স্বামীর ভালোবাসা part : 37

0
447

স্বামীর ভালোবাসা part : 37

লেখিকা সুরিয়া মিম

!
এ্যা এ্যা এ্যা,
……
এই সোনা তুমি কাঁদছ কেন?

এসব কি করছেন কি হুমম?

ওই একটু বেলি ফুলের মালা পরেছি আরকি?
…..
মালা পরালে চুমু দিলেন কেন?
……
গলায় দিয়েছি ঠোঁটে তো দেই নি তাই না?
!
মানে?
!
তুমি কি ভুলে গেছ?
যে তোমার ঠোঁটের খয়েরি কালারের লিপস্টিক আমাকে পাগল করে দেয়?
….
ইসসস,
আমি তো আজকে খয়েরি কালারের লিপস্টিক পরেছি,

এখন উনি আবারো আকাম করবেন নাকি হুমম?
……
“আপনি বাঁচলে বাপের মেয়ে”
লিপস্টিক টা মানে মানে মুছে ফেলি না হলে,
অস্তাগফিরুল্লাহ হয়ে যাবে,
….
তাই আমি টিসু বক্স থেকে টিসু নিতে যাই,
আর ওমনি উনি টিসু বক্স টা কেরে নিয়ে বলে,
…..
ইসসস,
আমার বৌ টাকে কত সুন্দর লাগে একদম রসগোল্লার মতো,
.. ….
পাগল,
!
হা হা হা
…….
তখন আবারো খেয়াল করে দেখি,
সেই আঙ্কল আন্টি আমাদের দেখে হাসছেন,
…..
হাসলে কি আর করার?
উনি যেসব কান্ড করছেন তাতে আমার ও হাসি পায়,
……
তখনি আবার গাড়ি চলতে শুরু করে,
আর আমরা রুহানের বাসায় পৌঁছে যাই,
….
কি হলো পৌঁছে গেছি তো?
গাড়ি তেঁ বসে থাকবে নাকি হুমম?
….
না মানে আমার বাচ্চা দুটো?
……
ওই,
……
কোই?
…..
মাম্মাম পাপাই,
…..
ওদের ডাক শুনে ওপরে তাকিয়ে দেখি,

ওরা দুজন রুহানের ছেলের সাথে বারান্দায় দাড়িয়ে দুষ্টুমি করছে,
!
তখন উনি আমার গালে টান দিয়ে বলেন,
…..
আমি কি জানিনা যে তুমি ওদের টেনশনে পুরো রাস্তায় চুপ করে বসে ছিলে?
….
শুধু কি মায়ের মন বাবারো তো মন আছে বলো?
….
আমি হয় তো ওদের পেটে ধরিনি,
তবে আমি ও বাবা তাই না?
….
কেন খুব হয়েছে বুঝি বাবা থেকে মা হওয়ার?

আমি চাইলে ও কি হতে পারবো বলো?
আল্লাহ তো আমাকে এতো ক্ষমতা দিয়ে
পাঠায়নি তাই না?
….
সত্যি,
…..
কি?

আপনি একটা পাগল,
!
তুমি পাগলের পাগলী,
হা হা হা,
!
যতসব,
…….
মাম্মা পাপাইের সাথে ঝগড়া করোনা প্লিজ,
তাড়াতাড়ি ভেতরে চলে আসো না সোনামণি,
…….
হ্যা বাবা আসছি এখনি আসছি,

ভেতরে যেতেই ভূত দেখার মতে চমকে যাই আমি,
..
কারন সেই ট্রাফিকজ্যামে আটকে থাকা আঙ্কল আন্টি হলে বসে কফি খাচ্ছে,
….
হঠাৎ করে সেই আন্টি এসে আমার কপালে চুমু খেয়ে বলে,
. ……. .
কেমন আছো মা?
….
আলহামদুলিল্লাহ্‌ ভালো আছি আন্টি আপনি আপনারা কেমন আছেন?
….
ভালো আছি মা,
!
তখন রিয়া আমাকে পেছন থেকে জড়িয়ে ধরে বলে,

আম্মু এই আমার সতীন,
যার প্রেমে তোমার জামাই এখনো হাবুডুবু খায়,
….
রিয়া?

হ্যা সতীন এই আমার মা আর ওই আমার বাবা,
কিন্তু,
…….
কি?
……
তুই এতো সাজুগুজু করেছিস কেন?
আমার স্বামী তো তোকে দেখলে ইয়ে হয়ে যাইবে?

কিয়ে হয়ে যাইবে?
….
জানিনা রুমে আছে গিয়ে দেখা দিয়ে আয়,
……..
ওকে
…..
রুমে গিয়ে দেখি, রুহান চুলে জেল দিচ্ছে,
আমাকে দেখেই হেসে দিয়ে বলে,
……
সেই ছোটো বেলা থেকে আমি তোকে ভালোবাসি,
শুধু বন্ধুত্ব নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয়ে কখনো নিজের মনের কথা খুলে বলতে পারিনি,
…..
তাই এখন তোকে বেহায়ার মতো বলছি,
…..
আই লাভ ইউ অলওয়েজ,
……
ব্যাটা বদ বাড়ি বৌ বাচ্চা আছে তোর,
….
তাতে কি?
আমি তো আর তোকে আমার সাথে প্রেম করতে বলছিনা?
শুধু আমার মনের কথা বলছি,

