স্বামির অধিকার-২  2nd part

0
343

স্বামির অধিকার-২  2nd part
লেখা/রুবেল(ছদ্দবেশী হিংসুটে ছেলে)



এটা কি চা হলো(অামি)
হুম খুব ভালো হইছে বউ এর হাতে বানানো চা ভালো তো হবে (অামি)
তো খাচ্ছেন না কেন?(রিমু)
অাচ্ছা ঠিক অাছে খাচ্ছি(অামি)
!
অামি যানি রিমু ইচ্ছা করে চিনির বদলে চায়ে লবন দিছে,
এটা কে অামি অবহেলা না ওর দুষ্টামি হিসাবে নিলাম।
রিমু দাড়িয়ে অাছে ওর সামনে অামি লবন যুক্ত গরম পানিটা খেয়ে নিলাম।
রিমুর দিকে তাকিয়ে দেখি হা করে অামার দিকে অবাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে অাছে।
!
এ কি ও ভাবে তাকিয়ে অাছো কেন?(অামি)
অাপনি ওটা খেয়ে নিলেন?(রিমু)
কেন প্রবলেম কি? তুমি বানাইছো অার অামি খাবো না এটা কি হয়?(অামি)
কিন্তু এটা তো… (রিমু)
কিন্তু এটা তো লবনের পানি ছিলো তাই তো (অামি)
হুম…(রিমু)
শুধু লবন কেন এতে বিষ মিশে দিলেও অামি খেয়ে নিতাম, কারন তোমাক অনেক গুলো ভালোবাসি (অামি)
রাখেন অাপনার ভালোবাসা, অাপনার ভালোবাসার অামার দরকার নেই(রিমু)
অাচ্ছা ঠিক অাছে, এই শোন অাবার সত্যি সত্যি বিষ দিয়ো না কারন তুমি বিধবা হলে অামার খুব কষ্ট হবে (অামি)
অাপনাক বিষ দিয়ে মারবো অামি (রিমু)
পারবে না(অামি)
কেন? (রিমু)
কারন অামি তোমার স্বামি(অামি)
হা হা হা স্বামি? জি না অাপনি অামার পথের কাটা (রিমু)
ঝড়গা করো না তো জানু অামি যানি তুমি অামাক অনেক ভালো বাসো, গোসল এ যাচ্ছি নাস্তা রেডি করো (অামি)
বানিয়ে খান(রিমু)
জিদ করো না অামি গোসল করে এসে নাস্তা খাবো (অামি)
!
১৫ মিনিট পর….

একি নাস্তা রেডি করো নাই? (অামি)
না(রিমু)
!
রিমুর না শব্দটা শুনে মেজাজ টা গরম হয়ে গেলো,
গালে একটা থাপ্পর দিয়ে…..
!
সব ভালো লাগে মেয়েদের জিদ অামার ভালো লাগে না তুমি অামার বউ অামি তোমার স্বামি এই কথাটা মাথায় রাখবা(অামি)
অামি পারবো না অাপনার সেবা করতে(রিমু কাঁদতে কাঁদতে)
একি ঠোঁট দিয়ে তোমার রক্ত বের হচ্ছে
দেখি এদিকে অাসো(অামি)
!
থাপ্পরটা এবার খুব জোরে লেগেছে, রিমুর ঠোঁট এর এক কোনা দিয়ে রক্ত পড়ছে
!
অামার শরীরের সম্তত রক্ত বের হতে দেন ছুবেন না অাামাকে (রিমু)
এত জিদ ভালো না বুজছো? যা হবার হয়ে গেছে এখন তো অামি তোমার স্বামি, দু দিন পর দেখবা সব ঠিক হয়ে যাবে শুধু তুমি অামাকে একটু অাপন ভাবার শেষ্টা করো(রিমু)
(রিমুর ঠোঁট এর রক্ত গলো তুলো দিয়ে মুছে দিলাম, এ ভাবে মারাটা অামার ঠিক হয়নি)
!
অাচ্ছা তোমাক কিছু করতে হবে না এখানে বসো অামি নাস্তা রেডি করছি(অামি)
!
রিমু শব্দহীন ভাবে কাঁদছে, শুধু চোখ দিয়ে পানি ঝড়ছে)
১৫ মিনিট পর….

