খেলাঘর /পর্ব-৪২

13
888

খেলাঘর /পর্ব-৪২
লেখা- সুলতানা ইতি

বহুত ফেয়ার কারতি হু তুম হে সানাম
কাসাম চাহে লে লোওও খোদাকি কাসাম”

নির্ঝরিণী গান শেষ করে স্টেজ থেকে নেমে নিজের সিটে এসে বসলো
করতালিতে চারি দিকে মুখর,আর মুগ্ধতা সবার চোখে

এবার আয়াপ গান গাইবে, আয়াপ স্টেজে উঠে নির্ঝরিণীর দিকে অনেক্ষন তাকিয়ে ছিলো
নির্ঝরিণী অস্বস্তিতে পড়ে গেলো
তার পর আয়াপ গান গাইতে শুরু করলো

“থাকতে পাশে হয়নি জানা ছিলাম তোমার আপন কতো
সব হারিয়ে ঠায় দাঁড়িয়ে বুকে নিয়ে গভীর ক্ষত
মাঝখানে দেয়াল দুই দিকে দুইটি জীবন
এভাবে জীবন আমি চাইনি
আমার হিয়ার মাঝে লুকিয়ে ছিলে দেখতে তোমায় পাইনি ।।

করোনা ক্ষমা ই অনুনয়, কাটেনা একা কি সময়
তোমাকে ছাড়া জীবন ছন্নছাড়া বেছে থাকা যন্ত্রণাময় ।।

মাঝখানে দেয়াল দুই দিকে দুইটি জীবন এভাবে জীবন আমি চাইনি
আমার হিয়ার মাঝে লুকিয়ে ছিলে দেখতে তোমায় পাইনি ।।

বুঝে ও বুঝিনি কি করেছি ভুল কি করে দেবো সে মাশুল এসো না ফিরে তুমি থেকো না দূরে
ও আমার অভিমানী ফুল ।।

মাঝখানে দেয়াল দুই দিকে দুইটি জীবন এভাবে জীবন আমি চাইনি
আমার হিয়ার মাঝে লুকিয়ে ছিলে দেখতে তোমায় পাইনি ।।,,,

গান শেষ হলো তবু ও চারি দিকে নিরাবতা
নির্ঝরিণীর অস্বস্তি আর ও বেড়ে গেলো মনে হচ্ছে পুরো গান আয়াপ নির্ঝরিণী কে ভেবেই গেয়েছে
নির্ঝরিণী তবু মনকে পাত্তা দিলো না নিজের মন কে বুঝালো,সব বুঝার ভুল

অনুষ্ঠান শেষে নির্ঝরিণী চলে যাচ্ছিলো আয়াপ এসে নির্ঝরিণী কে বাধা দেয়
আয়াপ- নির্ঝু প্লিজ আমার কথা শুনো দেখো সেদিন তুমি যা ভেবেছো সব ভুল

নির্ঝরিণী – আমি যা বুঝেছি সেটাই ঠিক আপনি এখন আমাকে ভুল বুঝানোর চেষ্টা করছেন
আমি আপনার কোন কথা শুনতে চাইনা
প্লিজ লিভ

আয়াপ- তোমাকে শুনতেই হবে

নির্ঝরিণী – পাব্লিকের সামনে সিনক্রিয়েট করবেন না প্লিজ,

আয়াপ- আমার একটা কথা…….

নির্ঝরিণী – চুপ একদম চুপ একটা কথা শুনতে চাই না আপনার কাছে এর পরে ও যদি আপনি কথা বলেন তা হলে খুব খারাপ হয়ে যাবে বলে দিচ্ছি
নির্ঝরিণী আর পিছনে না থাকিয়ে হাটতে থাকে
গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছে নির্ঝরিণী
একটা মেয়ে এসে বল্লো
– হাই নির্ঝরী আপু তোমার গান আমার কাছে অনেক ভালো লাগে,, একটা সেল্পি নিই তোমার সাথে

নির্ঝরিণী – সিওর, সেল্পি তুলে মেয়েটি চলে যাচ্ছিলো আবার পিছনে ফিরে বল্লো আপু,এই টা তোমাকে আয়াপ খান দিয়েছে

