অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:- ৬

0
677

অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব:- ৬
__অন্না
,
নীরার কথা শোনার সাথে সাথেই নিলয় নীরার চুলের মধ্যে হাত দিয়ে চুল মুঠো করে ধরে নীরার ঠোটে,গলায় পাগলের মতো কামড়াতে থাকে,,,,, নীরা সহ্য করতে না পেরে নিলয় কে ধাক্কা মেরে বিছানার অপরপাশে ফেলে দেয়,,,,
,
নীরা:::: আপনার মত এত্ত নীচ মানুষ আমি জীবনে দেখিনি,, আপনার চাওয়া এটাই তো আমার শরীর??? ( বুক থেকে আচল সরিয়ে) নিন সব ইচ্ছা পুর্ন করে নিন,, আমি আর আপনার এই ভালোবাসা নামক টর্চার নিতে পারছি না,
,
নিলয় নীরার কাছে গিয়ে আচল টা তুলে দেয়,,,
,
নিলয়:::: নীর পাখি তুমি অন্তত আমায় ভুল বুঝনা, আমি সারাজীবন তোমার টাচ না করে থাকতে পারবো কিন্তুু তোমাকে ছারা আমি থাকতে পারবো না, আমি যা করছি তোমাকে ভালোবেসেই করছি ,,
,
নীরা:::: কোনটাকে ভালোবাসা বলেন আপনি? ভয় দেখিয়ে একটা মেয়েকে বিয়ে করে নেওয়া,,জোর করে তাকে আটকে রেখে ভালোবাসা নামক টর্চার করা? এর নাম যদি ভালোবাসা হয় তো এমন ভালোবাসা আমি চাই না,,,
,
নিলয়:::: নীর তুমি শুধু আমায় ভালোবাসো, কথা দিচ্ছি তোমায় আঙুলের টোকাও দিবো না কখনও দিবো না, তুমি শুধু আমার কথা মতো চলো,,, বিয়ে হয়ে গেছে আমাদের,,,, তুমি এখন আমার স্ত্রী,,,
,
নীরা:::: ওহ্ আমি তো আপনার স্ত্রী,,, ভুলেই তো গেছিলাম , তো আমাকে এখানে কেনো লুকিয়ে রাখছেন? নিজের বাসায় কেনো নিয়ে জাননি? সবার সামনে কেনো নিচ্ছেন না? আগে স্বামীর দায়িত্ব পালন করেন তার পর স্বামীগিরী ফলাতে আসবেন,,
,
নীলয় নীরার কথা গুলো শুনে রুমের একটা চেয়ার সজোরে মেঝেতে বারি দিয়ে রুম থেকে বের হয়ে গেলে,,, আর নীরা ডুকরে কেদে উঠে,,,,
,
নীরা::: আমার সাথে কেনো এমন হলো,আমি তো এমনটা চাই নি, আজ আপনার জন্য আমার মা,বাবার কাছে আমি মৃত, আমি আপনাকে কনোদিন ও মাফ করবোনা,,, যেদিনই হোক আপনার কাছ থেকে আমি পালাবোই,,, এমন অবস্থা করবো যাতে আপনি আমায় নিজে ছেরে দিবেন,, আমি কখনও একটা গুন্ডাকে নিজের স্বামী হিসাবে মেনে নিবো না,,,,, কখনও না,,,,,
,
সকাল এ নীরার ঘুম ভাঙলো অনেক দেরিতে,,,, তাকিয়ে দেখে নিলয় ওর পা এর কাছে বসে কিছু একটা করছে,,,
,
নীরা::: কি করছেন আপনি???
,
নীলয়::: ভয় পেওনা নীর পাখি,,,, তোমার পা এর নখ গুলা খুব সুন্দর ওদের একটু রাঙিয়ে দিলাম,,, নেইলপালিস দিয়ে,,,দেখো খুব সুন্দর লাগছে পাদুটো,,,,
,
নীরা হাসবে, নাকি রাগ করবে কিছু বুঝতে পারছে না, রাতে এতো কিছু হলো আর এখন যেমন করছে যেনো কিছুই হয় নাই,,,নীরা চারদিকে তাকিয়ে দেখলো এটা সেই রুম না যে রুমে কাল ছিলো,,,,
,
নীরা :::; এটা কোন রুম, এটা তো সেই রুম না যে রুমে,,,
,
নিলয়:::: এটা তোমার শ্বশুর বাড়ি নীর পাখি,,,
,
নীরা:::: মানেহ্???
,
নিলয়:::: কাল যখন তুমি ঘুমিয়ে পরছিলে তখন তোমাকে আমি এ বাড়িতে এনেছি,,, বিয়ে করেছি তোমায় লুকিয়ে রাখার জন্য নয়,,,
,
তিশা::::: good morning guyes! এই নাও তোমাদের চা,,,ভাবি ঘুম কেমন হলো???
,
নীরা::: তুমি???
,
তিশা’::: আমি তিশা তোমার একমাত্র ননদ,,
,