!
এই যে নাস্তা অাসো অামরা দু জনে খাবো (অামি)
এ অাপনি সরেন এখান থেকে অামি খাবো না (রিমু)
সরি জানু প্লিজ(অামি)
কেন জোর করছেন অাপনি (রিমু)
অধিকার(অামি)
অধিকার নিয়ে থাকেন অামি খাবো না (রিমু)
ঠিক অাছে তাহলে অামি ও খাবো না চললাম কাজে(অামি)
৫মিনিট পর
!
কি হলো অাপনি না চলে গেলেন অাবার অাসলেন কেন(রিমু)
না মানে… (অামি)
কি তালা চাবি খুজতেছেন তো এই নেন
দরজাতে তালা লাগিয়ে চান যেন অামি পালাতে না পাড়ি(অামি)
এ শুনো এ সবের জন্য অামি অাসি নাই(অামি)
তাহলে?( রিমু)
বলছিলাম কি তোমার কিছু লাগলে অামাক বলো, শহরে তো যাচ্ছি নিয়ে অানবো(অামি)
বিষ লাগবে অানবেন?( রিমু)
!
রিমুর কথা শুনে মনটা খারাপ হয়ো গেলো কেন যে ফিরে এসে অাবার প্রশ্ন করতে গেলাম।
অামি তো নিজে তোমার কাছে বিষ অামাকে খেয়ে নাও(অামি)
নেন তালা চাবি দিয়ে দরজা লাগিয়ে দেন,(রিমু)
লাগবে না কারন অামি যানি তুমি অামাকে ছেড়ে কোথায় যাবে না (অামি)
এত বিশ্বাস না, অামার ভালোবাসায় তোমাকে বেধে রাখবে (অামি)
হা হা হা ভালোবাসা (রিমু)
!
রিমুর কোমড় এ হাত দিয়ে একটু চেপে ধরে কপালে একটা কিস দিলাম
!
অাচ্ছা শোন ব্যবসার কাজ তাই কখন বাসায় ফিরবো বলতে পারবো না রান্না করে খেয়ে নিও বাই (অামি)
!
কি অাজব মানুষ বাবা লবন দিয়ে চা বানিয়ে দিলাম তাও খেয়ে নিলো। থাপ্পার দিয়ে অাবার নিজে অনুসুচনা বোধ করছে। অামি খাইলাম না জন্য সে ও খাইলো না, সত্যি অাজব মানুষ,
না না অামি ভুলবো না তার এস ভালোবাসায়।
!

দুপুর ২টা….
ভালো লাগছে না বউ এর জন্য মনটা কেমন অানচান অানচান করছে
উফপ কাজেরো অনেক চাপ
কি যে করি,
কাজ শেষ করতে প্রায় ৬ টা বাজলো
তাই অার দেরি না করে সোজা বাসায় অাসলাম
যদি ও প্রতিদিন বন্ধু দের সাথে অাড্ডা দিতাম, নেশা করতাম অাজ অার তা করলাম না, কারন রিমু যদি বুজতে পারে অামি নেশা করছি ঘৃনাটা অারো বেড়ে যাবে।

!
রিমু জান অামার কই তুমি? রিমুর কোন সারা পাচ্ছি না, পালিয়ে গেল না তো? তালা লাগানো বোধয় ভালো ছিলো,
না দেখি পাশের রুমে।
পাশের রুমে গিয়ে দেখি রিমু পা গুটিয়ে অসহায় মেয়ের মত ঘুমাইছে।
চুপি চুপি কাছে গিয়ে রিমুর কপালে চুমে দিতে কেমন একটা গরম অনুভব করলাম,
কপালে হাত দিয়ে দেখি রিমুর গা জ্বরে পুড়ে যাচ্ছে,
হয়তো অাঘাত অার ঠান্ডা লাগার কারনে এমনটা হইছে,
রিমু কে ডাক না দিয়ে দৌড়ে ডাক্ততার নিয়ে অাসলাম।
!
১৫ মিনিট পর…
রিমু এই রিমু উঠো ডাক্তার দেখবে তোমাক(অামি)
একি অাপনি কখন অাসলেন(রিমু)