নির্ঝরিণী – কি এটা?
মেয়েটি বল্লো তুমি পড়ে দেখো কি আছে এতে,এই বলে মেয়েটি চলে যায় নির্ঝরিণী কাগজ টা ব্যাগের মধ্যে রেখে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করতে থাকে

অফিস শেষে মিথিলা বাসায় এসেই শুয়ে পড়লো খুব টায়ার্ড লাগছে এমন সময় মিথিলার ফোন আসে
মোবাইলের স্কিনে ইহানের নাম টা ভেসে উঠলো
মিথিলা- হ্যালো ইহান বল

ইহান- মিথিলা তুই জলদি সরোওয়ার্দি হসপিটাল চলে আয়, অরনির অবস্থা ভালো না
মিথিলা কথা টা শুনে আর দেরি না করে বেরিয়ে পড়লো

হাসপাতালের ক্যাবিনে বসে আছে ওরা চারজন,অরনির মা নিচে গেছে ওষুধ আনতে
অরনি এতোক্ষন চোখ বন্ধ করে থাকলে ও চোখ খুলে সবাই কে দেখে একটা মুচকি হাসি দিলো কিন্তু সেই হাসিতে কোন প্রান নেই
– তোরা সবাই এসে পড়েছিস দেখছি,কি ভেবেছিলি আমি মরে গেছি?

মিথিলা- এমন করে বলিস না অরু

অরনি- তোকে আর ইহান কে এক বাধনে বেধে তার পর আমি শান্তিতে চলে যাবো

মিথিলার কথা শুনে সাম্মি নড়ে ছড়ে উঠলো

ইহান- অরু তোকে একটা কথা জানানো হয়নি শুধু তুই কেনো এখানকার কেউ ই জানে না,
আমি জানি না তোরা আমার কথা কি ভাবে নিবি তবু ও বলছি অরুর জন্য,, অরু, মিথি ভুল হলে তোরা আমায় ক্ষমা করে দিস

মিথিলা- এমন কি কথা বলবি যে আগে ক্ষমা ছেয়ে নিলি

অরনি চুপ করে ইহানের দিকে ছেয়ে আছে বুঝার চেষ্টা করছে ইহান কি বলতে চায়

ইহান সাম্মির দিকে তাকিয়ে বল্লো
– সাম্মি তুই কথা টা বল

সাম্মি ইতস্তত করে বল্লো তুই বল

ইহান- আসলে শুন, মানে মিথিলার বিয়ের সময়, আসলে
ইহানের নার্ভাসনেস দেখে
সাম্মি বল্লো- আসলে আমরা দুজন বিয়ে করে নিয়েছি

অরনি যেন বড় একটা ধাক্কা খেলো চোখ বড় করে বল্লো কি বললি

মিথিলার মাঝে কোন ভাবান্তর দেখা গেলো না মনে হয় যেন কিছুই হয়নি সব স্বাভাবিক

রাহি- কখন করলি বিয়ে কি ভাবে হলো আমাদের তো বললি না, কি করে গোপন করলি আমাদের কাছে থেকে

ইহান চুপ করে বসে আছে, কিছুই বলতে পারছে না নিজেকে খুব অপরাধী লাগছে

সাম্মি- আসলে মিথিলার বিয়ের দিন ইহান রাগ করে বেরিয়ে যায় আমরা কেউ সেদিনের পর থেকে ইহানের খবর পায়নি,তার কিছুদিন পরে আমি রাজশাহী যাই আমার আন্টির বাসায়, রাজশাহী কলেজে আমার কাজিন পড়াশুনা করে তো কাজিনের সাথে দুষ্টুমির ছলে ওর কলেজে যাই,আর সেই কলেজে আমি ইহান কে দেখতি পাই খুব অবাক হয়েছি আমি ইহান কে রাজশাহী কলেজে দেখতে পেয়ে,সেদিন ইহানের সাথে কথা বলে বুঝতে পারলাম ইহান আগের মতো নেই খুব ভেংগে পড়েছে, তখন ইহান তোদের দুজনের কথা শুনতেই পারতো না,আর ইহান আমায় বলে তার সাথে দেখা হওয়া, কথা হয়েছে এগুলা যেন তোদের না বলি,ট্রাষ্ট মি দোস্ত আমি বলতাম তোদের কিন্তু ইহান আমায় প্রমিজ করায় তাই আমি……এতোটুকু বলে সাম্মি চুপ হয়ে যায়