অসভ্য পোলা তের কপালে রাম প্যাঁদানি আছে দাড়া তুই,
….
কি?
…..
তোর কল্লা,
….
তারপর আমি ওকে ঝাড়ু নিয়ে বাড়িময় তাড়া করতে থাকি,
শেষমেশ আমার স্বামীর গিয়ে দাঁড়াতেই,
….
রিয়া আমার হাত থেকে ঝাড়ু টা কেড়ে নিয়ে রুহান কে ঝাঁটাপেটা করতে শুরু করে
……
রিয়া রুহানের কান্ড দেখে বাড়িময় পিচ্চি পাচ্চার হাসির রোল পরে যায়,
……
তারপর রিয়া আমাকে ওর রুমে চেঞ্জ করতে নিয়ে,
…..
চেঞ্জ করে রিয়ার সাথে কিচেনে গিয়ে রান্নাবাড়া করা শুরু করে দেই,
তখন রিয়া আমাকে বকা দিয়ে বলে,
….
তুই আমার গেস্ট তুই গিয়ে রেস্ট কর আমি সব সামলে নিবো,
…..
তুই তো বলিস আমি তোর সতীন,
তাহলে তোর এই সতীন কে কিছু করতে দে?
….
ওকে যা গিয়ে স্বামী সেবা কর,
….
কার সেবা করবো?
আমার স্বামীর না তোর স্বামীর?
….
তোর স্বামীর আমার স্বামীর সামনে না ভুলে ও যাসনে কারন সে তোকে লেগ পিস ভেবে খেয়ে ফেলবে,
হা হা হা,
…..
কি আমি লেগ পিস?
….
নাতো কি?
এ কয় বছরে নিজের দিকে তাকিয়ে দেখেছিস?
যে তুই আগের থেকে কতটা লাবণ্যময়ী হয়ে গেছিস?
তোর সৌন্দর্য বাড়ছে বই কমছেনা বুঝলি?
…..
আমি চিন্তা করি আমার জিজু কি করে তোকে তোকে এতো ভালোবাসে
আমার স্বামী ও তোকে ভালোবাসে,
….
তোর স্বামী কে কি আমি বলছি?
আমাকে ভালোবাসো?

না,
……
তাহলে,
……..
তাই তো আমাকে না এতো এতো ভালোবাসে,
….
তোদের মধ্যে সবকিছু ঠিক আছে তো?
আমার জন্যে কোনো অশান্তি?
….
ধুরররর,
মিশ কি যে বলো না তুই?
হ্যা উনি তোকে পায়নি,
আর সেই সুখে আমাকে খুব ভালোবাসে,
…..
জানিস ও বলে কি?

কি বলে?

যেহেতু আমার ছেলে তোর মেয়ে কে পছন্দ করে,
তাই ওরা বড় হলেই,
তোর মেয়ে কে আমরা আমাদের বাড়ির বৌ করে আনবো,

আহারে গাছে কাঠাঁল আর গোফে তেল?
……
আমার দুধের শিশু,
এখনো গা থেকে দুধের গন্ধ পাই,
…..
আর তাকে এখনি বিয়ে পরানোর ব্যবস্থা করেছে তোরা?
…..
হ্যা করেছে তো?
…..
আর তখনি উনি আমার গালে আলতো করে চুমু একে দেয়,
….
আর রিয়া তখন মুচকি হাসি দিয়ে সুড়সুড় করে কিচেন থেকে কেটে পরে,

তখন উনি আমাকে চুমুতে চুমুতে ভরিয়ে দেয়,
….
এসবের মানে কি হুমম?
নিজের বোনের শশুড় বাড়ি এসে ও আমার সাথে ছ্যাঁচড়ামো করছেন?
….
নাহহহ বৌ কে আদর করতে এসেছি,
!
পাজি যেন কোথাকার?
!
হা হা হা,
..
তারপর উনি পানি খাওয়ার নাম করে
আমাকে ওয়ালের সাথে চেপে ধরে ঠোঁটে ওপরে চুমু খেয়ে এত দৌড়ে চলে যায়,
….
পরে রিয়া এসে আমাকে হাসতে হাসতে বলে,
…..
ভাবি থুরি বেবি ভাই তোকে কি দিয়ে গেছে হুমম?
….
জানিনা,
…..
আমি তো জানি,
….
কি?

আমার সামনে কিস করলো,
আমি যাওয়ার পর কি করলে?
….
জানিনা,
..
একটা কথা বল তো?

কি?

তোর ঠোঁটের লিপস্টিক গেল কোই?
!
তোর ভাই না মানে কিছু না?
….
বুঝেছি,

কি?

আমার ভাইয়ের খুব খিদে লেগেছে,
তাই লিপস্টিক খেয়ে ফেলেছে তাই তো?

জানিনা,
…..
ইসসস,
ভাই কতো রাক্ষস হা হা হা,
…..
তুই রাক্ষসের বোন,
…..
হা হা হা,
বলনা বলনা আমার রাক্ষস ভাই টা আর কি কি করছে?
….
অসভ্য তোর ভাই কে গিয়ে জিজ্ঞাস কর,
………
হা হা হা,

চলবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here