আমার বুড়ো part : 8

0
691

আমার বুড়ো part : 8

লেখিকা সুরিয়া মিম

!
ইসসস,
আমার বুড়ি টা লজ্জা পেয়েছে হা হা হা,
…..
বুড়ো টার নজর এতো এতো খারাপ কেন হুম?
….
আমি জানি বুড়ি তুমি এখন কি ভাবছ ?
….
কিন্তু কি করি বলতো?
তোমার বুড়ো চায় না কেউ তোমাকে খারাপ নজরে দেখুক,
….
তবে তুমি তোমার বুড়োর নজরে সেদিনি পরে গেছিলে যেদিন তোমার মেয়ে তোমাকে তার বাবার কাছে নিয়ে এসেছিল,
….
তুমি জানো প্রথমবার তোমার কথা শুনে মুগ্ধ হয়ে গিয়েছিলাম আমি,
….
আমি সেদিন থেকে তোমাকে লুকিয়ে লুকিয়ে কাজ করতে দেখতাম,
কারন আমার তোমাকে দেখতে অনেক ভালো লাগতো,
…..
কোনো খারাপ নজরে নয় শুধু আমার মেয়ের জন্যে খাবার বানাতে ব্যস্ত কর্মরত মা টাকে রান্নাঘরে রান্না করতে দেখতাম,
….
বাবা তুমি এখানে কি করছ?
..
কিছুনা মা,
….
হুহহহহ আমি যেন কিছু বুঝিনা?
তুমি আমার মা কে দেখতে এসেছ?

এতো যখন বোঝো তাহলে মা কে হেলফ করনি কেন?
….
এই আপনার কি কোনো কাজ নেই আমার মেয়ে টার পেছনে লাগো ছাড়া?
….
তুমি আমাকে বলছ আমি এই ফাজিল টার পেছনে লাগি?
….
কে কার পেছনে লাগে সেতো তুমি ভালো করেই জানো তাহলে আমাকে কথা বকছ কেন?

শোনো আমাকে বকা না দিয়ে ,
তোমার মেয়ে কে শাসন করো,
বেশি বাঁদরামো শিখেছে হুমম,
….
তারপর উনি রাগে হনহন করতে করতে নিচে চলে যায়,

মা দেখো না তোমার বুড়ো টা রেগে গেছে,
..
ফাজিল মেয়ে,
….
হা হা হা,
….
ও তুমি যাই বলো না কেন?
আমি জানি তুমি বাবা কে আদর করে বুড়ো বলে ডাকো হা হা হা,
..
হ্যা ডাকি তো?
….
মা একটা সত্যি কথা বলবে?

কি মা?

আমার ভালোবাসায় ভাগ বসাতে আমার ছোটোছোটো ভাই বোন আসছে নাকি হুমমম?
…..
কালকে রাতে বাবা তোমাকে অনেক অাদর করেছে তাই না?
তাই বাবা এতো খুশি,
বলনা মা বাবা তোমাকে কিভাবে আদর করেছে?
….
হায় আল্লাহ এই মেয়ে নিয়ে আমি যাবো কোই,
…..
তোমার যেতে হবে না মা আমি যাচ্ছি,
তুমি তোমার বুড়ো কে গিয়ে সামলা ও,
হা হা হা,
….
তারপর আমি নিজের হাতে ডায়নিং সাজিয়ে সবার জন্যে খাবার সার্ফ করে সবাই কে খেতে ডাকি,
….
বুড়ো টা খেতে বসতে দেখি,
….
মুখ টা রেগে গিয়ে গোল আলুর মতো ফুলিয়ে রেখেছে,

ওনার মতো হাসি খুশি মানুষ কে এভাবে গোমড়া মুখো হয়ে থাকা মানায় না,
কি করি কি করি?
আইডিয়া,
….
বুড়ো তুমি বসো তোমার এখন হচ্ছে,
…..
এই যে আপনি নিজের হাতে খেতে চান বললেই তো পারেন,
আমি আপনাকে খাইয়ে দিচ্ছি,
….
আমার কথা শুনে বুড়ো হা হয়ে যায়,
..
তারপর আমি বুড়োর মুখে এক গ্রাস পুরে,

