অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব ৩

0
743

অদ্ভুত ভালোবাসা পর্ব ৩
_ অন্না
,
নিলয়ের কথা শুনে নীরা চুপ মেরে যায়,,,
,
নিলয়::::: তুমি ভুলে যাচ্ছো যে তুমি এখন শুধু আমার পছন্দের মানুষ নেই, আমার বউ তুমি, আমার জীবনের সাথে তোমার জীবনটা জরিয়ে গেছে,,, প্লিজ নীরু তুমি ভালোভাবেই জানো আমি মরে গেলেও তোমায় ছারবো না,,,, তাই বাধ্য করো না আমায় কারো ক্ষতি করতে,,, তোমার মনে কেউ যদি থেকেও থাকে তাকে ভুলে যাও এতে তোমার আর তার দুজনেরই মঙ্গল ,,,, যাও ক্লাসে যাও,,,
,
নীরা চুপচাপ ক্লাসে চলে যায়,,,, কিন্তুু ক্লাসে আর কেউ ওর সাথে ভালোভাবে কথা বলে না, নিলয়ের জন্য এখন নীরার সাথে কেউ ভালোভাবে মিশেনা,,, এমনকি স্যার ও কিছু বলে না,,, নীরা ক্লাস থেকে বেরিয়ে আসে,,, ক্যাম্পাসে বসে পরে, ভাবতে থাকে,,,,,
,
নীরা:::::: আমি কি করে এর থেকে মুক্তি পাবো আল্লাহ্ বলে দাও তুমি,, কেনো আমার সাথেই এমন হচ্ছে,,, এভাবে আর আমি এখানে থাকতে পারবো না,,,
,
এর মধ্যে নীরার মা ফোন দেয়,,,,
,
নীরা;;;; হ্যা মাদার ইন্ডিয়া বলো,,,
,
নীরার মা:::: কিরে কই তুই,, তারাতারি বাসায় আয়
,
নীরা :::: কেনো কি হয়েছে,,,
,
নীরার মা’::: আরে কাল বলালাম না মিসেস মুনমুন এর মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান এ যেতে হবে,,,
,
নীরা:::: মা আমি কোথাও যেতে পারবো না,,, তুমি আর বাবা চলে যাও,,
,
নীরার মা :::: আমি তোর কথা শুনতে চাই না,,, তারাতারি বাসায় আয় তোর বাবা তোর জন্য বসে আছে,,, ভদ্রতা বলতে কিছু আছে বুঝলি,,, জলদি আয়,,,,
,
নীরা :::: ঠিক আছে আসতেছি,,, উরে যাবো নাকি হ্যা,,, টাইম লাগবে,,, রাখছি,,,
,
নীরা চলে গেলো বারির উদ্দেশ্যে,,, আর এদিকে নিলয় চলে যায় ওর বাসায়,, বাসায় ঢুকতেই নিলয়ের বোন দৌরে এসে নিলয়ের গলা জরিয়ে ধরে,,,,
,
তিশা::::: ভাই,,,, কই ছিলা তুমি এত্তক্ষন আমি সেই কখন থেকে রেডি হয়ে বসে আছি,,, আমার সব সাজ নষ্ট হয়ে গেলো,,,
,
,নিলয়:::: আমার তিশা মনিটা দুনিয়ার সব চাইতে best petty, sweet, beautyqueen girl,,, তোমার সাজার কি দরকার,,, আমি এখনই চট করে তৈরি হয়ে আসি,,,, তুমি ৫ মিনিট টাইম দাও ,,,,
,
নিলয়ের মা :::: বোনকে এত্ত লাই দিও না মাথায় চরে যাবে,,,
,
নিলয়::::: সেটা আমি বুঝবো আপনার ভাবতে হবে না,,,
,
নিলয়েরর মা:::: কোথায় যাবে তোমরা???
