দহন

সীমান্ত এঁকেছ। আর… অরণ্য গহন।
নিষিদ্ধ প্রলেপ তো তোমারই প্রচলন।
শেকল দৃশ্যমান। বেড়ি পায়ে রেখেছোতো আজও।
বার বার কেন তুমি সংস্কার সাজো?
প্রতিহত হয়ে জেনো লজ্জাপ্রাচীরে,
‘সুন্দর’ মিশে গেছে মানুষেরই ভিড়ে।
তুমি ফের কুহকিনী হতে যদি পারো;
সভ্যতা ছুঁড়ে আমি ফেলব আবারও।বহ্নি চিরন্তন। তরঙ্গ আন্দোলিত প্রতি নিঃশ্বাসে।
সংযম শেখে নি; পতঙ্গ নির্বোধ হতে ভালোবাসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here