নীরা “::::: ওহ্ ,,
,
নিলয়::: থাক আর পাকামো করতে হবে না,, যাও নিজের কাজ এ , বাবা কোথায়???
,
তিশা::: কেনো আমি থাকলে কি কোনো সমস্যা,,, বাবাই তো সকালেই বেরিয়ে গেছে আর সন্ধ্যায় তোমাকে বাসায় থাকতে বলছে,,, জরুরী কথা বলবে,,,,
,
নীরা:::; কাল আপনি আমাকে কি ভাবে এনেছেন???
,
তিশা::: কি করে আবার কোলে তুলে,,, যানো ভাবি কাল ভাইয়া তোমায় কোলে করে সবার সামনে বাসায় নিয়ে আসছে,,, আর বাবাই কে কি বলছে জানো??
,
নীরা::: কি???
,
তিশা::: এহেম এহেম,,,,
,,,,,, ( বাবা আমি নীরাকে বিয়ে করেছি,, ওর মা,বাবা কেউ আমাদের বিয়ে টা মেনে নেয় নি),,
.
বাবাই:::( মেয়েটা কি নিজের ইচ্ছায় তোমাকে বিয়ে করছে?)
,
,,,,, তোমার কি মনে হয় জোর করে বিয়ে করছি???
,
বাবাই::: সেটাই কি সত্তি নয়? মেয়েটাকে দেখেই তো বোঝা যাচ্ছে ওর ওপর কেমন টর্চার গেছে,,,
,
,,,,,, অঝথা কথা বলতে ভালো লাগছে না, তুমি মেনে না নিলে বলো চলে যাচ্ছি,,,
,
বাবাই::: একদম বারাবারি করবা না। নিজের ইচ্ছামতো যা ইচ্ছা করছো,,, কি ভাবো নিজেকে??? এ নিয়ে কাল কথা হবে,,, ওকে নিয়ে ঘরে যাও,,,,
,
নীরা:::: এত্ত কিছু হয়ে গেলো আর আমি কিচ্ছু যানলাম না,
,
তিশা::: জানবা কি করে তুমি তো ভাইয়ের কোলে sleeping sleeping,,,,,,
,
নিলয় এর মা::: কিরে তোকে কি কাজে পাঠালাম আর তুই কি করছিস???
,
তিশা:::: মামুনি একদম মনে নাই ,,,
,
নিলয়ের মা ::: ঠিক আছে,,, তোমরা নাস্তা করে নাও এসো,,,
,
নিলয়::: সেটা আপনাকে ভাবতে হবে না, আমরা বাহিরে নাস্তা করে নিবো,,,
,
নীলয়ের মা আর বোন নিলয়ের কথা মন খারাপ শুনে চলে যেতে লাগলো,,
,
নীরা:::: আন্টি আমার খুব ক্ষুধা লাগছে আর গোসল ও করবো আমায় আপনার একটা শাড়ি দিবেন???
,
নিলয়:::: নীর তোমার ক্ষুধা লাগছে আমায় বলো নি কেনো??? আমি এক্ষুনি খাবার আনিয়ে দিচ্ছি,,
,
নীরা:::: আমি আন্টির বানানো খাবারই খাবো আপনার খাইতে হলে বাহিরের খাবার খান,
,
বলেই নীরা ওদের সাথে চলে যায়, নিলয়ের উত্তরের অপেক্ষা না করে,,,, নীরা ভালো করেই যানে যে থেমে থাকলেই নিলয় কোনো না কোনো ব্যঘরা দিবে,,,,,,
,
নিলয়ের মা ::: মা তুমি কোন শাড়িটা পরবে এখান থেকে পছন্দ করে নাও,,,
,
নীরা:::: আন্টি আমি আপনার পায়ে পরছি আমায় এখান থেকে বের করে দিন,,,,
,
নিলয়ের মা::: আরে আরে কি করছো উঠো,উঠো বলছি ,,,
,
নীরা::: আমি আপনার ছেলেকে বিয়ে করতে চাইনি, ও আমায় জোর করে বিয়ে করছে,, বিশ্বাস করুন আমি ওকে ভালোবাসিনা,,, ও ভালোবাসার মুল্যই বোঝে না,,, ,