,
নিলয়:::: সেটা আপনার না জানলেও চলবে,,, নিজের গন্ডির মধ্যে থাকেন,,,, মা হবার চেষ্টা করবেন না,,,,
,
নিলয়ের মা এর সব কিছু অভ্যাস হয়ে গেছে , নিলয়ের অনেক কঠিন ভাষাও নিলয়ের মা সহ্য করে নিছে,,কিন্তুু কনোদিন কিছু বলে নি, তার একটাই আশা নিলয় একদিন তাকে ঠিকই মা বলে মেনে নিবে,,,,
,
নীরাকে এদিকে ওর মা শুধু বিয়ে বারিতে ভদ্রতা বজায় রাখতে যায় নি,,, উনার বান্ধবি মিসেস মুনমুনের ছেলে পিয়াস এর সাথে দেখা করিয়ে দেবার জন্য,,, নীরার মা এর পিয়াস কে অনেক পছন্দ,, কিন্তুু নীরাকে বললে রাজি হবে না তাই নীরার মা এই প্ল্যান টা করে নীরাকে নিয়ে যায়,,,,,
,
নীরা :::: ধুর ধুর সবাই মিলে আমার কলিজা টা টানাটানি করতে শুরু করেছে ,,, আল্লাহ্ বাচাও আমায়,,,, এই শাড়ি পরে আমি কেমনে যাবো,,,,
,
নীরার মা :::: কিরে তোর হলো,,, জলদি আয় গাড়ি দারিয়ে আছে,,,
,
নীরা::: আসতেছি,,
,
আল্লাহ আর যাই হোক ওই গুন্ডার সাথে যেনো দেখা না হয়,,,,
,
বিয়ে বারিতে এসে নীরার ভালই লাগছে,,, কারন সবাই নীরার দিকে হা করে তাকিয়ে আছে,, আর থাকবেই না কেনো,,, আজ নীরা হলুদ শাড়ি পরছে, সাথে ম্যাচিং কানের দুল, গলার মালা,ঠোঁটে লাল লিপস্টিক, কপালে টিপ হাত ভর্তি হলুদ কাচের চুড়ি,,, একদম হলুদ পরীর মতো লাগছে ,,, নীরা সবাইকে আর চেখে দেখছে আর মনে মনে ভাবছে,,,,
,——- বাহ্ নীরা তোকে তো মনে হচ্ছে অনেক সুন্দর লাগছে,,, সবাই তো হা করে তাকিয়ে আছে,,, তার জন্যই তো ওই গুন্ডা টা তোর পিছে পরে আছে,, হ আরো সুন্দরী হ,,,,
,
নীরা বুঝতেই পারলো না এতো মানুষের মধ্যে এক জোড়া চোখ ওর দীকে ভয়ানক দৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে,,, সে আর কেউ না নিলয়,,,
,
নিলয়::: ওর সাহস কি করে হয় এত্ত সেজে কোথাও আসার,, কত্ত ছেলে ওর দিকে তাকিয়ে বাজে চিন্তা ভাবনা করছে ওর জানা আছে,,, পাখা গজিয়েছে তোমার দারাও পাখা কেটে দেবার ব্যবস্থা করছি,,,,
,
এর মধ্যে একটা ছেলে নীরাকে ডাকে,,,,
,
ছেলেটি :::: excuse me mis, হলুদ পরি,,,,
,
নীরা ::::: জি আমাকে বলছেন???
,
ছেলেটি ::: জি হ্যা আপনাকেই বলছি,, আপনি ছারা এই পুরা বিয়ে বারিতে হলুদ পরী কে আছে???
.
নীরা ::: আপনি একটু বেশিই বলছেন,,,
,
ছেলেটি ::::: আমার কিন্তুু বেশ অহংকার আর হিংসে হচ্ছে জানেন,,,
,
নীরা ::: হিংসা কেনো???
আর অহংকারই বা কেনো,,,
,
ছেলেটি ::: দুদিন পর যার সাথে আমার বিয়ে তাকে যে সবাই এই ভাবে দেখছে তাই আমার হিংসে হচ্ছে আর তুমি যে এতই সুন্দরী তাই আমার অহংকার হচ্ছে,,,
,
নীরা :::: মানে কি বলছেন আপনি,,,
,
ছেলেটি :::: আসেন আমরা ওইখানটায় বসে কথা বলি,,,
,
নীরা ::::: না, যা বলার এখানে বলেন না হলে না বলেন,,,
,
ছেলেটি :::: আচ্ছা আচ্ছা কুল,,, এখানেই বলছি,, হায় আমি পিয়াস,,, যার বিয়েতে আসছেন আমি তার ভাই,,,,
( হাত এগিয়ে দিয়ে)
,
নীরা হাত মেলাতে যাবে তখনই দেখে নিলয় রাগি চোখে ওর দিকে এগিয়ে আসছে,,,, নীরা নিলয়কে দেখেই উল্টোদিকে দেয় দৌড়,,,, আর পিয়াস হা হয়ে থাকে নীরার যাবার দিকে,,,,
,
নিরা :::: আল্লাহ্ এইটা কি হলো,,, যেটা না চাই তুমি সেটাই দু হাত ভরে দেও,, আমি এখন কই যাই,,,
,,
কিনতু সামনে থেকে নিলয় এসে নীরার হাত ধরে টানতে টানতে একটা ফাকা রুম এ নিয়ে এসে রুম লক করে দেয়,,,
,
নীরা ::: প্লিজ আমায় মারবেন না,, আমি আর কোনো দিন ও,,,
,
পুরা কথা বলতেই পারে না তার আগেই নিলয় নীরার দুহাত শক্ত করে ধরে নিজের বুকের সাথে চেপে ধরে নীরার ঠোঁটে নিজের ঠোট ডুবিয়ে দেয়,,,, ,,নিলয় যেভাবে নীরাকে ধরে রেখেছে নীরা নড়তেও পারছে না,,, নীরা অজানা এক অনুভুতিতে হারিয়ে গেছে এর মধ্যে নিলয় নীরাকে ছেরে দেয়,,,
,
,
এদিকে নিলয় নিরাকে ছারার পর নীরা চোখ বন্ধ করে চুপটি মেরে দারিয়ে কান্না করতে থাকে,,,,
,
নিলয় ;;;;;; কান্না বন্ধ করো নীর,,
,
নীরা :::::,,,,,
,
নীলয় ::::: কি থামবা নাকি আবার কিস করবো????
