 

 

 

 

,
মামুনি :::: কি রে এতসময় কই ছিলিস? খাবি না বস,,, সবাই বসে আছে তোর জন্য,,,
,
নীরা একনজর তাকিয়ে দেখে নিলয় খাবার টেবিলে বসে আছে,,,
,
নীরা:::( আজ আমায় রেখেই খেতে বসলে.ঠিক আছে) মামুনি আমার শরীর টা ভালো লাগছে না,,, আমি পরে খেয়ে নিবো,,,তোমরা খেয়ে নাও,,,,
,
মামুনি ::: সে কি রে শরীর খারাপ মানে জ্বর আসে নি তো?
,
নীরা::: না মামুনি তেমন কিছু না,,, আমি ঠিক আছি,,,,
,
নীরা রুমে না গিয়ে আবার ছাদে গিয়ে দোলনায় বসে পরলো,,, এদিকে নিলয় নীরার কথা শুনে না খেয়ে উঠে পরলো ,,,
,
মামুনি কিছু বললো না, কারন উনি ভালো করেই বুঝতে পারলো ঘটনা কি,,,,
,নিলয় রুমে গিয়ে বসে পরে,,,,
,
নিলয়:::: কি পাইছে কি ও,,,, কি ভাবে আমায়,,, যা ইচ্ছা তাই করবে, যা ইচ্ছা তাই বলবে,,, একটাবার আমার কথা মনে পরে না তোমার,,, একবার ও মনে পরে না একটা মামুষ ওর জন্য পাগলের মতো ওর জন্য ব্যকুল হয়ে থাকে,, আর ও ওন্য কোনো মেয়েকে আমার পাসে কল্পনা করে,,,, যা ইচ্ছা করো,,, আমার থেকে দুরে থাকতে কেমন লাগে তোমার দেখি,,,,, দেখি আমার থেকে দুরে তুমি কি করে থাকতে পারো,,,, অন্য মেয়েকে আমার সাথে কল্পনা করো,,, নিজে মরার কথা কল্পনা করো,,, ঠিক আছে আমিও দেখছি,,, এতোদিন নিলয়ের রাগ,পাগলামো দেখেছো,, অবহেলা কি করে সহ্য করো দেখি,,,,, নিজের অধিকার নিজে আদায় করো কি না সেটা আমিও দেখছি,,,,,
,
,
নীরা অনেকক্ষন বসে থেকে থেকে রুমে চলে আসলো,,,, এসে দেখে নিলয় সোফায় ঘুমিয়ে আছে,,, এটা দেখে নীরা হালকা একটা শক খায়,, কারন যে মানুষটা নীরার কোল ছারা ঘুমায় না আজ সেই নীরার কাছ থেকে আলাদে শোবার ব্যবস্থা করছে,,,,নীরার চোখ থেকে অজান্তেই দু ফোটা পানি গড়িয়ে পরলো,,,, নীরা চুপ করে রুম থেকে বেরিয়ে গেলো,,, ড্রয়িংরুমে গড়িয়ে সোফায় হেলান দিয়ে ফ্লোরে বসে পরলো,,,
,
শেষ রাতে নিলয়ের ঘুম ভাঙলে নীরার কথা মনে পরতেই ধরফর করে উঠে বসে,, নীরার ওপর রাগ করেই সোফায়সুয়ে পরে, কিন্তুু কখন যে ঘুমিয়ে পরে বুঝতে পারে না,, , বিছানার দিকে তাকিয়ে দেখে নীরা নাই,,, নিলয় ধরফর করে উঠে নীরাকে খুজতে লাগলো,,, ড্রয়িংরুমে গিয়ে নীরাকে দেখতে পেয়ে একটা স্বস্তির নিশ্বাস নিয়ে নীরার দিকে এগিয়ে গিয়ে দেখে নীরা ফ্লোরে গুটিশুটি মেরে শুয়ে আছে,,,,
,
নিলয়::::এই মেয়ে কি সুখ পাও আমায় এভাবে কষ্ট দিয়ে, না নিজে ভালো আছো না আমাায় ভালো রাখছো,,, দেখছো তো আমি রাগ করে আছি,, আমার রাগ টা কি ভাঙানো যায় না,,, আমার রাগ না ভাঙিয়ে উল্টো আমার ওপর রাগ করো,, আবার আমাকে একা রেখে এখানে এসে এভাবে ঘুমিয়েছো? খুব সাহস না?
