ভালোবাসার গল্প

0
363

আমি তখন ছোটো ছিলাম ,আমার বয়স তখন ছিল  6 থেকে 9 বছর  , যখন আমি প্রথম থেকে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়তাম । তখন থেকেই আমাকে একটি  ছেলে পছন্দ করতো । ছেলেটির নাম রকি আর আমার নাম  তিথি । ও হ্যাঁ একটা কথা বলা হয়নি  আপনাদের  কে ,আমরা  প্রথম থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত  যে বিদ্যালয়ে পঠন পাঠন করেছি সেই  বিদ্যালয় টির  নাম ছিল জাফরাবাদ এস .এস. কে  শিশু শিক্ষা কেন্দ্র। প্রথম থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত এক সাথেই পড়েছি । কিন্তু যখন চতুর্থ শ্রেণীর পাঠ শেষ করলাম তারপর  আলাদা হয়ে  গেলাম  রকি আর আমি । আমি পঞ্চম শ্রেণিতে ভর্তি হলাম    সরল পুর  উচ্চ বিদ্যালয় এ  , আর রকি  পঞ্চম শ্রেণিতে ভর্তি হল আখেরী গঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় এ । তারপর  থেকে আর রকি ও আমার দেখা ও কথা হয়নি ।  রকি  কিন্তু আমার কথা সবার সামনেই বলতো । রকি যে আলাদা বিদ্যালয় এ ভর্তি  হয়েছিল  তাও  কিন্তু সে আমার কথায়  বলেছে সবার সামনে । তার কারণটা কী জানেন ? বা বুঝতে পারছেন কিছু । কারণ সেই রকি আমাকেই ভালোবাসে । রকি আমার  মোবাইল নম্বর চেয়েছিল  2 -3 বছর থেকে আমর বন্ধু  ও বান্ধবীদের  কে দিয়ে । আমার  নম্বর ছিল  শুধু মাত্র 3 জন বান্ধবীদের কাছে। চাইলেই কিন্তু আমার নম্বর  দিয়ে দিতে পারতো কিন্তু,  আমি বারণ করে বলে দিয়েছিলাম যে আমার নম্বর  দিবি না তোরা হু। বান্ধবীরা বললো ঠিক আছে দেবো না। হঠাৎ একদিন আমি আমার এক  বান্ধবী কে বললাম যে  তোদের বাড়ি যাবো  ,  যাবো বলেছিলাম তার কারণ  বান্ধবী আমার বাড়ি  এসেছিল  তাই  সে রেগে বলেছিল  তুই আমার  বাড়ি  যাবি কি যাবিনা  তাই বলেছিলাম যে ঠিক আছে যাবো । কিন্তু  যে বান্ধবীর বাড়ি যাবো  বলেছিলাম মানে গিয়ে ছিলাম ।সেখানেই রকি দের বাড়ি  , আসলে আমি চিনতাম না আর জানতাম ও না ।গিয়ে  আমার বান্ধবী বলছে  রকি  বাড়িতে  এসেছে । তাই শুনে বান্ধবী কে বললাম তুই  আগে বলিসনি কেনো  একটু রেগেই বলেছিলাম । বান্ধবীর বাড়ি  গিয়ে তো বাইরে যাইনি  রকি বাড়ি এসেছে  তাই ।রকি গোয়াতে গিয়েছিল  কাজে  , কাজে থেকেই বাড়ি এসেছিল  2 দিন হয়েছিল  । আমাকে বাড়ি রাখতে আসছিল  আমার বান্ধবী এমন সময়ে রকি এর সাথে আমার দেখা হয় । তখন রকি আমাকে দেখেই ওদের বাড়িতে আমাকে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমার বান্ধবীকে বলছে । যে আমাদের বাড়িতে নিয়ে আয় ।  আমি কিন্তু বলছিলাম যাবোনা । কিন্তু রকি বারবার ডাকছিল তাই আবারও ভাবলাম যে যাই  না গেলে রকি ও হয়তো বা ভাবতো অহংকার করছি । তাই গেলাম 1-2 মিনিট বসেই  চলে আসলাম  । আমি  রকি র সাথে সেইদিন  একটা কথাও  বলিনি । আর  বাইরে চলে আসার  পর রকি বলছে আমাকে যে একটা কথাও বললোনা মাথায় খারাপ । তারপর  আমি আমার বাড়ি চলে এলাম । বাড়ি আসার পর থেকেই শুধু  রকির কথাই মনে হচ্ছিল শুধু । তারপর সন্ধ্যা বেলা তে আমি আমার বান্ধবী কে ফোন করে বললাম  যে ও যেন আমার নম্বর টি রকিকে দিয়ে দেয়  । বলার  দু দিন পর নম্বর দিয়েছিল । তারপর রকি  আমাকে ফোন করে বলল যে নম্বর টা দিতে কতদিন লাগে । আমি বললাম আমি দিইনি এমনি । আমি উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা  দিয়েছিলাম কিন্তু দুঃখের বিষয়  2 টা বিষয়ে  ফেল  । সেটাও রকি শুনেছে। আর আমাকে বলছে কি করে 2 টা বিষয়ে  ফেল  হল। আমি বললাম হয়েছে আমার হয়েছে তোর হয়েছে । রকি বলল না তোমার হয়েছে কিন্তু মাথাটা খারাপ হয়েছে আমার ।তোর  কেন  মাথা খারাপ । তখন রকি  বলছে জানোনা কেন   । আমি তোমাকে ভালোবাসি তাই । আমি বললাম আমি তো তোকে জাস্ট ফ্রেন্ড ভাবি । আর এটাই সত্য যে আমি রকিকে জাস্ট ফ্রেন্ড  ই ভাবতাম আর তাই  তুই করেই কথা বলতাম । কিন্তু এখন আমি রকিকে এখন অনেক বেশি ভালোবেসে ফেলেছি। কিন্তু বন্ধু থেকে যে আমাদের ভালোবাসা টা এতটাই গভীর হয়ে গেছে আমরা নিজেরাই বুঝতে পারিনি । এখন  আমরা  কথা  না বলে  থাকতেই পারিনা । আপনারা দোয়া  করবেন  যেন আমরা দুজন দুজনকে পাই সারাজীবন এর জন্য । ভালো থাকবেন সবাই ।