আর ওমনি সবাই হা হা করে হেসে দেয়,

ইসসস আমার রাগ ভাঙাতে বুড়ি টা আমাকে খাইয়ে দিল.
……
তাহলে তো সেকেন্ড সেকেন্ড রাগ করে থাকতে হবে যাতে আমার বৌ টা আমাকে খাইয়ে দেয়,
…..
কি হলো বাবা?
ভালোবাসায় ভাগ বসিয়ে খুব ভালো লাগছে তোমার তাই না?
….
না মা তুই এভাবে রেগে যাচ্ছিস কেন?
তোর মা তো আমাকে তোমাকে দুজন কে খাইয়ে দিচ্ছে,
….
মা তুই রাগ করিস কেন?
তোর মা তো তোর বাবার বিবাহিতা স্ত্রী তাই না?
তাই তোর কথায় কথায় রাগ করা উচিত না,
….
আমি জানি সায়ান চাচু
আই এম জাস্ট জোকিং,
হা হা হা,

আচ্ছা বাবা কালকে রিসেপশনের কি প্লান,
…..
মা রিসেপশন কালকে হবে না,

আমার বেষ্ট ফ্রেন্ড তো আমাদের বিয়েতে ছিলো না,
ওর বৌ কে নিয়ে থাইল্যান্ডে হানিমুনে গেছে,
ও এখন আমাদের রিসেপশনে থাকতে চায়,
তাই রিসেপশন টা দুদিন পরে হবে,
…..
বাট বাবা?

না মা তোমার বাবা একদম ঠিক বলেছেন,
….
আমি ও চাই মিস্টার ইমান খান তার ফ্যামিলি সহ এখানে প্রেজেন্ট থাকুক,
…..
বাবা তুমি এই অসভ্য লোক টাকে কেন ইনভাইট করেছ?
তুমি জানো না উনি কত খারাপ একটা কাজ করেছে?
….
রুহানি ঠিক বলছে ভাই,

সায়ান মেয়ের তালে তাল দিশ না,
….
বাবা তুমি মাকে কষ্ট দিতে এসব করছ,
আমার মা কে আমার থেকে কেড়ে নিতে চাও তুমি?
..
আমি জানি মা তুই কি ভাবছিস?
তোর মা আমার স্ত্রী কে কেউ আমাদের থেকে কেড়ে নিতে পারবেনা,
……
তবে এখন একটা মুখোমুখি সংঘর্ষ হওয়া জরুরি,
সেটা হয়ে গেলে কেউ তোর মায়ের ওপরে অধিকার ফলাতে আসবেনা,
…..
তোর মা নিজে থেকে না বললেও এই সংঘর্ষের জন্যে তৈরি হয়ে বসে আছেন,
….
আমার বুড়োর মাথায় কি ঘুরছে কে যানে?

তবে আমার ওদের মুখোমুখি হতে হবে,
নাহলে আমার মেয়ে টা অস্থির হয়ে যাবে,
….
হঠাৎ করে মেয়ে টা আমাকে শক্ত করে জাড়িয়ে ধরে,
…..
খেয়াল করে দেখি আমার মেয়ের চোখ দুুটো জলে টলটল করছে,

এভাবে কাঁদেনা মা,
..
বুড়ো তোমার মেয়ে কাঁদছে দেখ,
….
ভাবছি রাতে মেয়ে কে আমাদের মাঝে নিয়ে শুবো,
….
বাবা তুমি খুব খারাপ ,
….
তখন উনি উঠে এসে মেয়ের কপালে চুমু খেয়ে বলে,
….
আমি খারাপ না ভালো বাবা মা,
….
মায়ের জন্যে কি গিফট এনেছে তুমি?
….
দেখো তোমার মায়ের এই সাতনরি হাড় টা পছন্দ হবে হুম?
….
জানিনা?
….
রাগ করে না মা,

চুপপপ একদম কথা বলবেনা তুমি,
..
তারপর মেয়ে আমাকে রুমে নিয়ে গিয়ে আমাকে জড়িয়ে শুয়ে থাকে,
….
ওমনি বুড়ো টা এসে আমাকে আমাকে ধরে টানাটানি শুরু করে দেয়,
…..
এক পাশে বুড়ো আরেক পাশে মেয়ে,
দুজন আমার দু হাত ধরে টানাটানি করছে,

বাবা মেয়ের মান অভিমানের মধ্যে আমি পিংপং বল হয়ে গড়াগড়ি খাচ্ছি,
..
হা হা হা,

চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here