অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:- ২৪

0
452

অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:- ২৪
—-অন্না
,
নিলয় নীরার বান্ধবির বাড়ি চলে যায়,, গিয়ে সেখানে নীরাকে কোথাও খুজে পায় না,,, তাই চলে আসতে নিলে দেখে একটা মেয়েকে ঘিরে ওনেকজন বসে আসে সম্ভবতো মেহেদি দিতে,,,,,,,,
,
নিলয় মেয়েটির দিকে তাকিয়ে ওর মুখ দেখার চেষ্টা করে কিন্তুু দেখতে পাচ্ছে না, আর শাড়ি টাও নিলয়ের চেনা চেনা লাগছে,কিন্তুু মেয়েটাকে এখনও দেখতে পাচ্ছে না ,, চুল দিয়ে মেয়েটার মুখ পুরা ঢেকে আছে,,,, মেয়েটা সবার হাতে মেহেদী দিয়ে দিচ্ছে,,,,, এর মধ্যেই তিশা এসে নিলয় কে ভাইয়া বলে ডেকে নিলয় মেয়েটির দিকে তাকিয়ে ওর মুখ দেখার চেষ্টা করে কিন্তুু দেখতে পাচ্ছে না, আর শাড়ি টাও নিলয়ের চেনা চেনা লাগছে,কিন্তুু মেয়েটাকে এখনও দেখতে পাচ্ছে না ,, চুল দিয়ে মেয়েটার মুখ পুরা ঢেকে আছে,,,, মেয়েটা সবার হাতে মেহেদী দিয়ে দিচ্ছে,,,,, এর মধ্যেই তিশা এসে নিলয় কে ভাইয়া বলে ডেকে উঠে,,,,
,
তিশা::::: ভাইয়া তুই এখানে?
,
নিলয়::: নীরা কই,
,
তিশা:::: ওইযে সবার হাতে মেহেদী দিচ্ছে
,
নিলয় :::: ওইটা নীরা???
,
তিশা:::: পুরা বিয়ে বাড়ি ঘুরে আসো তো ভাবির মত সুন্দরী কাউকে পাও নাকি,,,,
,
নিলয়:::: মানে আমি কি এখানে মেয়ে দেখতে আসছি???
,
তিশা;;;তা কেনো? তুই তো এসেছিস ভাবির কলিজা ধরে টানতে,,,, তা ভাবিকে দেখেছিস?
,
নিলয়:::: দেখতে পারলাম কই,,
,
তিশা::: দারা,,,,, ভাবি,,,,,,,,,,,,,,,
,
নীরা তিশার ডাক মুখ তুলে তাকিয়ে দেখে নিলয় ওর সামনে দাড়িয়ে আছে,, নীরা নিলয়কে দেখে তারাতারি দাড়িয়ে যায়,,,, নিলয় নীরাকে দেখে পুরাই ফিদা হয়ে যায়,,,, কারন নীরাকে দেখতে আজ খুবই সুন্দর লাগছিলো,,, নীরা আজ লাল আর হলুদ মিক্স করা শাড়ি পরেছে,হালকা মেকাপ করে,চোখে গাড় কাজল,কপালে লাল টিপ,ঠোটে গাড় লিপস্টিক,হাত ভর্তি লাল চুড়ি,হালকা ওজনের ম্যাচিং কানের দুল,গলায় হালকা হার,,,, আর চুল গুলো ছেরে দিছে,,,,, নীরাকে দেখছে তো দেখতেই আছে,,,, চোখের পলক ও পরছে না,,,,, আর সবথেকে বড় কথা নীরা যে শাড়িটা পরে আছে সেটা নিলয় গতকাল রাতে এনে লুকিয়ে রেখেছিলো নীরাকে সারপ্রাইজ দিবে বলে,কিন্তুু আজ নীরাকে দেখে নিজেই সারপ্রাইজ হয়ে গেছে,,,,
,
এদিকে নীরাও নিলয়ের দিকে হ্যাবলার মতো তাকিয়ে আছে,, কারন এ রুপে নিলয়কে আগে কখনও দেখা হয়নি,,
নিলয় ও কিছু কম যায় না,, ওই ও আজ হলুদ আর লাল মিক্স এর পান্জাবি পরেছে,,পান্জাবি হাতার কাছে কিছুটা গুজে নিছে,,হাতে মোটা একটা সর্নের বেসলেট, গলায় একটা চেইন ,, চুলগুলো হাত দিয়ে উপরের দিকে তুলে দিছে,,, যার কারনে সামনের চুল বড় হওয়ায় কপালে কিছুটা চুল এসে নাচানাচি করছে,,আর চেখে সানগ্লাস,,,উফস্ যে কোনো মেয়ে এক দেখাতেই পাগল হয়ে যাবে,,,