,
আস্তে আস্তে কথা বলে নিলয় নীরার কপালে চুমু দিয়ে কোলে তুলে নেয়,,,,
,
বিছানায় শুইয়ে দিয়ে নীরার ঠোটে আলতো করে একটা পরশ দিয়ে নীরাকে আলতো করে জরিয়ে শুয়ে পরলো,,,,,
,
নীরা সকালে উঠে নিজেকে বিছানায় দেখতে পেলো, নীরা খুব খুশি হয়ে যায়, কারন নিলয় ওকে এখানে নিয়ে এসেছে,,, , , কিন্তুু নিলয়কে কোথাও পেলো না,, নীরার মন নিমিশেই খারাপ হয়ে যায়,,,,
,
নীরা সারাটা দিন নিলয়ের ফোনের জন্য অপেক্ষা করতে থাকে, কিন্তু নিলয় ফোন দেয় না,,, এদিকে নিলয় ভাবে নীরা যেনো ওকে ফোন দেয়,,,,,,,
,
তিশা::: ভাবি,,,,,,
,
নীরা::; হ্যা
,
তিশা:::: ভাইয়া আমাকে ফোন দিছিলো,,, বললো আসতে রাত হবে,,,
,
নীরা:::: হুম
,
তিশা:::: ভাবি,,,,,,
,
নীরা:::: আমি একা থাকতে চাই,,,
,
তিশা আর কিছু বললো না চলে গেলো,,, নীরা কিছু একটা ভেবে বাসা থেকে বেরিয়ে গেলো,,,,,
,
নিলয় রাতে বাসায় এসে নীরাকে দেখতে পায় না,,, ড্রয়িংরুমে আসে খুজতে,,
,
মামুনি ‘::: নীরা বাবার বাসায় গেছে,,, কিছুদিন থাকবে ওখানে,,,,
,
নিলয়:::: বলে বাসা থেকে গেছে?
,
মামুনি :::: না, কখন যে গেছে জানিনা,,,, ফোন দিয়ে বললো ও ওখানে চলে গেছে,,,,
,
মামুনির কথা শুনে নিলয়ের রাগ উঠে যায়, গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে পরে,,, নীরার বাসার সামনে এসে গাড়ি দাড় করিয়ে নীরার ফোনে একটা এস এম এস করে,,,,
,
নীরা ওর বাসায় এসে কাউকে কিছু বুঝতে দেয় না, সবার সাথে হাসি মুখে কথা বলে নিজের রুমে এসে ফোনটা হাতে নিয়ে শুয়ে থাকে,,, ফোন টা নিয়ে নিলয়ের কলের অপেক্ষা করতে থাকে,,, যদি নিলয় ফোন করে,,,, কিন্তুু না নিলয় ফোন করে না,, নীরা কান্না করতে থাকে,,,, এর মধ্যে নীরার ফোনে ম্যাসেজ টোন বেজে উঠে,,, ম্যাসেজ টা ওপেন করে দেখে নিলয়ের ম্যাসেজ,,,,,
,
:- ame gari niye bahire aci, 2 minit ar moddhe jodi ase garite na bosa hoy to aj ami ki j korbo ami nije o jani na,,,,,,
,
নীরা ম্যাসেজ টা পরেই দৌড়,,,,,,,
,

প্রিয় পাঠক আপনারা যদি আমাদের (গল্প পোকা ডট কম ) ওয়েব সাইটের অ্যাপ্লিকেশনটি এখনো ডাউনলোড না করে থাকেন তাহলে নিচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে এখনি গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করুন  👇👇👇👇👇👇

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.golpopoka.android

continue

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here