অভিশপ্ত প্রেম

শিশিরে শয্যা নিল জীবনকে বাজি ধরে
লাল হয়ে গেল মাটি শহীদের তাজা খুনে,
আবেগে উথলে উঠে হৃদয়ে অবাধ্য প্রেম
স্বাধীনতার বীজ বুনে প্রেমী অনাগত ভ্রুণে ।

অভিমানী জননী কাঁদে আজ ও অগোচরে
বিসর্জন কি অকারণ হলো স্বাধীনতার তরে ?
ফাগুনের আগুনে মাটি পুড়ে হলো খাক্
নীতির আকালে সাধ অকালেই গেল মরে !

স্বপ্নের রঙগুলো ক্ষয়ে ক্ষয়ে বিবর্ণ হলো
শাপলা দোয়েল কাঁদে অবিচারে অনাদরে,
সুশাসনের সুস্বাদ নেই; মোহ করে সব গ্রাস
গাংচিল আর ইলিশের ঝাঁক আসেনা পদ্মাচরে !

সুখের আবেদন পায়ে দলে মহাজন দম্ভভরে
প্রভূকে অবজ্ঞা, ভর্ৎসনা করে অন্ধ হয়ে,
অনিয়মই নিয়ম যেন এখন এই চরাচরে
পাংশু বর্ণ স্বদেশ আমার কাঁপে বর্গীর ভয়ে !

মানুষে মানুষে নেই বিশ্বাস, বিদ্বেষে বাড়ে ঘিন্
হর্ষ প্রকাশে সত্যের বুঝি নেই কোন প্রয়োজন !
অশ্লীলতার অভিশাপে জাতি সদা করে ক্রন্দন
দূর্দিনে কেউ করবে কি আর জীবন বিসর্জন ?

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here