পুরো রুমে পিন পতন নিরাবতা কারো মুখে কোন কথা নেই
নিরাবতা ভেঙে ইহান বল্লো
– সেদিন থেকে সাম্মির সাথে আমার যোগাযোগ হতো,আর সাম্মি আমাকে প্রচুর মেন্টালি সাপোর্ট দেয়,একটা সময় আমি দেশের বাইরে চলে যাই,সাম্মির সাথে ও যোগাযোগ বন্ধ করে দিই
তার কিছু দিন পর সাম্মি অস্ট্রিয়ায় যায় একটা পার্টিতে সাম্মির সাথে কথা হয়,,
তার পর জানতে পারি কাকতালীয় ভাবে সাম্মির মা আর আমার মা কাজিন সিস্টার উনারা আমাদের বিয়ের জন্য প্রেসার দেয় তখন ও আমার মিথিলা অরনির উপরে রাগ কমেনি আমি রাগের মাথায় মা কে বলে দিই আমি বিয়ে করবো কিন্তু সেটা যেন জানা জানি না হয়,খুব ঘরোয়া ভাবে আব্বু আম্মুর উপস্থিতিতে আমাদের বিয়ে হয়

সাম্মি- দোস্ত তোরা আমায় ভুল বুঝিস না আমি চাইনি বিয়েটা করতে, কিন্তু ইহান তখন অনেক সিনক্রিয়েট করাতে রাজি হলাম

ইহান- আসলে তখন আমি ভেবেছি তোরা দুজন আমাকে কষ্ট দিয়ে ভালো আছিস,আমি কেনো ভালো থাকবো না, তার অনেক পরে শুনি আমার আপু বিয়ে করেছে আর তাদের কাপল পিক আমায় পাঠায় তখন আমি আপির সাথে ইভান কে দেখে রাহির সাথে যোগাযোগ করি আর জানতে পারি সব কিছু
তার কিছুদিন পরে আমি দেশে আসি সাম্মি কে ওখানেই রেখে আসি,সাম্মি আমাকে পাঠিয়ে দিয়েছে,বলেছে মিথিলার বিপদে তুই পাশে না থাকলে কে থাকবে
ইহান এতোটুকু বলে থেমে গেলো,

সাম্মি- স্যরি মিথিল, স্যরি অরু

মিথিলা উঠে সাম্মির পাশে এসে বসে বল্লো
-স্যরি বলছিস কেনো,খুব ভালো হয়েছে, আমি অনেক খুশি আজ

সাম্মি- দোস্ত বিশ্বাস কর আমরা একদিনের জন্য স্বামি স্ত্রীর মতো থাকিনি ইনফ্যাক্ট আমি কলেজের হোস্টেলে থাকতাম,ও আলাদা বাসা নিয়ে থাকতো

মিথিলা- দূর কি বলিস আমি তোর কাছে এই সব শুনতে ছেয়েছি নাকি,,

রাহি কিছুক্ষন চুপ করে থেকে বল্লো কংগ্রাচুলেশনস তোদের দুজন কে

অরনি অন্য দিকে মুখ ফিরিয়ে চোখের পানি মুছে বল্লো
ভালো করেছিস সাম্মি, তুই জিতেছিস ইহান এমন একজন মানুষ যাকে আমি মনের সব সত্তা দিয়ে চাইতাম,তোকে কংগ্রাচুলেশনস,

মিথিলা- ইয়ে মানে দোস্ত এবার আমাকে উঠতে হচ্ছে,

সাম্মি- গাড়িতে গিয়ে বস ইহান আসছে তোকে পৌছে দিবে

মিথিলা- দরকার নেই, আমি একা ই যেতে পারবো
মিথিলা উঠে দাড়ালো রাহি মিথিলার পিছন পিছন এলো
রাহি- তুই ঠিক আছিস তো মিথিলা

মিথিলা- ঠিক না থাকার মতো কিছু হয়েছে কি?