,
নিলয়ের মা::: এমন করে বলোনা,জানোতো ওর মা মারা জাবার পর ছেলেটা একা থাকতে থাকতে বড্ড জেদী হয়ে গেছে ,,
,
নীরা::;: তাহলে আপনি???
,
নিলয়ের মা::: হ্যা তুমি যা ভাবছো তাই, ওর মা মারা জাবার পর আমায় ওর বাবা বিয়ে করে আনে ওকে দেখাশুনা করার জন্য,,, জানো আমায় দেখার পর আমার কোলে এসে জরিয়ে ধরে মা,মা বলে কত্ত্ কান্না করছে আমায় ছেরে এক মুহুর্ত থাকতো না,,, আমিও যদি ওরে ছেরে চলে যাই সেই ভয়ে,,, ভালই যাচ্ছিলো আমাদের তিনজনের সংসার, কিন্তুু তোমার ফুফু শাশুরি নিলয়ের ছোট্ট মনটাকে আমার বিরুদ্ধে এমন ভাবে বিষিয়ে দেয় যে আমায় মা বলে ডাকে না,, এই নিয়ে ওর বাবা কিছু বললে খাওয়া দাওয়া ছেরে দিতো,,,, ওর ফুফু বলছে আমি নাকি ওর বাবাকে ওর থেকে কেরে নিব,,, ভাবছিলাম ও বরো হলে ঠিক হয়ে যাবে,,, কিন্তুু ও একটু একটু করে বড় হবার সাথে একটু একটু করে দুরে চলে গেছে,,, এ বাড়িতে থাকে না ও, তিশার সাথে দেখা করতে মাঝে মাঝে এ বারিতে আসে, কাল তোকে ওর কোলে দেখেই বুঝেছি ও পাগলের মতো তোকে ভালোবাসে,,,, মা রে ( নীরার হাত ধরে) তুই পারবি আমার ছেলেটাকে স্বাভাবিক করে তুলতে,,, আবার এ বারিতে একসাথে আনন্দে থাকতে,,, আমায় মা বলে ডাকাতে,,,, আমার ছেলেটা খারাপ না তুই যটতা ভাবিস,,, ওকে একটু মন থেকে বোঝার চেষ্ট কর তুই অসুখি হবি না,,,,
,
নীরা ::;; এটা কোনোদিনও সম্ভব না আন্টি আমায় মাফ করবেন,,,,
,
বলেই নীরা একটা শাড়ি নিয়ে বাথরুমে চলে গেলো,,,
,
খাবার টেবিল এ বসে তিশা চিল্লাচ্ছে,,,,
,
তিশা::;; ভাই,,,,,,,,, এ ভাই,,,,,, আয় না একসাথে খাই,,,,
মামুনি বাবাই কে খুব মিস করছি,নাস্তা না করেই চলে গেলো,,
,
নিলয়ের মা:::: একা হাত এ সব সামলায়,,, জরুরি মিটিং আছে তাই চলে গেছে অফিসে নাস্তা করে নিবে,,,,
,
নীরা :::: আন্টি আপনার ছেলে কোনো কাজ করে না???
,
নিলয়ের মা::: ওর বাবা তো আছেই ওর কাজ করার দরকার কি??
,
নীরা:::: দাড়ান আপনার ছেলের বারোটা বাজাচ্ছি,,,
,
নিলয় তিশার চিল্লানি শুনে বাহিরে এসে দেখে নীরা ড্রয়িং রুমে বসে নিলয়ের আসার দিকে তাকিয়ে আছে,,,, আর ওর চুল থেকে টপটপ করে পানি পরছে,,,, নিলয় তো ওর দিকে তাকিয়েই আছে,,,,
,
নীরা:::: দেখা হয়ে গেছে?? আমি খাবো কি???
,
নিলয়::: কেনো খাবার কি কম পরছে??? খাবার টেবিল এ তো কত্ত কিছু,,, ওর এগুলা খাবে না? বাহিরে থেকে আনিয়ে দিবো? তুমি তো বললে,,,,
,
নীরা::: বিয়ে করলেই কি স্বামী হওয়া যায়?? স্ত্রীর ভরণ পোষনের দাঢিত্ব কে নিবে??? নাকি এইটাও আপনার বাবার দ্বায়িত্বে ছেরে দিবেন??? ক্ষমতা না থাকলে বিয়ে করছেন কেনো???
