শ্বশুড়ের শর্তে বিয়ে (পর্ব:-১)

0
921

শ্বশুড়ের শর্তে বিয়ে (পর্ব:-১)
!!
#লেখা :- মোহাম্মদ সৌরভ
!!
আব্বাজান আপনার মেয়ে তো আমাকে জড়িয়ে ধরেছে এখন আমি কি আপনার মেয়েকে জড়িয়ে ধরতে পারি। শ্বশুড় আমার দিকে তাকিয়ে কটমট করে দাত গুলা ভাঙছে, আর আমি কথাটা বলে আমি সোজা শিড়ি দিয়ে উপরে দিকে হাটা দিয়েছি। আর ঐ দিকে বাড়ীর সবাই আমার শ্বশুড়ের দিকে তাকিয়ে আছে।
!!
আসলে কাহিনীটা হলো কি, আমি সোনালীকে ভালোবাসি তবে এইটা সোনালী জানতো না তাই আগে শ্বশুড় মসায়ের কাছে এসে বলছি,,, আমি আপনার মেয়েকে ভালোবাসি এইটা আপনার মেয়ে জানে না। আপনাকে আগে বলে গেলাম কারন যদিও আপনার মেয়েকে কষ্ট করে পটিয়ে আমার প্রেমের ফাদে ফেলে নেয়। তখন পরে আপনি বলবেন আমার সাথে আপনার মেয়ের বিয়ে দিবেন না। তাই আগে বাগে আপনাকে বলে দিলাম।
!!
তোমার সাহোস আছে বলতে হবে। তানা হলে কেও সরাসরি মেয়ের বাপের কাছে প্রেমের প্রস্তাব নিয়ে আসে নাকি?
!!
আমার সাহোস নেয় তবে ভালোবাসার প্রতি বিশ্বাস আর আপনার প্রতি সম্মান আছে। তাই আমি চাইছি আপনাকে আগে বলে রাখি।
!!
যদি আমি রাজি না থাকি তাহলে কি করবে?
!!
আপনার মেয়েকে পটিয়ে বাগিয়ে নিয়ে বিয়ে করবো। আপনি তখন কিছু করতে পারবেন না।
!!
হুব শ্বশুর কিছুক্ষন চুপ থাকর পর বলে,,, ঠিক আছে তাহলে আমার একটা শর্ত আছে সেইটা শর্তে রাজি থাকলে আমার মেয়েকে সসোজা তোমার কাছে ববিয়ে দিয়ে দদেব। আর কষ্ট করে প্রেম টেম করে আমার সম্মান নষ্ট করতে হবে না।
!!
শর্ত আগে শুনি তারপর ভেবে চিন্তা করে উত্তর দিবো।
!!
না আগে তুমি আমাকে কথা দিতে হবে, আগে বলো আমার শর্তে রাজি থাকবে।
!!
আমি একটু চুপ হয়ে কিছুটা ভাবনা চিন্তা করে হ্যা বলে দিয়েছি আর তখনি হুব শ্বশুর খুসিতে লাফাতে লাগলো। আরে আপনি লাফাচ্ছেন কেনো আগে তো শর্তটা দেন।
!!
লাফালাফি থামিয়ে বলে,,, তুমি আমার মেয়েকে বিয়ের পর জড়িয়ে ধরতে পারবে না, কিস করতে পারবে না, হাত ধরে রাস্থায় হাটতে পারবে না, এক কথা আমার মেয়েকে কোন রকম স্পর্শ করতে পারবে না।
!!
আপনি এই গুলা কি শর্ত দিতেছেন? বিয়ের পর তো আপনার মেয়ে আমার বউ হবে। আর একজন বর তার বউকে স্পর্শ করতে পারবে না এইটা কেমন কথা?
!!
এত কিছু বুঝি না, যদি আমার এই শর্তে তুমি আমার মেয়েকে বিয়ে করতে চাও তাহলে বলো তা না হলে আমি আমার মেয়েকে অন্য ছেলের সাথে বিয়ে দেবো।
!!
কিছুটা চিন্তা করে শ্বশুড়ের শর্তে রাজি হয়ে গেলাম। বাড়ীতে গিয়ে আম্মুকে বলাতে আম্মু অনেক খুসি হয়েছে। আম্মু আর আব্বু মিলে সব বিয়ের ব্যবস্থা করেছে। দুই দিনের মধ্যে বিয়ের সব ব্যবস্থা তৈরি করে ফেলছে, আজকে আমার বিয়ে সোনালীর সাথে। ভাবি ভাইয়া আব্বু সহ সবাই সৌনালীদের বাড়ীতে গেছি। আগে বিয়ের কাজটা শেষ করে নিয়েছে শ্বশুড় মসায় পরে খাবার খেতে দিয়েছে। ঐ দিকে আমার খিদার চুটে পেট চু চু করছে শ্বশুড় আপনাকে আমি মজাটা পরে বুঝাবো।