, ,নীরার শাড়ি আর নিলয়ের পান্জাবির ডিজাইন একই রকম,,, যাই হোক তিশা এসে দুজনার ধ্যান ভাঙ্গে,,,,
,
তিশা::::: এহেম,,, এহেম,,,,, স্যার ম্যাম এটা তো বাড়ি নয় যে এভাবে সবার সামনে একে ওপরকে,,,,,,
,
তিশার কথায় নীরার হুস ফিরে,,,, ও তারাতারি করে বসে নিজের কাজে ব্যস্ত হয়ে পরে,,,, আর নিলয় একটা চেয়ার টেনে নীরার সামনে বসে পরে,,,,
,
নিলয়:::::(এই মেয়েটা এতো কিউট কেনো,, বুঝেনা কেনো এভাবে আমার সামনে দাড়ালে নিজেকে কন্ট্রোল করতে খুব কষ্ট হয়,,, কি ভাবে নিজরকে ও,আমাকে না বলে এভাবে সেজে চলে আসবে আর আমি ওকে ছেরে দিবে , চলো আজ বাসায় হচ্ছে তোমার,,,, )
,
এর মধ্যে নিলয়ের কিছু বন্ধু আসে,,, নীরার বান্ধবির বড় ভাই নিলয়ের ক্লোজ ফ্রেন্ড,,, কিন্তুু নীরা এটা জানে না,,,,,
,
এদের মধ্যে একজন বলে উঠে,,,
,
> কি রে মামা এখানে একা একা বসে কি করতাছো??? শালা বউ পাইয়া তো আমাগো ভুইলাই গেলা,,,,
,
নিলয়:::: ধুর মামমা কি বল তোমাদের তাই ভোলা যায়,,, এখানে খুব ইম্পর্টান্স কাজ করতাছি,,,,,
> তাই না,,, তো কি করতাছো আমাগো বলো একটু শুনি,,,,
,
নিলয়::: আরে মামমা নিজের প্রপার্টি পাহারা দিতাছি,,,
,
> আরে ব্যাটা এখানে আবার কোন প্রপার্টি পাইলা?
,
নিলয় ইশারায় নীরাকে দেখিয়ে দেয়,,,, নিলয়ের বন্ধুরা নীরার আর নিলয়ের ব্যপার সবটাই জানে ,,, সবাই চিল্লায় ওঠে,,,
,
> তাই তো বলি মামমা আমার ঘরের পোলা কেমনে হইয়া গেলো,,, তা ট্রিট কবে দিতাছিস তাই বল আগে,,,,
,
নিলয়’:::: আরে ব্যাট সময় হইলে পাবি,,, এখন যা তো তোরা এখান থেকে,,, আমি ঠিক মত পাহারা দিতে পারছি না,,,,
,
<> এখন তো কইবাই মামা,,, তোমার ই দিন,লও মজা লও,,,,তো কোনো দরকার হইলে বলিও,,,আমরাও পাহারা দিয়া দিমুনে,,,,
,
,
ওরা চলে যেতেই নিলয় দেখলো নীরা ওখানে নাই,,, নিলয় হন্নে হয়ে নীরাকে খুজতে শুরু করলো,,,, পরে নিলয় নীরাকে একটা ছেলের সাথে কথা বলতে দেখে,,, নিলয় কিছু বলতে যাবে ঠিক তখনই তিশা এসে নিলয়ের হাত ধরে,,,
.
তিশা:::: ভাইয়া নিজেকে কন্ট্রোল কর,,, এখানে কোনো সিনক্রিয়েট করিস না,,,,
,
নিলয় গিয়ে রেগে চেয়ার টেনে একপাশে বসে পরে,,,,,
,
এর মধ্যে একটা মেয়ে এসে নিলয়ের পাশে বসে পরে,,,, নীরা ব্যপার টা ফলো করে এমনি কাজের বাহানায় ওদের আগেপিছে ঘুরতে থাকে,,,,
,
মেয়েটা ;::: হায় আমি সোনিয়া,,,,
,
নিলয়::: হ্যালো আমি নিলয়,,,
,
সোনিয়া ::::: আপনাকে একা একা বসে থাকতে দেখে আপনার সাথে পরিচিত হতে আসলাম,,, বাই দা ওয়ে,,, আপনি মেয়ের কে হন?
,
নিলয়::: মেয়ের ভাইয়ের ফ্রেন্ড,,,,
,

গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন =>

 

 

 

 

সোনিয়া :::: ওহ্ আমি তো মেয়ের কাজিন,,, তো আপনি কি করেন,পড়াশোনা নাকি জব?
,
নিলয়:::: বাবার অফিস দেখাশোনা করি মাত্র,,
,
সোনিয়া :::: বাহু খুব ভালো তো ,,, আমি বিবিএ পরছি,,,
,
নিলয়:হুম,,, আচ্ছা আপনি থাকেন আমি ঘুরে আসি,,
সোনিয়া :::: আরে কই যাচ্ছেন বসেন না আর একটু (
,নিলয়ের হাত টেনে বসিয়ে দেয়,,, নীরার ঘুরে ঘুরে এসব দেখছে আর রাগে কটমট করছে,,,
,
সোনিয়া ::;; ইফ ইউ ডোন্ট মাইন্ড একটা প্রশ্ন করি?
,
নিলয়:::: জ্বি করেন,,,
,
সোনিয়া::: আপনার কি জিএফ আছে,,,,
,
নিলয়:::: না জিএফ নাই,, কারন,,,
,
সোনিয়া ;;:: কারন আপনি মেয়েদের থেকে দুরে থাকতে পছন্দ করেন তাই না?
,
নিলয়:::: আরে আমার কথা টা শুনুন,,,সেটা নয় আসলে,,,,
,
সোনিয়া :::: আসলে নকলে বাদ দিন তো,, আপনার নাম্বার টা দিন তো,,,
,
নিলয়::: আমার নাম্বার কেনো?
,
সোনিয়া ::: এমনি আরকি,, মাঝে মাঝে কথা বলবো আরকি,,,,
,
নিলয়”::: ওহ্ আমি তো তেমন কারো সাথে ফোনে কথা বলি না,,,
.
সোনিয়া :::: হাউ সুইট,,,, নো প্রবলেম আমার সাথে বলবেন,,, আমি সিন্গেল তো,,,,,
,
,
নিলয়:::: অহ্ ভালো তো,,,, ( কি জালায়,পরলাম আল্লাহ্ বাচাও)
,,
সোনিয়া ;::: আচ্ছা আপনি কি খেত পছন্দ করেন??
,
নিলয়::::: জ্বি আমায় ডাকছে আমি একটু আসছি,,,,
,
সোনিয়া এবারও নিলয়ের হাত ধরে টেনে বসালো আর হাত জরিয়ে বসে থাকলো,,,নিলয় হাত ছারাবার চেষ্টা করে কিন্তুু মেয়েটা হাত ছারেই না,,,,
,
নিলয়:::::( আল্লাহ্ এরে কই থেকে আমার সামনে টপকে দিলে এদিকে ওনেক্ষন হলো আমার পাখিটারে দেখতে পাচ্ছি না)
,
সোনিয়া ;::: এই নিলয়,,,,
,
নিলয়’:::: হ্যা বলেন,,,
,
সোনিয়া :::: আপনি মিষ্টি খেতে পছন্দ করেন???
,
নিলয়’:::: হ্যা করি তো,,,,
,
সোনিয়া :::: চলেন আপনাকে আজ বিয়ে বাড়ির বেষ্ট মিষ্টি খাওয়াবো,,,,
,
এই কথা শুনে নীরার রাগ চরমে উঠে যায় এক প্লেট মিষ্টি এনে নিলয়ের সামনে দারায়,,,,, তারপর এক হাত দিয়ে ঝটকা মেরে নিলয়ের হাত থেকে সোনিয়ার হাত সরিয়ে দেয়,,, সোনিয়া কিছু বলতে যাব। ঠিক তখনই নীরা একটা চমচম মিষ্টি নিয়ে সোনিয়ার মুখে ঢুকিয়ে দেয়,,,
,
নীরা:::: মিষ্টি কষ্ট করে গিয়ে খাইতে হবে কেনো খান এইটাই বিয়ে বাড়ির বেষ্ট মিষ্টি,,,
,
বলেই আরো একটা মিষ্টি সোনিয়ার মুখে ঠেসে ঠেসে ঢুকিয়ে দেয়,,,,
,
নীরা:::: আর একটা কথা হি ইজ মাই হাসবেন্ড ওকে দুরে থাকো ওর থেকে,,,,
,
নিলয় বোকার মত নীরার কাজকর্ম দেখছে,,, নীরা নিলয়ের হাত ধরে টানতে টানতে ফাকা রুমে নিয়ে গেলো,,,,
,
নিলয় কিছু বলতে যাবে তার আগেই নীরা নিলয়কে জরিয়ে নিলয়ের পা এর পাতার ওপর ভর করে উচু হয়ে আচমকাই,,,,,

প্রিয় পাঠক আপনারা যদি আমাদের (গল্প পোকা ডট কম ) ওয়েব সাইটের অ্যাপ্লিকেশনটি এখনো ডাউনলোড না করে থাকেন তাহলে নিচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে এখনি গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করুন  👇👇👇👇👇👇

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.golpopoka.android

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here