,
নীরার কথা শুনে তিশা আর নিলয়ের মা নীরার মুখের দিকে হা করে তাকিয়ে আছে,কারন নিলয়ের মুখের ওপর এভাবে কারো কথা বলার সাহস নাই,,, আর নিলয় যেভাবে তাকিয়ে আছে মনে হচ্ছে নীরাকে আস্ত গিলে ফেলবে,, নিলয়কে ওই ভাবে দেখেই নীরার জান শুকিয়ে গেছে,,, তাও সাহস নিয়েই বললো,,,,
,
নীরা:::: ঠিক আছে আপনি চাইলে আপনার বাবার টাকাতেই খাবেন,,, সাথে আমিও। ,,,
আর বেশি কিছু বলতে চাচ্ছি না এখন আমার সাথে খাবেন আসেন,,,,
,
নিলয়:::: তিশা খাবার রেডি কর আমি অফিসে যাবো,,,,
,
বলেই হনহন করে রুমে চলে গেলো,,,,
নীরা মনে মনে ভাবতে থাকে,,,, ( আজব বেপার রাগ করলো না কেনো ,, রেগে তো আমায় বাসা থেকে বের করে দেবার কথা কিন্তুু,,,, নাহ্ অন্য কিছু ভাবতে হবে,, গুন্ডা ছেলে এমন এমন কাজ করবো তুই নিজেই পালিয়ে বাচবি না ,, যা না অফিস। আমি তো এই সুযোগ ই চাই, তুই বাসা থেকে বের হ ) ,,,,,
,
তিশা’::::: ভাবিইইইই তোমার পা দুটো কই এগগিয়ে দাও সালাম।করি,,,,
,
নীরা:::: ধুর,,, কি বলছো???
,
নিলয়ের মা:::: আমি তো ভাবতেই পারছি না আমাদের নিলয় তোর এত্ত কথা হজম করে নিলো,,,,
,
তিশা:::: হাহাহাহ্ সবই ভাবির কামাল,,,,,,
,
এর মধ্যে নিলয় আসে , নিলয়কে দেখেই নীরা ক্রাস খায়,,,,
,
নীরা:::: বাহ্ বাহ্ গুন্ডা টাকে দেখতে তো হেব্বি লাগছে,,, ব্লু শার্ট,সুট,ব্ল্যাক প্যান্ট আর চোখে সানগ্লাস,,, ক্রাস খাইলাম,,,,, আরে নীরা কি ভাবছিস তুই গুন্ডা টা বের হইলে তুই কেমনে পালাবি সেইটা ভাব,,গুন্ডাটার চিন্তা করা বাদ দে,,,
,
নিলয় ::: তোমার নাস্তা করা শেষ??
,
নীরা:::: হ্যা শেষ,,,
,
নিলয়:::: ঘরে চলো কাজ আছে,
,
নীরা:::: আমি যেতে পারবো না,,,,
,
নিলয় নীরার দিকে রাগি চোখে তাকালো,,,
,
নীরা:; যাচ্ছিতো চলেন….
,
নিলয় নীরাকে ঘরে এনেই বসিয়ে দিলো,,,,
,
নীরা:::: আরে আরে কি করছেন আপনি,,, আপনি এই কাজ টা করতে পারেন না ,,,
,
নিলয়:::: মাই ডিয়ার নীর পাখি আমি সব করতে পারি,,,,
,
চলবে,,,,,♥

 

প্রিয় পাঠক আপনারা যদি আমাদের (গল্প পোকা ডট কম ) ওয়েব সাইটের অ্যাপ্লিকেশনটি এখনো ডাউনলোড না করে থাকেন তাহলে নিচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে এখনি গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করুন => 👇👇👇👇👇👇

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.golpopoka.android

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here