!!
শ্বশুর:- সোনালীর মা সোনালীকে নিয়ে এসো, শ্বাশুড়ি গিয়ে সোনালীকে নিয়ে এসেছে। আমার সামনে সোনালীকে দ্বাড় করিয়ে শ্বশুড় কিছু আবেগ প্রবন কথা বার্ত্রা বলেছে।
!!
আমি:- জ্বি আব্বাজান আপনি কোন চিন্তা করবেন না আমি আপনার সব কথা শুনবো, আর সোনালীকে অনেক সুখে রাখবো। আচ্ছা তাহলে আমরা যাই কেমন বলে সোনালীর হাত ধরতে যাবো তখনি,,
!!
শ্বশুড়:- আরে জামাই কি করছো আমার কথাটা কি তোমার মনে নেই নাকী।
!!
আমি:- হ্যা মনে আছে, তখনি শ্বশুড় মসায় আমার কানের কাছে এসে বলে,,,
!!
শ্বশুড়:- আমার মেয়ে আমাদের শর্তের কথা, যদি জোর করে আমার মেয়েকে স্পর্শ করো তাহলে এর পরিনাম কিন্তু ভালো হবে না। শর্ত অনুযায়ী আমি তোমাকে জেলের ভাত খাওয়াবো আর এলাকায় তোমার নামে দূরনাম ছড়িয়ে দিবো।
!!
আমি:- হ্যা আমার সব শর্তের কথা মনে আছে! আচ্ছা আমি তাহলে যাই বলে শ্বশুড়কে সালাম দিয়ে সোজা একা হেটে গাড়ীতে এসে বসে পড়েছি। আমার পিছু পিছু সোনালী এসে বসেছে আমি চুপ করে বসে পরেছে। আচ্ছা একটা কথা বলার ছিলো যদি অনুমতি দেন তাহলে বলতে পারি?
!!
সোনালী:- আব্বুর শর্তে আপনি আমাকে স্পর্শ ছাড়া বাকী সব কিছু করতে পারবেন। আমার সাথে গল্প করতে পারবেন হাসতে পারবেন আর যা যা ইচ্ছে হয় তা তা।
!!
আমি:- আমাকে কি আপনি মন থেকে বর হিসাবে মেনে নিয়েছেন নাকী আপনার আব্বুর শর্তের জন্য বিয়ে করেছেন?
!!
সোনালী:- আমি আমার আব্বুকে অনেক ভালোবাসি আর আপনাকে তো আমি বিয়ে করতে চাইনি আমি যাকে বিয়ে করতে চাইছি সে আব্বুর শর্তে রাজি হয়নি তাই আমাদের ব্রেকাপ হয়ে গেছে।
!!
আমি:- আপনি কাওকে লাভ করতেন?
!!
সোনালী:- কিছুটা, এখন আব্বু যা বলবে আমি তাই করবো। তখনি গাড়ীটা থামছে আমাদের বাড়ীর সামনে,
গাড়ী থেকে দুজনে এক সাথে নামছি সোনালী আর আমি পাশা পাশি হেটে দরজার সামনে গেছি। আম্মু আমাদের বরন করে নিয়েছে রাত বেশি হয়ে যাওয়াতে আমাদের দুজনকে বাসর ঘরে ঢুকিয়ে দিয়েছে।
!!
ভাবি:- দেবরজ্বি বিড়ালটা ঠিক ঠাক মত মারবে কিন্তু বলে একটা হাসি দিয়ে ওদাও।
!!
সোনালী:- রুমে বিড়াল কোথা থেকে এসেছে?
!!
আমি:- মানে বুঝিনি কি বলছো?
!!
সোনালী:- ঐ ভাবি যে বলছে বিড়ালটা মারতে তাই বলছি এই আর কি, আচ্ছা আমি ঘুমায় আপনি নিছে ঘুমাবেন কিন্তু কারন খাঠের উপর আমার সাথে থাকলে যদি ঘুমের মাঝে আমার শরীরের সাথে আপনার স্পর্শ লেগে যায়।
!!
আমি:- ঠিক আছে! আরে মেয়ে তো আরো তেরা যেমন বাপ তেমন মেয়ে যায় একটু উয়াশ রুম থেকে আসি, মনে মনে শ্বশুড়কে কিছুটা বকা জকা করে চলে গেলাম ফ্রেস হতে। কিছুক্ষণ পর বের হয়ে দেখি সোনালী ভিডিও কলে তার বাবার সাথে কথা বলছে আর হাসতেছে,,,,,,
!!
To be Continue

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here