রাহি- ঠিক থাকলেই ভালো,

মিথিলা এই রাতের বেলা রিক্সা নিতে চাইলো অন্ধকারে রাস্তার ধারে ল্যাম্প পোস্টের আলোতে হাটতে ইচ্ছে করছে
মিথিলা হাটছে

– এই মিথিল দাড়া

মিথিলা পিছনে ফিরে দেখলো সাম্মি ডাকছে মিথিলা দাঁড়িয়ে গেলো

সাম্মি- চল হাটতে হাটতে কথা বলি,

মিথিলা কিছু না বলে হাটতে শুরু করলো,বেশ কিছুক্ষন হাটার পর সাম্মি বল্লো
– মিথি তুই কি জানিস ইহান তোকে এখন ও ভালোবাসে

মিথিলা- জানার ইচ্ছে নেই

সাম্মি- অরনির সামনে তোকে একটা সত্যি জানানো হয়নি,অরনি কষ্ট পাবে ভেবে আমি ছেপে গেছি কথা টা

মিথিলা- তা হলে আমার কাছে ও ছেপে যা শুনতে চাইনা কোন সত্যি

সাম্মি- তবু ও আমি বলবো,ইহান আর আমি কাগজে কলমে স্বামি স্ত্রী ইহান আমায় বিয়ের রাতে বলেছে” সাম্মি তুই তো আমার সব কথাই জানিস আমি মিথিলা কে ভালোবাসি, আজ ও মিথিলা কে ভুলতে পারিনি, আমি তোকে কখনো স্ত্রীর মর্যাদা দিতে পারবো না,শুধু মায়ের অনুরোধে বিয়ে করেছি সাম্মি তুই আমায় ভুল বুঝিস না”সেদিন আমার ইহানের কথা মেনে নেয়া ছাড়া কোন উপায় ছিলো না,

ইয়ে আমি তোকে একটা কথা মানে একটা প্রস্তাব দিতে এসেছি

মিথিলা- কি?

সাম্মি- অরুর মতো আমি ও চাই তুই আর ইহান এক হয়ে যা

মিথিলা – সাম্মিইইইইইই,পাগল হয়ে গেছিস তুই?

সাম্মি- আমি সিরিয়েস

মিথিলা- আর একটা কথা বললে থাপ্পড় খাবি, যা আমার সাথে তোর আর আসতে হবে না

সাম্মি- তুই….

মিথিলা – সাট আপ

চলবে
ভুল ক্রুটি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন

13 COMMENTS

  1. আপনার গল্প খুব সুন্দর, পরের পর্ব গুলো একটু তাড়াতাড়ি দিন প্লিজ, আমি সবসময় অপেক্ষা করে থাকি পরের পর্ব গুলো পাওয়ার জন্য।

    • God is one she had no another and all religions book that says it true and prophets Muhammad saw is god true messenger and servant and all religions book that says it true and if you don’t believe me then go check your self on veath. It’s clearly say that only Allah is all mighty god and she is only one she had no another and all religions book that says it true. And I give you one Chanel link see your own eyes. True skills Muhammad. I hope you see this things and apu this Chanel you will get reference and some Montrose picture and meaning with that and pleas check it once at all pleas Im saying you to your religion book see that the truth about the religion of what Allah says what nerthas from your creator and your Mon anujaiyey kono thormo cholbena OK what Allah all mighty god and all of creation creator what say what order gives you you have to follow that not any pundit OK. And murti puja and nator puja is neshath.

  2. খেলাঘর গল্পটা দারুন, কিন্তু আমার একটা জায়গা খারাপ লাগলো ইহানের বিয়ে হয়ে গেছে এটা দেখে। শেষে কি হবে এটাই দেখার। সত্যি দিদি গল্প টা দারুন। পরের পর্ব প্লিজ তাড়াতাড়ি দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here