,
নীরা :::: আপনি আমার সাথে কেনো এমন করছেন??? কি করছি আমি,,,
,
নিলয় :;;; তুমি ওই ছেলের সাথে কথা বলছিলে কেনো,,,,
,
নীরা ::: আমি তো কথা বলিনি,,, উনিই তো,,,
,
নিলয় ::::; উনি তো কি???? যে তোমার সাথে কথা বলতে আসবে তুমি তার সাথেই কথা বলবা,,,, কি ভেবেছিলা আমি জানতে পারবো না,,,,
,
নীরা :::: আমি তি যাস্ট,,,,,
,
নিলয় :::: নীর পাখি আমি তোমাকে বলেছিনা এমন কোনো কাজ করোনা যাতে আমার রাগ উঠে যায়,,, এত্ত সেজে আসছো কেনো হ্যা,,, সবাই কেমন করে তাকিয়ে আছে তুমি জানো?? ঠোটে কখনও লিপস্টিক দিবা না, আমি নিজেকে কন্ট্রোল করতে পারি না,,, ? আমি চাইনা আমি ছারা তোমায় এভাবে কেউ দেখুক,,,
,
বলেই নিলয় সুপ্তির কপাল থেকে টিপ তুলে নেয়,,, টিসু দিয়ে ঠোট মুছে দেয়,,, চোখের কাজল তুলে দেয়,,, চুরি গুলা খুলে নেয়,,, আর চুলটা নীরাকে বেধে নিতে বলে,,,
,
নীরা জানে ওর কথা না শুনলে কপালে দুঃখ আছে,, তাই চুল নিয়ে হাত খোপা করে নেয়,,,
,
নিলয়:::: এখন দিয়ে মা এর কাছে গিয়ে থাকবে,, একা কোথাও যাবে না,, কোনো ছেলের সাথে কথা বলবানা,,, আমি কিন্তু এখানেই আছি,,,, বুঝলা???
,
নীরা:::: হুম,,,
,
নীরা যেতে লাগলে নিলয় আবার নীরাকে জরিয়ে ধরে কপালে কিস করে,,,
,
নিলয়::: এবার যাও,,,
,
নীরার মা :::: কিরে একা একা কই ঘুরছিস? আর সাজ গোজ সব মুছে ফেলছিস কেনে???
,
নীরা :;;; ভারি ভারি লাগছিলো তাই,,,
,
নীরা বিয়ে বাড়িতে আর কারো সাথেই কথা বলে নি,,, জানেই নিলয় যখন তখন ওর ঘাড় মটকে দিবে,,,,
,
তিশা ::::: ভইয়া মেয়েটা কে ছিলো রে,,,,
,
নিলয়:::: কই কোন মেয়ে,,,,????
,
তিশা;:::: আমার ভাবি???
,
নিলয় :::::: হুম,,,
,
তিশা :::: আমার কিন্তু অনেক পছন্দ হইছে,,, কিউট এর ডিব্বা,,, কিন্তুু যাবার সময় দেখলাম রঙিন ,,, আর আসার সময় সাদা কালো,,, কাহিনি কি ভাই???