রিমু কে ধরে বসালাম,
রিমু চুপ করে বসে অাছে ডা, চেকাপ করে কিছু ও ষুধ লিখে দিলো।
!
রিমু তুমি শুয়ে থাকো অামি যাবো অার অাসবো ওকে (অামি)
হুম(রিমু)
!
বদমায়েশ টা কি ভাবে জানলো অামার জ্বর? ডা, নিয়ে অাসছে,
তাহলে কি উনি অাগেও অাসছিলেন? অাজব মানুষ তো পাগল গুলোর মত অাবার ছুটে গেলো ওষুধ অানতে,, মানুষ টা কি সত্যি খারাপ? না কি অামাকে কাছে পাওয়ার অভিনয়(রিমু)
!
ও ষুধ তো নিলাম , রিমু তো রান্নাও করে নাই, কিছু খাবার নিয়ে যাই,
হোটেল থেকে ২ প্যাকেট খাবার, তার পর কিছু ফলমুল নিয়ে বাসায় অাসলাম।
!
রিমু এবার উঠো তো, নাও অাগে খাবার টা খেয়ে নাও তার পর ওষুধ(অামি)
অামি খাবো না (রিমু)
প্লিজ জিদ করো না, অামি ও কিন্তু কিছু খাইণি সকাল থেকে (অামি)
এই দেখো হোটেল থেকে ভাত নিয়ে অাসছি নাও খেয়ে নাও প্লিজ (অামি)
না বলছি না (রিমু)
এমন করো না প্লিজ (অামি)
অামি হোটেল এর খাবার খাই না (রিমু)
অাচ্ছা ঠিক অাছে কিছু ফল তো খাবে? কেন বুজনা খালি পেট এ ওষুধ খাওয়া যাবে না (অামি)
হুম(রিমু)
হুম না প্লিজ খাও, তারপর অামি নিজে রান্না করবো ওকে (অামি)
!
রিমু বাধ্য মেয়ের মত কিছু ফল অার ওষুধ খেলো,
!
এবার শুয়ে থাকো তুমি অামি রান্না ঘড়ে গেলাম, রান্না করার অভ্যাস অাছে অামার বুজছো, মা বাবা মারা যাওয়ার পর বাবার ব্যবসা অার রান্না বান্না অামাকে করতে হইছে, অন্যনের হাতের রান্না অামি লাইক করি না, তবে বউ এর হাতের রান্না খাইতে খুব ইচ্ছা করে, কি কপাল বউ কে রান্না করে খাওয়াতে হচ্ছে, তরকারি কাটতে কাটতে কথা গুলো বললাম।
!

!
বাবা এনি তো দেখি মিঃ পারফেক্ট, সবটা জানে,
হি হি হি অাবার মেয়েদের মত দরকারিও কাটছে,
মানুষটা সত্যি অন্যরকম, বুজে উঠতে পারি না উনি খারাপ না ভালো,
রিমু একটু ফ্লাসব্যাকে ব্যক এ গেলো,
লবনের পানি খাওয়া, নাস্তা রেডি করা, ডা, ইত্যাদি,
রিমু কেমন যে নিজে কে খুব অপরাধি মনে হচ্ছে,
!
কি হলো হাসছো কেন(অামি)
কই না তো (রিমু)
অামি যানি, কারন মেয়োরা হাসলে হেলিকাপ্টারের মত জোরে শব্দ করে হাসে (অামি)
এই চুপ অামি জোরে হাসিনী অাসতে হাসিছি(রিমু)
হা হা হা তার মানে শিকার করলে তুমি হাসিছো (অামি)

চলবে…???

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here