,
নিলয়;:; তোর এত্ত কাহিনি জানতে হবে না,,,
,
তিশা:::: তাহলে কিন্তুু সবাইকে বলে দিবো,,,
,
নিলয়,,, নারে বোন আমার তোর কষ্ট করতে হবে না আমিই বলবো,,,
,
তিশ::;: যাই হোক ভাই ভাবি কিন্তুু খুব মিষ্টি,,,,
,
নিলয়:::: হইছে আর বলতে হবে না,,, চলো বাসায় যাই,,,,
,
নীরা বাসায় ঢোকার সাথে সাথেই,,,,
——- আম্মুুু,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,
,
নীরার আম্মু…….. কিরে চিল্লাস কেন???
,
নীরা ::::: তুমি সত্তি করে বলো,,,, আজ আমায় ওই বিয়েতে কেনো নিয়ে গেছিলা,,,,,
,
নীরার মা:::: এইটা কেমন কথা,,,, বিয়েতে মানুষ কেনো যায়,,,
,
নীরা :::; একদম মিথা বলবানা,,,, পিয়াস নামের ছেলেটা কেনো বললো যে ওর সাথে নাকি আমার বিয়ে হবে ,,,
,
নীরার মা,,, ::: হুম ঠিকই তো বলছে,,, ছেলেটা খুব ভালো,,, বিদেশ থেকে পড়া কমপ্লিট করছে এখন বাবার কোম্পানিতে বসবে,,, তোকে ওদের পরিবারের খুব পছন্দ ছিলো,,, আজ ছেলেও হ্যা করে দিছে,,,,, সামনের বুধবারে তোদের এন্গেইজমেন্ট,,,, তোর বাবা সব ঠিক করে দিছে,,,
,
নীরা::::: মানে কি এসবের,,, আমি জদি জানতাম তোমাদের মনে এসব আছে আমি জীবনেও যাইতাম না,,, আমি ওরে বিয়ে করতে পারবো না,,,
,
নীরার মা :;;; কেনো পারবিনা শুনি,, পিয়াস কোন দিক দিয়ে খারাপ শুনি,,,
,
নীরা:::: ওকে আমার পছন্দ হয় নি,,,,
,
নীরার মা ::::: একদম মিথ্যা বলবিনা ,,, কত্ত মেয়ে পিয়াস কে বিয়ে করার জন্য লাইন লগগিয়ে আছে জানিস,,,
,
নীরা :::: (তুমি জানো না মা ওই গুন্ডা টা এই কথা জানলে আমায় কুচিকুচি করে খাবে) ,,, তাই বলে তুমি ও আমায় সেই লাইন এ দাড় করিয়ে দিতে পারো না,, আমার ও একটা মতা মত আছে,,,
,
নীরার মা:::: তোর কি ধারনা আমি তোর বাবা তোর খারাপ চাইবো,,, আর তুই এতো বড় হসনি আমাদের মুখের ওপর কথা বলবি,,,
,
নীরা ::::: কিন্তুু মা,,,,
,
নীরার মা:::: আর একটা কথা বললে থাপ্পর খাবি,,, পিয়াস এর সাথেই তোর বিয়ে হবে এইটাই ফাইনাল,,,
,
নীরা আর কিছু বললোনা,, জানে এর থেকে বেশি বলতে গেলে সত্তি থাপ্পর খেতে হবে,,,
,
নীরা :::: কিন্তুু আমি কেনো বিয়েতে রাজি হচ্ছি না,,, যা শুনলাম পিয়াস ঠিকঠাক ছেলে,,, আর দেখতেও খুব একটা খারাপ না,,,, শুধুকি নিলয় এর ভয়ে মা, বাবা এত্ত তারাতারি আমার বিয়ে দিয়ে চাইছে???? শালা নিলয়,, ইচ্ছা করছে তোরে ডাস্টবিন এর মধ্যে আটকে রাখি,,, হাত পা ভেঙে ফ্রিজে রেখে দিবো তোর,,,, সাইকো,,,, তোর জন্য আমার জীবনটা পুরাই তেজপাতা হয়ে গেলো,,,,,
,
পরদিন কলেজ এগিয়ে দেখে পিয়াস আর নিলয় একসাথে দারিয়ে আছে,,,,,,
,
চলবে,,,,,,,,♥♥♥

প্রিয় পাঠক আপনারা যদি আমাদের (গল্প পোকা ডট কম ) ওয়েব সাইটের অ্যাপ্লিকেশনটি এখনো ডাউনলোড না করে থাকেন তাহলে নিচে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে এখনি গল্প পোকা মোবাইল অ্যাপসটি ডাউনলোড করুন => ??????

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.golpopoka.android

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here